দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বারাসতে‌ জাল নোট গছিয়ে গয়না কিনতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়লেন এক ব্যক্তি

বারাসতে‌ জাল নোট গছিয়ে গয়না কিনতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়লেন এক ব্যক্তি
প্রতীকী ছবি

সোনার দোকানদার সঞ্জয় মজুমদার এই দিন অভিযোগ করেন যে, ঐ ব্যক্তি দ্বিতীয় বার টাকা ফেরৎ চাওয়ায় তাঁর সন্দেহ হয়।

  • Share this:

৫০০ টাকার জাল নোট দিয়ে সোনার দোকান থেকে কানের দুল কিনতে গিয়ে ধরা পড়ল এক ব্যক্তি। বারাসত নবপল্লী পোস্ট অফিসের কাছে ২৮৫০০ টাকা দামের সোনার দুই জোরা গয়না কিনতে এসেছিলেন এক ব্যক্তি। দোকানদার সঞ্জয় মজুমদার বলেন সকাল ১০ টা নাগাদ সদ্য দোকানে ধূপধূনো দিয়ে বসেছেন। সকাল সকাল খদ্দের দোকানে। এক জোড়ো নয়, দু’‌জোড়া কানের দুল চাইছেন তিনি। প্রথমে খদ্দের বাজেট জানতে চান তিনি। দু’‌জোড়া দুলের দাম হয় ২৯৫০০ হাজার টাকা। কিন্তুু ক্রেতা ২৯০০০ হাজারের মধ্যে জিনিষ চান। অন্য এক জোড়া কানের দুল দেখিয়ে ২৮৫০০ টাকায় রফা হয়। দু’‌বার টাকা গুনে ক্রেতা দোকানদারের হাতে ২৮৫০০ টাকা দেন। সেই সময় টাকা গুলি আসল ছিল। জিনিস ব্যাগে ভরে, ফের টাকা ফিরৎ চান ক্রেতা।

সোনার দোকানদার সঞ্জয় মজুমদার এই দিন অভিযোগ করেন যে, ঐ ব্যক্তি দ্বিতীয় বার টাকা ফেরৎ চাওয়ায় তাঁর সন্দেহ হয়। টাকা পাল্টে আবার একটা বান্ডিল দোকানদারকে দেন। সন্দেহ হওয়ায় তিনি আবার টাকা গুনতে গিয়ে দেখেন ওপরের ৫০০ টাকা আসল। বাকি টাকা জাল। ইতিমধ্যে ঐ ক্রেতা সোনার কানের দুল নিয়ে বাইকে উঠে বেরিয়ে যাওয়ার চেস্টা করেন। তৎক্ষনাৎ তাঁকে ধরে ফেলেন তিনি। ধরা পড়তেই ক্রেতা দোকানদারকে বলতে থাকেন যাতে টাকা ও গহনা দুটোই তিনি রেখে দেন, শুধু তাঁকে ছেড়ে দেন। দোকানদার সঞ্জয় মজুমদারের দাবী ঐ ব্যক্তি দ্বিতীয় বান্ডিলে ২৮০০০ হাজার টাকার জাল ৫০০ টাকার নোট দিয়েছে কেন সেই প্রশ্নের কোন উত্তর না পাওয়ায় পাশের ব্যবসাদার ও স্থানীয়দের ডাকেন। স্থানীয়রা এই ছুটে আসেন। এরপরই ঐ ব্যক্তিকে জিঞ্জাসাবাদ শুরু করেন তাঁরা। উত্তর না পাওয়ায়। ঐ ব্যক্তিকে লাইট পোস্টে বেঁধে মারধোর শুরু হয়। ইতিমধ্যে খবর দেওয়া হয় বারাসত থানায়। পুলিশ এসে জাল টাকা সহ ঐ ব্যক্তিকে আটক করে। পুলিশ সুত্রে জানা যায় ব্যক্তির নাম মুন্না খান। তার বাড়ি সোনাপুর এলাকায় বলে পুলিশকে জানিয়েছে। বারাসত পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দোপাধ্যায় এদিন জানান, নবপল্লী থেকে এক ব্যক্তিকে উদ্ধার করা হয়েছে। কী ভাবে তিনি এতগুলো জাল নোট পেলেন তা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ কর হচ্ছে।

RAJARSHI Roy

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: October 31, 2020, 3:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर