কুকুরের উপর নৃশংস অত্যাচার, মেরে তন্ত্রসাধনার অভিযোগ উঠল ডানকুনিতে

কুকুর ছানার উপর নৃশংস অত্যাচার (নিজস্ব চিত্র)

  • Share this:

    #হুগলি: বেঙ্গালুরুর পর বাংলা ৷ রাস্তার কুকুর ধরে ঘরে এনে নৃশংস অত্যাচার এবং তন্ত্র সাধনার অভিযোগ উঠল খাস বাংলায় ৷ হুগলির ডানকুনি হাউজিংয়ের বাসিন্দা এক বছর ৩৪-এর যুবকের বিরুদ্ধে কুকুর নিয়ে তন্ত্রসাধনার অভিযোগ তুললেন স্থানীয় বাসিন্দারা ৷ সেই অভিযোগে অভিযুক্তকে প্রবল মারধরও করা হয় ৷ অভিযুক্তের নাম দীপ আচার্য ৷ বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই পলাতক যুবক ৷

    স্থানীয় সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই আবাসনের ফ্ল্যাটে ওই যুবক সন্দেহজনক কার্যকলাপ চালাতেন বলে সন্দেহ প্রতিবেশীদের ৷ শনিবার একটি কুকুরছানাকে দীপের ফ্ল্যাটের বারান্দায় শূন্যে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান স্থানীয়রা ৷ নিরীহ অবলা প্রাণীর উপর এমন অত্যাচারের প্রবল প্রতিবাদ জানায় প্রতিবেশীরা ৷ খবর দেওয়া হয় পশুপ্রেমী সংস্থায় ৷

    এরপর প্রতিবেশী ও পশুপ্রেমী সংস্থার সদস্যরা দীপের বাড়ি গিয়ে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে জানায়, কুকুরটিকে স্নান করিয়ে শুকোনোর জন্য বারান্দায় ঝুলিয়ে রেখেছিলেন তিনি ৷ এমন জবাব পেয়ে উত্তেজিত হয়ে ওঠেন বাকিরা ৷ দীপের সঙ্গে উত্তপ্ত বাদানুবাদ গড়ায় হাতাহাতিতে ৷ খবর যায় পুলিশে ৷ ডানকুনি থানার পুলিশ এসে অভিযুক্ত যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার সময় হাত ছাড়িয়ে পালিয়ে যায় সে ৷

    আরও পড়ুন 

    পরিষেবা আর সস্তায় নয়, এই ট্রেনের টিকিটেরও দাম বাড়াচ্ছে রেল

    পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, ওই যুবক মানসিকভাবে অপ্রকৃতস্থ ৷ পলাতক অভিযুক্তের খোঁজ করছে পুলিশ ৷ যুবককে ধরা না গেলেও আক্রান্ত কুকুর ছানাটিকে উদ্ধার করেছেন স্থানীয়রা ৷ কুকুর ছানাটির উপর নৃশংস অত্যাচারের ক্যামেরা বন্দি ছবি পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে ৷ স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে ওই আবাসনে বসেই তন্ত্রসাধনা করতেন ওই যুবক ৷ তাদের সন্দেহ, এর আগেও কুকুর মেরে তন্ত্রসাধনার ঘটনা ঘটিয়েছে অভিযুক্ত ৷ প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, দীপের ফ্ল্যাটের একটি ঘরে তন্ত্রসাধনার সামগ্রী হিসেবে কাটারি, সিঁদুর ও মোমবাতি পাওয়া গিয়েছে ৷

    First published: