Home /News /north-bengal /
Berhampore Murder Update: একই পাড়ায় বড় হওয়া, প্রেম! প্রেমিকার প্রত্যাখ্যানেই চরম পথ নিল সুশান্ত?

Berhampore Murder Update: একই পাড়ায় বড় হওয়া, প্রেম! প্রেমিকার প্রত্যাখ্যানেই চরম পথ নিল সুশান্ত?

মালদহের ইংরেজবাজারে এই পাড়াতেই মুখোমুখি বাড়িতে থাকত সুশান্ত ও তার প্রেমিকা৷

মালদহের ইংরেজবাজারে এই পাড়াতেই মুখোমুখি বাড়িতে থাকত সুশান্ত ও তার প্রেমিকা৷

মালদহের ইংরেজবাজারে একই পাড়ায় বড় হয়েছে নিহত তরুণী এবং সুশান্তর বাড়ি৷ ছোটবেলা থেকেই নিঃসন্তান পিসির বাড়িতে মানুষ সুশান্ত চৌধুরী৷

  • Share this:

#মালদহ: ছোট থেকেই আলাপ ছিল দু' জনের৷ টিউশন পড়তে পড়তেই মেলামেশা৷ সেই সূত্রেই ঘনিষ্ঠতা এবং প্রেম৷ এত বছরের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়া মেনে নিতে না পেরেই কি প্রেমিকাকে কুপিয়ে খুন করল কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করা সুশান্ত?

মালদহের ইংরেজবাজারে একই পাড়ায় বড় হয়েছে নিহত তরুণী এবং সুশান্তর বাড়ি৷ ছোটবেলা থেকেই নিঃসন্তান পিসির বাড়িতে মানুষ সুশান্ত চৌধুরী৷ শুধু একই পাড়ায় থাকায় নয়, অষ্টম শ্রেণি থেকে ওই তরুণীর বাড়িতে নিয়মিত টিউশনি পড়তে যেত সুশান্ত।

আরও পড়ুন: প্রেমিকা কি মারা গিয়েছে? ধরা পড়েই পুলিশকে প্রশ্ন বহরমপুর কাণ্ডে ধৃত সুশান্তর

সুশান্তর পরিবার এবং স্থানীয় বাসিন্দারাও জানাচ্ছেন, ছোটবেলা থেকেই ওই তরুণীর সঙ্গে মেলামেশা ছিল সুশান্তর৷ সুশান্তর পিসিরও দাবি, দু' জনের সম্পর্কের কথা এলাকার প্রায় সবাই জানতেন৷ কিন্তু গত কয়েক বছরে সুশান্তর পরিবারের সঙ্গে তাঁর প্রেমিকার পরিবারের মনোমালিন্য তৈরি হয়৷ এর পর থেকেই ধীরে ধীরে সম্পর্ক ভেঙে বেরিয়ে যেতে চান ওই তরুণী৷ সুশান্তর পরিবারের সদস্যদের দাবি, প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্কে ফাটল মেনে নিতে পারেনি সুশান্ত৷ তার স্বভাবেও পরিবর্তন এসেছিল৷ অধিকাংশ সময়ই একা থাকত সে, বাড়ির কেউ ফোন করলেও ধরত না৷ এমন কি, অল্পতেই মেজাজ হারাতো সুশান্ত৷

আরও পড়ুন: রাস্তায় পড়ে প্রেমিকার দেহ, খুনের পর দাঁড়িয়ে প্রেমিক! দেখুন বহরমপুরের ঘটনার ভিডিও

ইংরেজবাজার পুরসভার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রসেনজিৎ ঘোষও দুই পরিবারের মধ্যে তৈরি হওয়া সমস্যার মীমাংসা করার চেষ্টা করেছিলেন বলে জানিয়েছেন৷ দুর্গাপুজোর আগে মদ্যপ অবস্থায় সুশান্ত বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে তাঁদের বাড়িতে চড়াও হয় বলে অভিযোগ করে তরুণীর পরিবার৷ তবে সুশান্ত এবং ওই তরুণীর ভবিষ্যতের কথা ভেবে আলোচনার মাধ্যমেই বিষয়টি মিটিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন বলে দাবি করেছেন স্থানীয় কাউন্সিলর৷ সুশান্তর ল্যাপটপ থেকেও তরুণীর সমস্ত ছবি, নথি মুছে দেওয়া হয়৷ সতর্কও করা হয় সুশান্তকে৷

কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করত পটনা চলে গিয়েছিল সুশান্ত৷ আর তার প্রাক্তন প্রেমিকা থাকছিল বহরমপুরে৷ সুশান্ত যে বহরমপুরে এসেছে তা তার পরিবারের সদস্যরাও জানত না৷ প্রেমিকার উপরে প্রবল আক্রোশ থেকেই তার উপরে প্রাণঘাতী হামলা করে বসে মেধাবী ছাত্র সুশান্ত চৌধুরী৷

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Malda, Murder, Murshidabad

পরবর্তী খবর