Home /News /south-bengal /
Birbhum: ঠিক যেন সিনেমা...ইউটিউব থেকে শিখে মাঠে-ঘাটে প্র্যাকটিস, কুস্তিতে রাজ্যস্তরের পদক জয় বীরভূমের দুই যুবকের

Birbhum: ঠিক যেন সিনেমা...ইউটিউব থেকে শিখে মাঠে-ঘাটে প্র্যাকটিস, কুস্তিতে রাজ্যস্তরের পদক জয় বীরভূমের দুই যুবকের

ইউটিউব দেখে কুস্তির প্রস্তুতি নিয়ে এমন অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছেন বীরভূমের মহম্মদ বাজার ব্লকের অন্তর্গত সেকেড্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতে দীঘল গ্রামের দুই যুবক হাসিরুল শেখ এবং মুস্তাকিম শেখ

  • Share this:

    #বীরভূম : আজকের প্রজন্ম ইন্টারনেটের পোকা! দিনের বেশিরভাগ সময়টাই নেটদুনিয়ার আওতায়! এর যেমন খারাপ দিক আছে, ভাল দিক-ও আছে ভুরিভুরি! এই নেটদুনিয়া থেকেই প্রস্তুতি নিয়ে বীরভূমের দুই কুস্তিগীর পদক জয় করলেন রাজ্য স্তরের প্রতিযোগিতায়। ইউটিউব দেখে কুস্তির প্রস্তুতি নিয়ে এমন অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছেন বীরভূমের মহম্মদ বাজার ব্লকের অন্তর্গত সেকেড্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতে দীঘল গ্রামের দুই যুবক হাসিরুল শেখ এবং মুস্তাকিম শেখ। পরিবারের পাশাপাশি গর্বিত এলাকার বাসিন্দারাও।

    সম্প্রতি বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের তরফে অষ্টম নেতাজি সুভাষ স্টেট গেমস ২০২২ আয়োজিত হয়। সেখানেই হাসিরুল শেখ এবং মুস্তাকিম শেখ কুস্তির ৬০ কেজি এবং ৬৭ কেজির বিভাগে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সেই প্রতিযোগিতায় ৬৭ কেজির বিভাগে অংশগ্রহণ করে মুস্তাকিম শেখ তৃতীয় স্থান অধিকার করেন এবং ৬০ কেজির বিভাগে অংশগ্রহণ করে হাসিরুল শেখ প্রথম স্থান অধিকার করেন। এই দুই জয়ের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁদের মেডেল এবং সার্টিফিকেট দেওয়া হয়। কুস্তিতে সাধারণত বীরভূমের মত জেলায় সেইরকম প্রতিযোগী লক্ষ্য করা যায় না বললেই চলে।

    মহম্মদ বাজার ব্লকের এই দুজন কুস্তিগীর মাঠে-ঘাটে প্র্যাকটিস করে রাজ্য স্তরের প্রতিযোগিতায় পদক ছিনিয়ে আনেন। যা জেলার জন্য গর্বের। নিম্নবিত্ত পরিবারের এই দুই যুবক কীভাবে কুস্তির প্রতি আকৃষ্ট হলেন এবং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করলেন তা বেশ চমকপ্রদ। তাঁরা প্রথম ইউটিউবে কুস্তি প্রতিযোগিতা দেখেন,

    তাঁদের মধ্যে উৎসাহ তৈরি হয়, ভাবতে শুরু করেন, 'যদি এমন কুস্তিগীর হতে পারতাম'। এরপর তাঁরা কোনও রকম ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ না নিয়েই গ্রামের মাঠে প্রস্তুতি শুরু করেন। প্রস্তুতি চালানোর জন্য মাটি কেটে মাটি নরম করা হয়। তাঁদের এই উৎসাহ দেখে স্থানীয় এক শিক্ষক মুর্শিদাবাদের একটি ইনস্টিটিউটের সঙ্গে তাঁদের যোগাযোগ করিয়ে দেন। সেখানে তাঁরা দুজন কিছুদিন অনুশীলন নেন।

    তবে সেই অনুশীলন বেশিদিন নেওয়া সম্ভব হয়নি আর্থিক অনটনের কারণে। এরপর ফের তাঁরা গ্রামের মাঠে আগের মত প্রস্তুতি শুরু করেন। এরপর প্রতিযোগিতার কথা জানতে পারেন এবং সেখানে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করেন। কলকাতার জোড়াবাগানে আয়োজিত এই প্রতিযোগিতায় প্রায় ৬০ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেছিল।

    Madhab Das

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Birbhum

    পরবর্তী খবর