প্রবল চাপে কাটমানির ১ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা ফেরালেন বিজেপি নেতা

প্রবল চাপে কাটমানির ১ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা ফেরালেন বিজেপি নেতা
কাটমানি ফেরালেন বিজেপি নেতা

বিজেপির বিরুদ্ধেই তৃণমূল নেতার থেকে আদায় করা কাটমানি আত্মসাতের অভিযোগ উঠল। যা চোরের ওপর বাটপারি বলেই মনে করছে ওয়াকিবহল মহল। ঘটনাটি পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড় ব্লকের খালিনা গ্রামের।

  • Share this:

#নারায়ণগড়: এ যেন চোরের ওপর বাটপারি। তৃণমূল নেতার থেকে আদায় করা কাটমানি আত্মসাতের অভিযোগ উঠল বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে। পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ের খালিনা গ্রামের ঘটনা। চাপের মুখে এক লক্ষ পয়তাল্লিশ হাজার ফেরালেন বিজেপির মধ্য মণ্ডল সভাপতি শুভাশিস মহাপাত্র।

দলের নেতা-কর্মীদের কাটমানি ফেরানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর একটা কথাই ঝড় তুলে দিয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। জেলায় জেলায় কাটমানি বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে রাজ্যের শাসক দলের নেতা-কর্মীদের। চাপের মুখে গুনে গুনে টাকা ফেরাচ্ছেনও অনেকে। দেখা যাচ্ছে কাটমানি ইস্যুতে গণরোষের নেতৃত্বে দিচ্ছে বিজেপি। এবার সেই বিজেপির বিরুদ্ধেই তৃণমূল নেতার থেকে আদায় করা কাটমানি আত্মসাতের অভিযোগ উঠল। যা চোরের ওপর বাটপারি বলেই মনে করছে ওয়াকিবহল মহল। ঘটনাটি পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড় ব্লকের খালিনা গ্রামের।

সরকারি প্রকল্পে বাড়ি তৈরির নামে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল খালিনা পঞ্চায়েতের প্রাক্তন তৃণমূল সদস্য সুশান্ত ঢলের বিরুদ্ধে। চাপের মুখে ১ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা ফেরত দেন তিনি। সেই টাকা আদায় করে নিজের কাছে রেখেছিলেন বিজেপির মধ্য মণ্ডল সভাপতি শুভাশিস মহাপাত্র। অভিযোগ, একমাস পেরিয়ে গেলেও সেই টাকা তিনি ফেরত দেননি৷

এরপরই তাঁর নামে কাটমানি-পোস্টার দেন ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। যারজেরে অস্বস্তিতে পড়ে যায় স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। শেষপর্যন্ত দলের চাপে, মঙ্গলবার রাতে পুরো টাকা ফেরত দেন তিনি। যদিও টাকা আত্মসাতের অভিযোগ মানতে চাননি শুভাশিস মহাপাত্র।

উনিশের লোকসভায় রাজ্যে পদ্মের চাষ করেছে গেরুয়া শিবির। একুশের বিধানসভায় তার পুনরাবৃত্তির লক্ষ্যে কাটমানিকে অন্যতম হাতিয়ার করতে চাইছে বিজেপি। কিন্তু নারায়ণগড়ের এই ঘটনা অস্বস্তি বাড়াল দলের শীর্ষ নেতৃত্বের। নারায়ণগড় থেকে শংকর রাই, নিউজ এইটিন বাংলা।

First published: 04:12:46 PM Aug 08, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर