Home /News /south-bengal /

Blast in factory: আচমকাই বিকট শব্দে বিষ্ফোরণ, বর্ধমানের কারখানায় আগুনে ঝলসে গেলেন ২ শ্রমিক

Blast in factory: আচমকাই বিকট শব্দে বিষ্ফোরণ, বর্ধমানের কারখানায় আগুনে ঝলসে গেলেন ২ শ্রমিক

স্পঞ্জ আয়রন কারখানার ফার্নেসে (ভাটিতে) ভয়াবহ বিষ্ফোরণ (Blast in factory), আহত ২ জন শ্রমিক

  • Share this:

#বর্ধমান: স্পঞ্জ আয়রন কারখানার ফার্নেসে (ভাটিতে) ভয়াবহ বিষ্ফোরণ (Blast in factory),  আহত  ২  জন শ্রমিক। তাঁদের দগ্ধ অবস্থায় বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আগুনে ঝলসে গিয়েছে আহতদের শরীর। বর্ধমান থানার দেওয়ানদিঘির 'শ্রী সত্য স্টিল এন্ড পাওয়ার প্রাইভেট লিমিটেড'-এর কারখানায় বিস্ফোরণ হয়। ঘটনাস্থলে গিয়ে বর্ধমান থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঠিক কী কারণে  বিষ্ফোরণ (Blast in factory)ঘটল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে বর্ধমান থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন:বাবুলের জয় দিয়ে খেলা শুরু ডায়মন্ড হারবারে

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, শুক্রবার রাতে কারখানার কাজ চলাকালীন আচমকাই প্রচণ্ড শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে কারখানার ফার্নেস বা ভাটিতে। মুহূর্তে আগুনের ফুলকি  ছড়িয়ে পড়ে ফার্নেস বা ভাটি সংলগ্ন এলাকায়। সেই আগুনেই আহত হন মোহন তেওয়ারী ও আকাশ গুপ্তা নামে  দুই শ্রমিক। তড়িঘড়ি তাঁদের বর্ধমান মেডিক্যালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে সেখানেই তাঁরা চিকিৎসাধীন।

আহত শ্রমিক মোহন তেওয়ারী জানিয়েছেন,কোনও কিছু বুঝে ওঠার আগেই হঠাৎ করে ফার্নেস বা ভাটিতে বিস্ফোরণ ঘটে যায়। সেই সময় তিনি গুরুতরভাবে জখম হন।

আরও পড়ুন:'নার্সিংহোমে নিয়ে যাননি কেন?' রোগীর পরিবারকে ঝাঁঝিয়ে উঠলেন বর্ধমান মেডিক্যালের নার্স

অন্য আর এক শ্রমিক রাজেশ যাদব জানিয়েছেন, তিনি তখন কারখানার শ্রমিক আবাসনে ছিলেন। বিকট শব্দ শুনে এসে দেখেন ফার্নেস-এ বিস্ফোরণ ঘটেছে এবং দু 'জন শ্রমিক জখম হয়েছেন। তড়িঘড়ি তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয় এবং অনান্য শ্রমিকদের নিরাপদ দূরত্বে সরিয়ে দেওয়া হয়।

কারখানার পক্ষে কারখানার মেনটেনেন্স এইচওডি নির্মল পোদ্দার জানিয়েছেন,ফার্নেসের (ভাটি) লিক্যুইড কোনও কারণে জলের সংস্পর্শে আসতেই বিস্ফোরণ ঘটে। ফার্নেসের (ভাটি)  প্রায় ৪০% থেকে ৪২ % ক্ষতিগ্রস্ত। আপাতত ওই ইউনিটটি বন্ধ রাখা হয়েছে। বিস্ফোরণের ফলে একজন শ্রমিক আহত হয়েছেন তাকে বর্ধমান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভবিষ্যতে যাতে এই ধরণের ঘটনা আর না ঘটে তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে। বিশেষজ্ঞরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Burdwan

পরবর্তী খবর