ভোটের মুখে তামিলনাড়ুতে ঝড়, রাজনীতি ছাড়ছেন 'চিন্নাম্মা' শশীকলা

এককালে এআইএডিএমকে প্রধান পদে থাকা এবং পরবর্তীকালে দল থেকে ছাঁটাই হওয়া শশীকলা কয়েকদিন আগেই জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

এককালে এআইএডিএমকে প্রধান পদে থাকা এবং পরবর্তীকালে দল থেকে ছাঁটাই হওয়া শশীকলা কয়েকদিন আগেই জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

  • Share this:
    #চেন্নাই : শেষমেশ রাজনীতি থেকে অবসরের কথা ঘোষণা করলেন ভিকে শশীকলা (Sasikala)। একুশের ভোটের মুখে তাঁর এই সিদ্ধান্ত তুমুল ঝড় তুলেছে তামিল রাজনীতিতে। প্রসঙ্গত তামিলনাড়ুর প্রয়াত মুখ্যমন্ত্রী তথা এআইএডিএমকে নেত্রী জয়ললিতার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী শশীকলাকে ঘিরে দলের মধ্যে বেশ কিছু অসন্তোষের সৃষ্টি হয়। একুশের ভোটের আগে সম্প্রতি তুঙ্গে পৌঁছয় সেই জল্পনা। এসবের মাঝেই হঠাৎই রাজনীতি থেকে অব্যহতি নেওয়ার সিদ্ধান্ত শশীকলার। এককালে এআইএডিএমকে (AIADMK) প্রধান পদে থাকা এবং পরবর্তীকালে দল থেকে ছাঁটাই হওয়া শশীকলা কয়েকদিন আগেই জেল থেকে মুক্তি পেয়েছেন। তারপর থেকেই গুঞ্জন চড়ছিল শশীকলাকে নিয়ে। তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে নতুন কী পট পরিবর্তন হয় সেদিকেই তাকিয়ে ছিল রাজনৈতিক মহল। সেইসব গুঞ্জনের মাঝে শশীকলার রাজনীতি থেকে অবসরের খবর একবাক্যে স্তম্ভিত করে দিয়েছে সকলকে। নিজের ইস্তফাপত্রে শশীকলা লিখেছেন,'আমি কখনওই ক্ষমতার পিছনে দৌড়াইনি। পদের জন্যও দৌড়ইনি এমনকি যখন জয়া (Jayalalitha) জীবিত ছিলেন, তখনও না। ওঁর মৃত্যুর পরও তা করব না। আমি রাজনীতি ছাড়ছি। আমি প্রার্থনা করব ওঁর (জয়ললিতার) পার্টি জিতবে। ওঁর লেগাসি এগিয়ে যাবে।'এআইএডিএমকে সমর্থকদের ও সদস্যদের প্রতি শশীকলা বক্তব্য রেখে বলেন6, 'আমি চাইব সমস্ত এআইএডিএমকে একসঙ্গে লড়াই করুক। আর ডিএমকেকে হারাক।' প্রসঙ্গত ৬৬ বছরের শশীকলা দুর্নীতির দায়ে ৪ বছরের কারাদণ্ডে ছিলেন। সম্প্রতি জেল থেকে মুক্তির পর তিনি তাঁর পুরনো পদ এআইএডিএমকের প্রধান হিসাবে ক্ষমতায় আসতে চান। শুরু হয় আইনি লড়াই। এরমাঝেই রাজনীতি থেকে অবসরের ঘোষণা করেন শশীকলা।
    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: