Home /News /purba-bardhaman /
Purba Bardhaman: অবিশ্বাস্য! অস্ত্রোপচারে রোগীর পেট থেকে বেরোল ২৫০ টি লোহার পেরেক!

Purba Bardhaman: অবিশ্বাস্য! অস্ত্রোপচারে রোগীর পেট থেকে বেরোল ২৫০ টি লোহার পেরেক!

title=

অবাক কান্ড, মানুষের পেটের ভিতর থেকে বেরোলো ২৫০ টি লোহার পেরেক, ১৬টি কয়েন। অপারেশন শেষে খোদ চিকিৎসকদেরই চোখ কপালে ওঠার জোগাড়।

  • Share this:

    পূর্ব বর্ধমান: অবাক কান্ড, মানুষের পেটের ভিতর থেকে বেরোলো ২৫০ টি লোহার পেরেক, ১৬টি কয়েন। অপারেশন শেষে খোদ চিকিৎসকদেরই চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। এমন বিরল ও জটিল অস্ত্রোপচারের পর ও সুস্থ আছেন রোগী বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এই আজব ঘটনার সাক্ষী বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা। মঙ্গলকোটের কৃষ্ণবাটি গ্রামের বাসিন্দা শেখ মইনুদ্দিন (৩৮)। বিগত কয়েক বছর ধরে মানসিক রোগে ভুগছিলেন তিনি। পরিবারের লোকেরা বর্ধমান হাসপাতালের মানসিক বিভাগে নিয়মিত চিকিৎসাও করাতেন। গত শনিবার সকাল থেকে কোনও কিছুই খাওয়া দাওয়া করছিলেন না মইনুদ্দিন। পেটে ব্যথা অনুভব করায় মঙ্গলবার বর্ধমান শহর সংলগ্ন একটি বেসরকারি নার্সিংহোমের এক চিকিৎসককের কাছে মইনুদ্দিনকে নিয়ে আসা হয়। চিকিৎসকরা এক্স রে করে তাকে ভর্তি করেন। নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ জানায় এক লাখ টাকারও বেশী খরচ হবে অপারেশন করতে।

    কিন্তু অত টাকা দেওয়ার সামর্থ তাদের না থাকায় বুধবার সকালে তাকে বর্ধমান হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে দেখে অপারেশন করার সিদ্ধান্ত নেন। বুধবার রাতে সার্জারী করে তার পেট থেকে ২৫০ টি পেরেক, ১৬ টি কয়েন ও বেশ কিছু পাথর কুচি বের হয়। এতো কিছু কখন খেয়েছে পরিবারের লোকেরা কিছুই জানতেই পারেননি বলেই জানান।

    আরও পড়ুনঃ পূর্বস্থলীতে চলছে স্কুলড্রেস তৈরির কাজ, কাজ করছেন ১০০ জন মহিলা

    মইনুদ্দিনের দাদা মসলিন উদ্দিন বলেন, এনারা চিকিৎসক নন, ভগবান। বর্ধমান হাসপাতালের চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ভাই মানসিক ভাবে অসুস্থ তাই এই কান্ড ঘটেছে বলেই জানান তিনি। এ বিষয়ে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার তাপস ঘোষ বলেন, ‘মইনুদ্দিন কে ওর পরিবারের লোকেরা নিয়ে আসার পরে আমাদের চিকিৎসকেরা তাকে পরীক্ষা করে দেখে সন্দেহ হয়।

    আরও পড়ুনঃ নিজের বৌভাতে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করে রক্ত দিলেন স্বয়ং পাত্র

    আগে একটি নার্সিংহোমেও চিকিৎসা করিয়েছেন ওর পরিবারের লোকেরা। অপারেশন করার পরে এভাবে কয়েকশো লোহার পেরেক ও কয়েন উদ্ধারে সকলেই অবাক হন। হাসপাতালের ইতিহাসে সম্ভবত এমন ঘটনা প্রথম। তবে সফল অস্ত্রপ্রচারের পরে রোগী এখন সুস্থ আছেন।’

    Malobika Biswas
    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর