কৃষকদের সমর্থন করায় কুশপুতুল পোড়ানো হল রিহানা, গ্রেটা থুনবার্গদের

কৃষকদের সমর্থন করায় কুশপুতুল পোড়ানো হল রিহানা, গ্রেটা থুনবার্গদের
কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে কথা বলায় এবার মার্কিন পপ তারকা রিহানা ও পরিবেশ আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বদের কুশপুতুল পোড়ালেন ইউনাইটেড হিন্দু ফ্রন্টের কর্মীরা।

কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে কথা বলায় এবার মার্কিন পপ তারকা রিহানা ও পরিবেশ আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বদের কুশপুতুল পোড়ালেন ইউনাইটেড হিন্দু ফ্রন্টের কর্মীরা।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: কৃষক আন্দোলনের সমর্থনে কথা বলায় এবার মার্কিন পপ তারকা রিহানা ও পরিবেশ আন্দোলনকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ সহ আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বদের কুশপুতুল পোড়ালেন ইউনাইটেড হিন্দু ফ্রন্টের কর্মীরা। ৫ ফেব্রুয়ারি সকালে দিল্লির রাজপথে আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বদের কুশপুতুল পোড়ান তাঁরা।

    কেন্দ্রের তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলন করছেন কৃষকরা। সেই আন্দোলনের সমর্থনেই টুইট করেন রিহানা। রিহানা কৃষক আন্দোলন নিয়ে টুইট করার পরেই পরিবেশ কর্মী গ্রেটা থুনবার্গও টুইট করেন এই আন্দোলনের সমর্থনে। এর পরেই একাধিক আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্ব এই বিষয়টি নিয়ে কথা বলা শুরু করেন। এই সমর্থনের বিরুদ্ধেই হিন্দুত্ববাদীরা আজ জড়ো হন দিল্লিতে এবং কুশপুতুল পোড়ান।

    রিহানা ও গ্রেটা ছাড়াও এদিন পর্ন তারকা মিয়া খালিফা, মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের ভাইঝি তথা আইনজীবী মীনা হ্যারিসের কুশপুতুল পোড়ানো হয়। ইউনাইটেজ হিন্দু ফ্রন্টের দাবি, দেশের অভ্যন্তরীন বিষয় নিয়ে কেন বিদেশিরা মাথা ঘামাচ্ছেন।


    দিন কয়েক আগে একই সুরে কথা বলেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রের তরফ থেকে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, বিষয়টি সম্পর্কে পুরোপুরি বোঝাপড়া তৈরি করে এবং সবকিছু যাচাই করেই মন্তব্য করা উচিত। কারণ সেলেব্রিটিদের দ্বারা চাঞ্চল্যকর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট ও হ্যাশট্যাগ দিয়ে উত্তেজনা তৈরি করা মোটেই দায়িত্বপূর্ণ ও কাজ নয়। এতে ভুল বার্তা ছড়াবে।

    রীতিমতো হুঁশিয়ারির ভঙ্গিতে বিদেশ মন্ত্রক থেকে বলা হয়েছে, এমন বিষয়ে মন্তব্য করার আগে আমরা সমস্তটা ভালো করে জেনে ও বুঝে নেওয়ার অনুরোধ করছি। কারণ সেলেব্রিটিরা এই ধরনের চাঞ্চল্যকর হ্যাশট্যাগ ও পোস্ট করলে সেটা ভুল বার্তা দেয় এবং যা মোটেই দায়িত্বপূর্ণ কাজ নয়।

    এখানেই শেষ নয়। বৃহস্পতিবার গ্রেটা থুনবার্গের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে দিল্লি পুলিশ। কৃষকদের সমর্থনে কথা বলায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র ও ধর্মের ভিত্তিতে শত্রুতা প্রচারের অভিযোগ আনে দিল্লি পুলিশ। গ্রেটা টুইট করেন, আমরা ভারতের কৃষকদের সংহতির সঙ্গে রয়েছি। বৃহস্পতিবার গ্রেটা একটি টুলকিট শেয়ার করেন যার দ্বারা আন্দোলনকারীদের সমর্থন করা যাবে বলে জানান গ্রেটা।

    তবে গ্রেটার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেও তিনি নিজের দাবি থেকে সরে যাননি। স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি এখনও কৃষকদের পাশেই রয়েছেন। তবে দেশের বিরোধী রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠছে, আন্তর্জাতিক ব্যক্তিত্বরা কৃষক আন্দোলন নিয়ে সরব হওয়ায় কি চাপে পড়েছে কেন্দ্র?

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published: