Darjeeling Politics| Anit Thapa| ৯ সেপ্টেম্বর অনীতের মাস্টারস্ট্রোক, উত্তেজনায় ফুটছে পাহাড়

পাহাড়ে উত্তাপ বাড়াচ্ছেন অনীত থাপা।

Darjeeling Politics| Anit Thapa| ক্রমেই সরগরম হচ্ছে শৈলশহরের রাজনীতি, বাড়ছে উত্তাপ!

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: আগামী ৯ সেপ্টেম্বর পাহাড়ে অভিষেক হচ্ছে অনীত থাপার নয়া দলের। দার্জিলিংয়ে ওইদিন পাহাড়ের বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্টজনেরা উপস্থিত থাকবেন বলে দাবি করেছেন তিনি। নতুনভাবে গড়তে চান পাহাড়কে। অনীতের মুখপাত্র কেশবরাজ পোখরেল জানান, ৯ সেপ্টেম্বরই দলের নাম এবং পতাকার রঙ সামনে আনা হবে। পাহাড়বাসীর জনসমর্থন পাবেন বলেই আশাবাদী তিনি।

অনীতের নতুন দল গড়াকে তেমন গুরুত্ব দিতে নারাজ বিমল গুরুং। উলটে খোঁচা দিয়েছেন। বিমল বলেন, এখন আর পাহাড়ে মোর্চার কোনও বিভাজন থাকল না। একটিই দল থাকল। যা বিনয় তামাং দল ছাড়বার পরই পরিষ্কার হয়ে যায়।"

আরও পড়ুন-Dooars tour| Vistadome train| প্রথম দিনেই হিট ডুয়ার্স স্পেশাল ভিস্টাডোম! খরচ ৯৯৫ টাকা! পুজোয় যাবেন নাকি?

তাহলে কেন ওইদিনই দল ছাড়লেন না অনীত? কেন মোর্চার ফ্ল্যাগ ব্যবহার করে আসছেন? দু'দিকে পা দিয়ে চলে আদপে পাহাড়বাসীর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। ওর দল সাফল্য পাবে কি না, তা আগামী দিনে স্পষ্ট হবে। তবে পাহাড়ে এখন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা একটিই রইলো। যে দলীয় কার্যালয়গুলো অনীত থাপাদের দখলে ছিল, তাও ফিরিয়ে নেওয়া হবে বলে গুরুং জানিয়েছেন। অনীতের নতুন দলকে স্বাগত জানিয়েছেন বিনয় তামাংও।

আজ কালিম্পংয়ে তিনি বলেন, শুভেচ্ছা রইলো। তবে দল যেন দুর্নীতিমুক্ত হয় বলে খোঁচাও দেন। গুরুংয়ের দলে ফিরছেন না তিনি তা আজ স্পষ্ট করেছেন বিনয় তামাং। পাহাড়, তরাই ও সমতলের বাসিন্দাদের জন্যে কাজ করতে চান। আর তাই নতুন রাজনৈতিক মঞ্চ গড়ছেন। আলাদা মঞ্চ হলেও গুরুংয়ের সঙ্গেই যে চলবেন তা স্পষ্ট করেছেন। তাঁর দাবী, দু'জনের আদর্শ ও লক্ষ্য একই। তাই আলাদা প্ল্যাটফর্মে থাকলেও একই ইস্যুতে লড়বো।অন্য দিকে দল ছাড়ার পথে জিএনএলএফের দার্জিলিং শাখার সভাপতি অজয় এডওয়ার্ডস।

বিধানসভা নির্বাচনে টিকিট নেওয়া নিয়েই মন ঘিসিংয়ের সঙ্গে তাঁর দূরত্ব বাড়ছিল। এইমূহূর্তে বাইরে রয়েছেন। পাহাড়ে ফিরেই নিজের অবস্থান স্পষ্ট করবেন তিনি। তার আগেই আজ সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের নিয়ে নতুন হোয়াটস এপ গ্রুপ খুলেছেন তিনি। সেখানেই জানিয়েছেন, ২-৩ দিনের মধ্যে সব জল্পনার জবাব দেবেন। আলাদা গ্রুপ খোলায় আজ তাঁকে জিএনএলএফের মিডিয়া গ্রুপ থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, আলাদা মঞ্চ গড়লেও অজয় এডওয়ার্ডের সমর্থন যাবে অনীতের নতুন দলের দিকেই। সবমিলিয়ে ক্রমেই উত্তাপ বাড়ছে শৈলশহরের রাজনৈতিক আবহাওয়ার।

Published by:Arka Deb
First published: