Home /News /north-bengal /
Malda Crime: নাবালিকা স্কুলপড়ুয়াকে বাড়ির কাছেই বাগানে তুলে নিয়ে গেল দুষ্কৃতীরা, পরিণতি মর্মান্তিক

Malda Crime: নাবালিকা স্কুলপড়ুয়াকে বাড়ির কাছেই বাগানে তুলে নিয়ে গেল দুষ্কৃতীরা, পরিণতি মর্মান্তিক

Malda Crime

Malda Crime

Malda Crime: অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ওই ছাত্রীকে। ঘটনায় দুই প্রতিবেশী যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আরও দুই অভিযুক্ত।

  • Share this:

মালদহ : অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ চাঞ্চল্য মালদহে। চার যুবকের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ নিগৃহীতার পরিবারের। এই ঘটনা মালদহের বৈষ্ণবনগর থানার চরসুজাপুর এলাকার। অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় ওই ছাত্রীকে। ঘটনায় দুই প্রতিবেশী যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আরও দুই অভিযুক্ত।

বাড়িতে পুরুষ মানুষ না থাকার সুযোগে রাতের অন্ধকারে ছাত্রীকে জোর করে বাড়িতে ঢুকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। বাড়ির কাছেই বাগানে তুলে নিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। বৈষ্ণবনগর থানায় অভিযোগ দায়ের পরিবারের। আপাতত সরকারি হোমে রাখা হয়েছে ওই ছাত্রীকে। অভিযুক্তদের কড়া শাস্তির দাবি ছাত্রীর পরিবারের। অপহরণ ও পকসো আইনে মামলা রুজু পুলিশের।

আরও পড়ুন : শারীরিক অসুস্থতা নিয়েই হাসপাতাল থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিলেন অন্তঃসত্ত্বা

ছাত্রীর মায়ের দাবি, কাজ উপলক্ষে রাতে বাড়ির বাইরে গিয়েছিলেন তিনি। ঘরে এসে মেয়েকে না পেয়ে আত্মীয়দের নিয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। এর পরে অসুস্থ অবস্থায় মেয়েকে ফিরে আসতে দেখেন। বাড়িতে ফিরে অচৈতন্য হয়ে পড়ে ওই ছাত্রী। ঘটনা নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছে পরিবার।

আরও পড়ুন : নস্টালজিয়া উস্কে ফিরে আসছে হারিয়ে যাওয়া মাটির জালা ও কুঁজো

আরও পড়ুন : মহুলে বুঁদ জঙ্গলমহলের আদিবাসী প্রধান গ্রামগুলি

অভিযোগ, বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ওই ছাত্রীকে গণ ধর্ষণের চেষ্টা হয়। অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি । নাবালিকা ওই ছাত্রীর প্রয়োজনীয় শারীরিক পরীক্ষা করানো হয়েছে। এই ঘটনায় সেলিম সেখ, ও সুজন রবিদাস নামে দুই অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করেছে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ। বৃহস্পতিবার ধৃত দু’জনকে মালদা জেলা আদালতে তুলবে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ। ওই ছাত্রীকে তরল কিছু খাইয়ে বেহুঁশ করা হয়ে থাকতে পারে বলেও প্রাথমিক তদন্তে অনুমান পুলিশের।

জানা গিয়েছে, স্থানীয় একটি মাধ্যমিক শিক্ষা কেন্দ্রে অষ্টম শ্রেণীর পড়ুয়া এই নাবালক ছাত্রী। বাড়িতে তিন বোন ও এক ভাই রয়েছে। বাবা ভিনরাজ্যে কাজ করেন। অত্যন্ত দরিদ্র পরিবার। অভিযুক্তরা পাশের গ্রামের বাসিন্দা। বাড়ির পিছনের দরজা দিয়ে ভিতরে ঢুকে ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনানুগ পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি তুলেছেন গ্রামবাসীরাও।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Gangrape, Malda

পরবর্তী খবর