Titagarh Shootout: টিটাগড় শুটআউট! প্রকাশ্যে গুলিবিদ্ধ মনীশ শুক্ল ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ী, উত্তেজনা চরমে

টিটাগড়ে গুলিবিদ্ধ ব্যবসায়ী। প্রতীকী ছবি।

টিটাগড়ের ভরা বাজারে শুটআউট। ব্যবসায়ীকে লক্ষ করে গুলি ছোঁড়ার অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #টিটাগড়: টিটাগড়ের ভরা বাজারে শুটআউট। ব্যবসায়ীকে লক্ষ করে গুলি-বোমা ছোঁড়ার অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে।বৃহস্পতিবার রাতে শুটআউটের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা টিটাগড় এলাকা। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ওয়াই মধুবাবু রাও নামে এক ব্যবসায়ীর পেটে। গুলিবিদ্ধ ব্যবসায়ী দলীয় কর্মী বলে দাবি বিজেপির। যদিও বিজেপির দাবি সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। ঘটনায় রাজনৈতিক যোগ নেই, দাবি স্থানীয়  তৃণমূল  নেতৃত্বের।

    স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন। গুলিবিদ্ধ ব্যবসায়ী মধু রাও পেশায় দর্জি। তিনি মৃত মণীশ শুক্লর ঘনিষ্ঠ বলে এলাকায় পরিচিত। এ দিন দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরা জন্য দকান বন্ধ করার পরেই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়েন দুষ্কৃতীরা। পেটে গুলি লেগে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন তিনি। তড়িঘড়ি স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে ব্যারাকপুরের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে নিয়ে যান। সেখানেই অস্ত্রোপচার হয় তাঁর। পরে রাতের দিকে অবস্থার অবনতি হলে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় মধু রাওকে।

    টিটাগড়ের এই গুলি চালানোর ঘটনায় ব্যারাকপুরের বিজেপি প্রার্থী তথা মৃত বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লর বাবা চন্দ্রমণি শুক্ল দাবি করেন, গুলিবিদ্ধ যুবক মণীশ শুক্লার ঘনিষ্ঠ ছিলেন। মনীশ ওঁর দোকানেই জামা-প্যান্ট বানাতো পাশাপাশি, রাজনৈতিক মতাদর্শ মিলে যাওয়ায় বিজেপি পার্টি অফিসে নিয়মিত যাতায়াত ছিল তাঁর। এ দিন তৃণমুল প্রার্থী রাজ চক্রবর্তীর দলের লোকেরাই মধু রাওকে লক্ষ্য করে গুলি করে বলে অভিযোগ তাঁর।  এ দিকে মধু রাওয়ের পরিবারের দাবি, মধু বিজেপি সমর্থক ছিলেন। এলাকায় সন্ত্রাস সৃষ্টি করার জন্যই এই গুলি চালানো হয়েছে।

    অন্যদিকে, টিটাগর পুরসভার প্রশাসক প্রশান্ত চৌধুরী বলেন, ঘটনার সঙ্গে রাজনৈতিক কোনও যোগাযোগ নেই। চন্দ্রমনি শুক্ল রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করছেন।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: