Home /News /north-bengal /
Kurseong: কার্শিয়ং-এ ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে পাহাড়ি বাঁকে চলন্ত গাড়ি থেকে লাফ মহিলার

Kurseong: কার্শিয়ং-এ ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে পাহাড়ি বাঁকে চলন্ত গাড়ি থেকে লাফ মহিলার

অভিযুক্তের থেকে উদ্ধার মহিলার মোবাইল ফোন, পার্টস, কার্শিয়ং থানায় বিক্ষোভ আশাকর্মীদের! 

  • Share this:

#কার্শিয়ং: ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচতে পাহাড়ি বাঁকে চলন্ত গাড়ি থেকে লাফ মহিলার! নক্কারজনক ঘটনাটি গটেছে কার্শিয়ংয়ের মকাইবাড়ি রোডে! অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে কার্শিয়ং থানার পুলিশ।

নির্যাতিতার স্বামী ভিমপাল থাপার অভিযোগ, গতকাল কাজ সেরে কার্শিয়ং বাজারের একটি এটিএম থেকে টাকা তুলে বাড়ি ফেরার পথে অভিযুক্ত ব্যক্তি বাড়িতে পৌঁছে দেবে বলে তাঁর স্ত্রীকে গাড়িতে তোলে। কিন্তু বাড়ির দিকে নয়, উলটো পথে চলতে শুরু করে গাড়ি। এতেই নির্জাতিতার সন্দেহ হিয়। পাংখাবাড়ি রোড ধরে ছুটতে শুরু করে গাড়িটি। কিছুটা দূর যাওয়ার পর গাড়ির মধ্যেই মহিলার সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়, গাড়ির চালক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় বলে অভিযোগ নির্যাতিতার। বাঁচতে পাহাড়ি বাঁকে গাড়ির গতি কিছুটা কমতেই গাড়ির দরজা খুলে লাফ দেন মহিলা।

আরও পড়ুন: ‘পুষ্পা’য় যা হয় বাস্তবে তা হল না, বন দফতর উদ্ধার করল লক্ষ লক্ষ টাকার ‘এই’ মূল্যবান কাঠ

মহিলা পেশায় আশা কর্মী,  রাস্তাতেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়েছিলেন মহিলা। স্থানীয়রা খবর দেয় থানায়। শুক্রবার বিকেলে খবর পেয়ে মকাইবাড়ি রোডে এক আশাকর্মীকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। নিয়ে আসা হয় কার্শিয়ং হাসপাতালে। পরে আশঙ্কাজনক হওয়ায় নামানো হয় আহিলিগুড়িতে। বর্তমানে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালের সিসিইউতে চিকিৎসা চলছে তাঁর। দার্জিলিংয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মনোরঞ্জন ঘোষ জানান, ১০০টি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, তাকে জেরা চলছে। তার কাছ থেকেই নির্যাতিতার মোবাইল ফোন এবং পার্স উদ্ধার করা হয়েছে। ধৃত ব্যক্তি ওই মহিলার আত্মীয় বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন: পর্যটকদের আর ছুটে যেতে হবে না অন্য কোথাও, পয়লা বৈশাখে নতুন অ্যাডভেঞ্চার শুরু

রবিবার ধৃতকে আদালতে  তোলা হবে। এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার কার্শিয়ং থানায় বিক্ষোভ দেখায় আশাকর্মীদের সংগঠন। কার্শিয়ং স্টেশন থেকে মিছিল করে থানায় বিক্ষোভ দেখান তারা। তাঁদের দাবি, অভিযুক্তকে কড়া শাস্তি দিতে হবে। পশ্চিমবঙ্গ আশাকর্মী ইউনিয়নের সহ-সভাপতি জয় লোধ দ্রুত পুলিশি পদক্ষেপকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।  পাশাপাশি ধৃত যাতে কোনও  অবস্থাতেই ছাড়া না পায় ও ধৃতের উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানান। এই ধরনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কার্শিয়ংয়ে। নির্যাতিতার পরিবারও অভিযুক্তর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Kurseong

পরবর্তী খবর