আর ৪ মাসের মধ্যেই অযোধ্যায় তৈরি হয়ে যাবে রামমন্দির: অমিত শাহ

আর ৪ মাসের মধ্যেই অযোধ্যায় তৈরি হয়ে যাবে রামমন্দির: অমিত শাহ

খুব তাড়াতাড়িই রামমন্দিরের কাজ শেষ হবে বলে আশ্বাস কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দীর্ঘদিনের অপেক্ষার অবসান হয়েছে শীর্ষ আদালতের রায়েই ৷ এখন শুধু পাকাপাকিভাবে রামমন্দির তৈরি হওয়াই বাকি ৷ সে অপেক্ষাও শীঘ্রই শেষ হবে বলে আশা জাগালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ৷ ঝাড়খণ্ডে প্রচারে এসে অমিত শাহের ঘোষণা, আর চার মাসের মধ্যেই তৈরি হয়ে যাবে আকাশছোঁয়া রামমন্দির ৷

এদিন ঝাড়খণ্ডের ভোটের প্রচারেও গেরুয়া শিবিরের হাতিয়ার রামমন্দির ৷ পাকুরে বিজেপির সমর্থনে প্রচারসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে অমিত শাহ বলেন, ‘শীর্ষ আদালত নিজেদের রায় জানিয়ে দিয়েছে ৷ আর চার মাসের মধ্যেই অযোধ্যায় সম্পূর্ণ হয়ে যাবে ভগবান রামের আকাশছোঁয়া মন্দির ৷’

অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতেই তৈরি হবে রামমন্দির। ৯ নভেম্বর অযোধ্যা মামলায় ঐতিহাসিক রায়ে পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ জানায় । মোট ২.৭৭ একরে তৈরি হবে মন্দির ৷ বিকল্প জায়গায় ৫ একর জমি পাবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড।  দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে লম্বা সময় ধরে চলা জমি মামলা। দীর্ঘ অপেক্ষার পর রায় দিতে গিয়ে কোনও জটিলতার রাস্তায় যাননি বিচারপতিরা। পাঁচ বিচারপতি একমত হয়েই রায় দিয়েছেন। আদালতের রায়ের মূল অংশ পড়ে শোনান প্রধান বিচারপতি। স্পষ্ট করেন, ধর্ম বা বিশ্বাসের ভিত্তিতে রায় দেওয়া হয়নি ৷ আইনি অধিকারের নিরিখেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ৷

অযোধ্যা জমি মামলার রায় বেরনোর পর সামনে আসে রামলালার মন্দিরের ডিজাইন ৷ বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রস্তাবিত মডেল অনুযায়ী ১২৮ ফুট উঁচু, প্রস্থে ১৪০ ফুট ও দৈর্ঘ্যে ২৭০ ফুট রামমন্দিরের কাঠামো ৷ দোতলা এই মন্দিরটিতে মোট ২১২টি স্তম্ভ থাকবে ৷ প্রত্যেক তলায় ১০৬টি করে পিলার ৷ মন্দিরে মোট ৫টি প্রবেশ পথ থাকবে ৷ উল্লেখ্য, ১৯৯০ সাল থেকেই মন্দির তৈরির জন্য বেলেপাথরে খোদাই ও স্তম্ভ তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছিল ৷ বিতর্কিত জমি নিয়ে মামলা চলাকালীনও থামেনি এই কাজ ৷

First published: 04:41:46 PM Dec 16, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर