• Home
  • »
  • News
  • »
  • off-beat
  • »
  • নতুন স্মার্টফোনে প্রি-ইনস্টল থাকবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ, রেজিস্ট্রেশন না করলে চলবে না ফোন: সূত্র

নতুন স্মার্টফোনে প্রি-ইনস্টল থাকবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ, রেজিস্ট্রেশন না করলে চলবে না ফোন: সূত্র

এই রিপোর্ট থেকে এও জানা গিয়েছে যে এই অ্যাপ শুধু ভারতেই নয়, গোটা বিশ্বের মানুষই ব্যবহার করছেন ভারতীয় Covid-19 ট্রেসিং অ্যাপ আরোগ্য সেতু।

এই রিপোর্ট থেকে এও জানা গিয়েছে যে এই অ্যাপ শুধু ভারতেই নয়, গোটা বিশ্বের মানুষই ব্যবহার করছেন ভারতীয় Covid-19 ট্রেসিং অ্যাপ আরোগ্য সেতু।

ইতিমধ্যেই ভারতে ৭ কোটির থেকে বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে এই অ্যাপ

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে বাঁচতেই ‘‌Aarogya Setu’‌ অ্যাপ এনেছে কেন্দ্র। এই অ্যাপের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ বুঝতে পারবেন তাঁর করোনা আক্রান্ত হওয়ার কতটা আশঙ্কা রয়েছে। এবার নতুন স্মার্টফোন আগে থেকে প্রি-ইনস্টল করার থাকে এই অ্যাপ, আর ফোন ব্যভারের আগে এই অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করা বাধ্যতামূলক।

    কেন্দ্রের সূত্র অনুযায়ী, লকডাউন শেষ হওয়ার পর যে স্মার্টফোনগুল বিক্রি হবে সেইগুলিতে আগেই থেকে প্রি-ইনস্টল করা থাবে আরোগ্য সেতু অ্যাপ। সঙ্গে ফোন কোম্পানিগুলিকে এটাও বলে হয়েছে যে শুধু অ্যাপ প্রি-ইনস্টল থাকলে হবে না, তাদের এটাও সুনিশ্চিত করতে হবে যে ফোন ব্যবহার করার আগে গ্রাহকরা জেন সেই অ্যাপে রেজিস্ট্রেশন করে।

    এই সিদ্ধান্তকে লাগু করার জন্য ভারত সরকার একটি নোডল এজেন্সি নিয়োগের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই এজেন্সি স্মার্টফোন কোম্পানিগুলির সম্পর্কে থাকবে আর দেখবে যাতে প্রত্যেকটি নতুন ডিভাইসে এই অ্যাপ ইনস্টল করা থাকে আর সেটা স্কিপ করার জেন কোনও অপশন না থাকে। এর ফলে আগামী দিনে ভারতে যত ফোন ভিক্রি হবে প্রত্যেক ফোন অনান্য inbuilt অ্যাপের মতো আরোগ্য অ্যাপও থাকবে।

    এর আগে ধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি করোনা মোকাবিলা করার জন্য তিনি ৭টি মন্ত্রও দিয়েছিলেন। ৭ মন্ত্রের মধ্যে একটি ছিল Aarogya Setu অ্যাপ। তিনি বলেছিলেন করোনার সংক্রমণ ছড়ানো বন্ধ করতে অবশ্যই ডাউনলোড করুন আরোগ্য সেতু মোবাইল অ্যাপ ৷ অন্যদেরও এই অ্যাপ ডাউনলোড করার জন্য অনুপ্রাণিত করুন ৷ ইতিমধ্যেই ভারতে ৭ কোটির থেকে বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে এই অ্যাপ।

    জেনে নিন কী এই আরোগ্য সেতু অ্যাপ আর কীভাবে কাজ করে এই অ্যাপ

    Android এবং iOS, দুটোতেই ব্যবহার করা যাবে Aarogya Setu অ্যাপটি। এর অন্য জন্য আপনার ফোন ব্লুটুথ আর ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই হবে। প্রথমে গুগল প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে অ্যাপ ইনস্টল করে নিইয়ে নিজের ভাষা পছন্দ করে নিন। দেশের ১১টি ভাষায় এই অ্যাপ পাওয়া যাবে। এর পর রেজিষ্টার অপশনে ক্লিক করুন। এই অ্যাপটি আপনার ফোনের ব্লুটুথ আর ইন্টারনেট ব্যবহারের অনুমতি চাইবে, সেটা হ্যাঁ করে দিন। এরপর আপনাকে নিজের মোবাইল নম্বর দিতে হবে। এবার আপনার ফোনে একটি OTP আসবে, সেটা ডিয়ে আপনাকে লগইন করতে হবে।এরপর আপনাকে কিছু প্রশ্নের সঠিক উত্তর দিতে হবে, তার উপর ভিত্তি করে আপনাকে জানিয়ে দেবে যে আপনার ভাইরাসের সঙ্ক্রমণের ঝুঁকি কতটা কম বা বেশি। সবুজ রঙ হলে ঝুঁকি কম ও হলুদ রঙ হলে ঝুঁকি বেশি।

    এই অ্যাপ সহজে নিজের বৃত্তের মধ্যে থাকা অন্য স্মার্টফোনগুলি, যেগুলিতে আরোগ্য সেতু ইনস্টল করা আছে, সেগুলি চিহ্নিত করতে পারবে। তারপর অ্যাপ হিসাব করে দেখবে আপনার আশেপাশে থাকা লোকেদের থেকে আপনার করোনা হওয়ার সম্ভাবনা কতটা রয়েছে। ব্লুটুথ ব্যবহারের মাধ্যমে জানা যাবে কোনও করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তি আপনার থেকে ঠিক কত দূরে আছে।

    এই অ্যাপটি ডিজাইন করা হয়েছে ব্যাবহারকারীর নিরাপত্তার কথা ভেবেই। অ্যাপে সংগৃহীত তথ্য এনক্রিপটেড থাকবে স্টেট অফ দি আর্ট টেকনোলজির মাধ্যমে। কোনও চিকিৎসার প্রয়োজন হওয়ার আগে পর্যন্ত এটি নিরাপদই থাকছে।

    ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনের ব্লুটুথ/জিপিএস (Bluetooth/ GPS) এর রেঞ্জে অন্যান্য ডিভাইসের সঙ্গে অ্যাপও এক লহমায় ডিটেক্ট করে নিতে পারে আরোগ্য সেতু। আপনার পরিচিত কেউ বা আপনার সঙ্গে খুব সম্প্রতিই যোগাযোগ হয়েছে এমন কেউ COVID-19 এ আক্রান্ত হলে এই অ্যাপ আপনাকে সজাগ করে দেবে। পাশাপাশিই আপনার এলাকায় কারও যদি করোনার উপস্থিতি দেখা যায়, তাহলে সে খবরও আপনাকে দিয়ে দিতে সক্ষম এই আরোগ্য সেতু।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: