• Home
  • »
  • News
  • »
  • north-bengal
  • »
  • দার্জিলিং-সমতলের আসন ধরে রাখবে বাম-কংগ্রেস জোট! ৬ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়িতে অধীর চৌধুরীর প্রকাশ্য জনসভা

দার্জিলিং-সমতলের আসন ধরে রাখবে বাম-কংগ্রেস জোট! ৬ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়িতে অধীর চৌধুরীর প্রকাশ্য জনসভা

৬ ফেব্রুয়ারি অধীর চৌধুরীর সভা। তারই পোস্টারে চেয়েছে শিলিগুড়ি।

৬ ফেব্রুয়ারি অধীর চৌধুরীর সভা। তারই পোস্টারে চেয়েছে শিলিগুড়ি।

৬ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি যাচ্ছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। প্রকাশ্য সভায় যোগ দেবেন তিনি। তার আগে শিলিগুড়িতে মহা মিছিল করবে কংগ্রেস।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: যাহা তৃণমূল, তাহাই বিজেপি। তৃণমূলের দূর্ণীতিগ্রস্থরা আজ বিজেপিতে গিয়ে গঙ্গা জলে স্নান করছেন, আর শুদ্ধ হয়ে উঠছেন। রাজ্যবাসী সবই দেখছে। তাই এবারে রাজ্যে বিকল্প সরকারের প্রয়োজন। আর তা করে দেখাবে বাম-কংগ্রেস জোটই। ইতিমধ্যেই অধিকাংশ আসনে রফা হয়ে গিয়েছে। বাকিটাও দ্রুত হবে। জেলায় জেলায় যৌথ সভা হচ্ছে। জোটের কথা সাধারন মানুষদের বোঝাতে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি শিলিগুড়ি যাচ্ছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। প্রকাশ্য সভায় যোগ দেবেন তিনি। তার আগে শিলিগুড়িতে মহা মিছিল করবে কংগ্রেস।

সোমবার শিলিগুড়িতে দলীয় কার্যালয়ে এ কথা জানান প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি তথা মাটিগাড়া-নকশালবাড়ির বিধায়ক বিধায়ক শঙ্কর মালাকার। তাঁর দাবী, মহাসংকটে রয়েছে রাজ্য এবং দেশ। কালা কৃষি বিল থেকে বেকারত্ব বাড়ছে। উলটে দূর্ণীতি বাড়ছে দেশজুড়ে। রাজ্যও তার বাইরে নয়। তাই শুদ্ধ হতে তৃণমূলের সাংসদ, বিধায়ক, পুর চেয়ারম্যানেরা যোগ দিচ্ছেন গেরুয়া শিবিরে। যা তৃণমূল ছিল, তাই আজ বিজেপি। রাজ্যের সাধারন মানুষ এঁদের আর চাইছেন না। বাম এবং কংগ্রেস জোটই একমাত্র বিকল্প।

সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেস নেতা শঙ্কর মালাকার। সাংবাদিক সম্মেলনে কংগ্রেস নেতা শঙ্কর মালাকার।

তিনি বলেন, দার্জিলিংয়ের তিন বিধানসভা নিয়ে দল পরে সিদ্ধান্ত নেবে। তবে সমতলের তিনটি এবং লাগোয়া ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি আসনে রফা হয়ে গিয়েছে। ২০১৬-র মতোই শিলিগুড়ি ও ডাবগ্রামে লড়বে বামেরা। মাটিগাড়া-নকশালবাড়ি ও ফাঁসিদেওয়ায় লড়বে কংগ্রেস। গতবারে তিনটি আসন পেয়েছিল জোট। এবারে চারে চার হবে বলে দাবী জোট নেতৃত্বের। সেই লক্ষ্যেই যৌথভাবে প্রচার শুরু করছে তারা। তারই অঙ্গ হিসেবে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি নকশালবাড়িতে কর্মসূচি রয়েছে জোটের। যেখানে উপস্থিত থাকবেন অশোক ভট্টাচার্য, জেলা সিপিএমের সম্পাদক জীবেশ সরকারেরা। কংগ্রেসের শঙ্কর মালাকার, সুবীন ভৌমিক, সুজয় ঘটকেরা।

নেতৃত্বের দাবি, আপাতত বুথস্তর থেকে দলের নেতা, কর্মীদের মন জয় করার লক্ষ্যে নামছে তারা। পরবর্তীতে বড় জনসভাও করা হবে। শিলিগুড়ি পুরসভা এবং মহকুমা পরিষদও দখল করতে পারেনি তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভার ফলাফলের বিচারে বিজেপি এগিয়ে থাকলেও বিধানসভায় জোটেরই জয় হবে বলে দাবী দলীয় কর্মী-সমর্থকদের।

Partha Sarkar

Published by:Shubhagata Dey
First published: