৫৬ নয়, এখানে ১০০ রকম পদে ভোগ দেওয়া হয় জগন্নাথকে

আসলে ছাপান্ন ভোগ। কিন্তু নাকি শতাধিক। মায়াপুরে রাজাপুর মন্দির থেকে ইসকনের চন্দ্রোদয় মন্দিরে মাসির বাড়িতে গিয়েছেন জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রা। বছরে একবারই এই যাতায়াত।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 19, 2018 05:11 PM IST
৫৬ নয়, এখানে ১০০ রকম পদে ভোগ দেওয়া হয় জগন্নাথকে
থরে থরে সাজানো জগন্নাথের পছন্দের পদ ৷ নিজস্ব চিত্র ৷
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 19, 2018 05:11 PM IST

#মায়াপুর: আসলে ছাপান্ন ভোগ। কিন্তু নাকি শতাধিক। মায়াপুরে রাজাপুর মন্দির থেকে ইসকনের চন্দ্রোদয় মন্দিরে মাসির বাড়িতে গিয়েছেন জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রা। বছরে একবারই এই যাতায়াত। তাই জগতের নাথের পছন্দের পদ দিয়েই ভোগের আয়োজন। মেনুতে ডাল-ভাতের সঙ্গে রয়েছে কেক-মুড়ি-আইসক্রিমও।

আরও পড়ুন:কেন মাসির বাড়িতে পোড়া পিঠে দেওয়া হয় জগন্নাথকে?

মাসির বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছেন। বছরে একবারই যাওয়া হয়। তাও মাত্র সাতদিনের জন্য। জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রার আপ্যায়নে তাই কোনও ত্রুটি রাখা হচ্ছে না। প্রতিদিনই রান্না হচ্ছে জগন্নাথদেবের প্রিয় পদ। রথের দিন মায়াপুর রাজাপুর মন্দির থেকে ৫ কিলোমিটার পেরিয়ে ইসকনের চন্দ্রোদয় মন্দিরে মাসির বাড়ি যান জগন্নাথ। উলটো রথেই আবার রাজাপুরে ফিরেন জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রা। এক’টা দিন চলে ইচ্ছেমত খানাপিনা। দিনে সাতবার ভোগ দেয় মন্দির কর্তৃপক্ষ। তিনি জগতের নাথ। তাই দেশিয় খাবারের সঙ্গে বিদেশি খাবারও সমান পছন্দ ভগবানের।

মায়াপুরের রথ ৷ নিজস্ব চিত্র ৷ মায়াপুরের রথ ৷ নিজস্ব চিত্র ৷

আরও পড়ুন:রথ স্পেশাল: জগন্নাথকে দেওয়া হয় ৫৬ ভোগ, জানেন এই ভোগে কী কী থাকে?

Loading...

মাসির বাড়িতে জগন্নাথের ভোগ

-----------------------------------------

- ৫৬ ভোগ দেওয়ার রীতি

- জগন্নাথদেবের পছন্দসই ১০০-র বেশি পদ রান্না

- ভোগে থাকে ভাত, বিভিন্নরকম ডাল, একধরনের মিষ্টি ডাল

- দই বড়া, মালপোয়া, পিঠে, পাটিসাপটা

- এমনকী কেক, মুড়ি, আইসক্রিমও

প্রতিদিন প্রায় ৮০০ থেকে ১০০০ হাজার জন এখান থেকে প্রসাদ নেন। সেইমতই আয়োজন করে মন্দির কর্তৃপক্ষ।

First published: 04:05:08 PM Jul 17, 2018
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर