Home /News /siliguri-wb /
Siliguri: কিরণচন্দ্র শ্মশান ঘাট সৌন্দর্যায়ন শিলিগুড়ি পুরনিগমের, বসছে সি সি ক্যামেরা

Siliguri: কিরণচন্দ্র শ্মশান ঘাট সৌন্দর্যায়ন শিলিগুড়ি পুরনিগমের, বসছে সি সি ক্যামেরা

title=

শিলিগুড়ি কিরণচন্দ্র শ্মশান ঘাট সৌন্দর্যায়নের উদ্যোগ শিলিগুড়ি মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের। মহানন্দা নদীর তীরে অবস্থিত শিলিগুড়ি কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাট।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি : শিলিগুড়ি কিরণচন্দ্র শ্মশান ঘাট সৌন্দর্যায়নের উদ্যোগ শিলিগুড়ি মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের। মহানন্দা নদীর তীরে অবস্থিত শিলিগুড়ি কিরনচন্দ্র শ্মশানঘাট। শিলিগুড়ির অন্যতম বড় শ্মশান ঘাট এটি। এবার এই শ্মশানঘাট কার্যত সৌন্দর্যায়ন এবং আরো বড় করার পরিকল্পনা নিল শিলিগুড়ি পুরনিগম কর্তৃপক্ষ। শিলিগুড়ি অন্যতম বড় শ্মশান ঘাট কিরণচন্দ্র শ্মশানঘাট। প্রতিদিন অনেক দেহ পোড়ানোর জন্য এখানে ভিড় জমে বহু মানুষ প্রতীক্ষিত অবস্থায় দাঁড়িয়ে থাকে। কথা চিন্তা করে আরও দুটি চুল্লি বসানোর কাজ ইতিমধ্যেই শুরু করে দিয়েছেন শিলিগুড়ি পুরো নিগম কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও শ্মশানের সামনে একটি পার্ক বানানো হচ্ছে যেখানে লোকে এসে বসতে পারবে। প্রায় এক কোটি টাকা ব্যয় করে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করতে চলেছেন শিলিগুড়ি পুরো নিগম কর্তৃপক্ষ বলে জানালেন ডেপুটি মেয়র রঞ্জন সরকার।

     

     

    তিনি বললেন যে একটি শ্মশানঘাট হওয়ায় এখানে ভিড় অনেক বেশি হয় তাই তাদের কথা চিন্তা করেই এই সিদ্ধান্ত দুটি চুল্লি বসানো হচ্ছে। অর্থাৎ মোট চারটি চুল্লি হওয়ায় শ্মশান যাত্রীদের আর বেশিক্ষণ দাঁড়াতে হবে না ।এছাড়াও শ্মশান যাত্রীদের বসার জন্য একটি ঘর বানানো হচ্ছে তাদের পরিধান বস্ত্র বদল করতে চেঞ্জিং রুম বাথরুম ইত্যাদি তৈরি করা হচ্ছে।

    আরও পড়ুন: নিরাপত্তা বাড়াতে সিসি ক্যামেরায় মুড়ে ফেলা হচ্ছে শহর!

     

     

    বাসিন্দারা জানান এখানে রোজই অনেক মৃতদেহ আসে। পুরো নিগমের এই উদ্যোগ খুব ভালো কারণ এতে সাধারণ মানুষের অনেক সুবিধা হবে। তবে একাংশের বক্তব্য দিনের শশানঘাট এবং রাতের শ্মশান ঘাট কার্যত আলাদা। রাত হলেই নেশাগ্রস্ত ব্যক্তিদের উপদ্রব বাড়ে ওই এলাকায় বলে অভিযোগ।

    আরও পড়ুন: খামখেয়ালি আবহাওয়ায় ক্ষতির মুখে উত্তরের চা শিল্প

     

     

    প্রসঙ্গে ডেপুটি মায়ের রঞ্জন সরকার জানান যে পুরো পুরো চত্বরটি সিসিটিভি ক্যামেরায় ঢেকে দেওয়া হবে। নজরদারি রাখা হবে চারিদিকের রাত হলেই আলো জ্বলবে তাই কোন অসাধু ব্যক্তি সেখানে কোন কুরুচিকর কাজ করতে পারবে না। পুরনিগমেরএই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শিলিগুড়ি শহরের বাসিন্দারা।

     

     

     

    Anirban Roy

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Siliguri

    পরবর্তী খবর