Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: রেণু খাতুনের ঘটনায় আদালতে চার্জশিট জমা দিল কেতুগ্রাম থানার পুলিশ

Purba Bardhaman: রেণু খাতুনের ঘটনায় আদালতে চার্জশিট জমা দিল কেতুগ্রাম থানার পুলিশ

নার্সের চাকরি করতে চাওয়ায় ভাড়াটে দুস্কৃতীদের নিয়ে রেণু খাতুনের ডান হাত কেটে নেয় তাঁর স্বামী। ঘটনায় আদালতে চার্জশিট জমা দিল পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রাম থানার পুলিশ।

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: নার্সের চাকরি করতে চাওয়ায় ভাড়াটে দুস্কৃতীদের নিয়ে রেণু খাতুনের ডান হাত কেটে নেয় তাঁর স্বামী। ঘটনায় আদালতে চার্জশিট জমা দিল পূর্ব বর্ধমানের কেতুগ্রাম থানার পুলিশ। শুরু হল অভিযুক্তদের বিচার প্রক্রিয়া।এখন অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনি পথে উপযুক্ত সাজা দিতে রেণু খাতুন শুরু করেছেন লড়াই।রেণু খাতুনের হাত কেটে নেওয়া সংক্রান্ত মামলার চার্জশিট কেতুগ্রাম থানার তদন্তকারী অফিসার গত ৩০ জুন কাটোয়া মহকুমা আদালতে জমা দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আদালতের আইনজীবী ধীরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, চার্জশিটে অভিযুক্ত হিসাবে রেণু খাতুনের স্বামী সহ ছ জনের নাম রয়েছে। অভিযুক্ত সকলের বিরুদ্ধে পুলিশ ৪৯৮(এ) ,৩২৬,৩০৭ ,১১৪,১২০(বি) ও ৩৪ ধারা আরোপ করেছে।

    কাচি দিয়ে ডান হাত চেপে ধরে, কাটারির কোপ বাসিয়ে দিয়ে অভিযুক্তরা রেণু খাতুনের ডান হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে বলে চার্জশিটে উল্লেখ করা আছে । পুলিশ তদন্ত চালিয়ে ওই কাঁচি ও কাটারি ছাড়াও ঘটনার দিন অভিযুক্তদের ব্যবহার করা স্কুটার ছাড়াও যে চারচাকা গাড়িটি পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে তাও চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে পুলিশের তরফে।

    আরও পড়ুনঃ হাসপাতালের আগাছা পরিষ্কার করতে উদ্যোগী পুরসভা

    আদালতে পেশ করা চার্জশিটে পুলিশের দাবি, অভিযুক্তদের কয়েকজন ঘটনার দিন স্কুটারে চেপে রেণু খাতুনের শ্বশুর বাড়িতে এসেছিল। তার পর তাঁরা এমন নৃশংস ঘটনা ঘটিয়ে ওই চারচাকা গাড়িতে করেই পালিয়ে যায়। অভিযুক্তদের এইভাবে যাতায়াত যাঁরা যাঁরা দেখেছে তাঁদের বয়ানও পুলিশ নিয়েছে। বুধবার রেণু খাতুনের শ্বশুর ও শাশুড়ির জামিন মঞ্জুর করেছেন বিচারক।

    আরও পড়ুনঃ বিক্ষোভকারীদের সামলাতে নতুন ব্যারিকেড আনল বর্ধমান জেলা পুলিশ 

    প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বাংলায় এখনও চর্চার কেন্দ্রে রেণু খাতুন। সরকারি চাকরি পাওয়ায় তাঁর স্বামী ডান হাতের কব্জি কেটে নিয়েছিলেন। তবে শুধু মনের জোরে ঘুরে দাঁড়াচ্ছেন তিনি । দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করছেন রেনু। আগামী দিনে হয়তো কিছুটা প্রতিবন্ধকতার মধ্যেই কাটাতে হবে তাঁকে। কিন্তু তবুও হারতে রাজি নন রেণু।

    Malobika Biswas
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Purba bardhaman, Renu Khatun

    পরবর্তী খবর