Home /News /purba-medinipur /
Midnapore News: মদ খাওয়ার টাকা নেই! নিজের নাবালিকা মেয়েকে বিক্রি করলেন বাবা!

Midnapore News: মদ খাওয়ার টাকা নেই! নিজের নাবালিকা মেয়েকে বিক্রি করলেন বাবা!

Midnapore News: মদ খাওয়ার জন্য টাকা ধার করতে করতে মাথায় ঋণের বোঝা! শেষে নিজের নাবালিকা মেয়েকেই বিক্রি করে দিলেন বাবা! তারপর কী হয় মেয়েটির সঙ্গে? জানলে শিউরে উঠবেন!

  • Share this:

    #পূর্ব মেদিনীপুর: ঋনের বোঝা বেড়ে যাওয়ায় নাবালিকা মেয়েকে বিক্রির অভিযোগ বাবার বিরুদ্ধে। এমনই ন্যক্কারজনক ঘটনার সাক্ষী থাকল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদল।গরীবের সংসার, তার ওপর মদের নেশা। দিন দিন ঋনের বোঝা বেড়ে যাচ্ছিল। আর তার থেকে মুক্তি পেতেই বিধর্মী এক যুবকের কাছে নিজের নাবালিকা কন্যাকে বিক্রির অভিযোগ বাবার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদল থানার উত্তর গোপালপুর গ্রামে। এই গ্রামের এক বাসিন্দা নিজের নাবালিকা মেয়েকে ১ অগাস্ট রঙ্গীবসানের এক বিধর্মী যুবকের কাছে বিক্রি করে দিয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। পঞ্চায়েতের তৎপরতায় তিন দিনের মাথায় উদ্ধার হল বিক্রি হওয়া নাবালিকা। প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন নাবালিকার মা ও দাদু। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে মহিষাদল থানার পুলিশ। থানায় অভিযোগ করার পর মহিষাদল থানার পুলিশ অভিযুক্তের খোঁজে তার বাড়িতে যায়। তার খোঁজ পাওয়া যায়নি।

    অভিযুক্তের স্ত্রী জানান, স্বামী নেশা করে বহু টাকা ঋন করেছে, বাড়িতে দুই মেয়ে এক ছেলে। বড় মেয়েকে পড়াশোনা করানো হবে, ভাল পরিবারে রেখে বড় করে তোলা হবে, একথা বলে মেয়েকে নিয়ে যায়। পরে জানতে পারি বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। জেনেই বিষয়টি স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতকে জানাই। গ্রাম পঞ্চায়েতের তৎপরতায় মেয়েকে উদ্ধার করা হয়। পরে মহিষাদল থানায় অভিযোগ দায়ের করি।' অভিযুক্তের বাবা অর্থাৎ ওই নাবালিকার দাদু জানান, ছেলের অত্যাচার আর সহ্য করা যাচ্ছে না। তাই ছেলের সাজার আবেদন জানিয়েছি। কঠোর থেকে কঠোরতম সাজা হোক।

    আরও পড়ুন: বাড়ির দরজায় গলায় দড়ি দিয়ে ঝুলছেন প্রাথমিক শিক্ষক! আতঙ্ক এলাকায়! রহস্য দানা বাঁধছে!

    স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য সুখেন্দু দাস জানান, খবর পাই আমার এলাকার একটি ছেলে তার নাবালিকা মেয়েকে পাশের গ্রাম নাটশাল-২ গ্রামপঞ্চায়েতের রঙ্গীবসান এলাকায় এক মহিলার কাছে মেয়েটিকে বিক্রি করে দেওয়া হয়। বিক্রির কথা শুনে আমরা বিষয়টি স্থানীয় থানায় ও বিডিওর কাছে জানাই। মহিষাদল ব্লকের বিডিও যোগেশ চন্দ্র মন্ডল জানান, বিষয়টি ডোমেস্টিক ভায়োলেন্সের। নিজের বাবাই তার মেয়েকে এভাবে বিপাকে খেলছে যা সমাজের কাছে বিপদজনক। চক্রটি সক্রিয় হয়েছে তাদের নামের লিস্ট প্রশাসনের কাছে রয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তা এখন প্রকাশ করা হচ্ছে না, এবং মেয়েটির নিরাপত্তার জন্যে তাকে এখন কোনো একটি হোমে রাখা হবে। অভিযুক্ত পলাতক, পুলিশ ব্যবস্থা নিচ্ছে। একদিকে দেশ জুড়ে বেটি পড়াও বেটি বাঁচাও, অন্যদিকে রাজ্যজুড়ে কন্যাশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে শিশুকন্যা ও নাবালিকাদের সুরক্ষা দিতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার সচেষ্ট। সেখানে ঋণের দায়ে নিজের নাবালিকা কন্যাকে বিক্রি আড়লন ফেলেছে।

    Saikat Shee

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Mahishadal, Midnapore, Midnapore news

    পরবর্তী খবর