'জানতাম অজিত ও ফড়নবীশ গোপনে বৈঠক করছে', অবশেষে মুখ খুললেন শরদ পাওয়ার

'জানতাম অজিত ও ফড়নবীশ গোপনে বৈঠক করছে', অবশেষে মুখ খুললেন শরদ পাওয়ার

অর্থাৎ ভাইপো অজিত যে ফড়নবীশের সঙ্গে গোপনে বৈঠক করেছিলেন সেটা তার কানেও গিয়েছিল৷ তবে বিজেপির সঙ্গে সরকার গঠনের ক্ষেত্রে তার কোনও ভূমিকা ছিল না বা বলা ভাল অজিতের থেকে দূরত্ব বজায় রেখেছিলেন তিনি

  • Share this:

#মুম্বই: অজিত পাওয়ার ও দেবেন্দ্র ফড়নবীশের বৈঠক করছে সেটা জানতেন তিনি৷ সরকার গঠন নিয়ে তাদের মধ্যে কথাবার্তা হচ্ছে, সেটাও বুঝতে পারছিলেন৷ তবে বিজেপির সঙ্গে হাত মেলানোর নিয়ে নিজে কোনও সিদ্ধান্ত নেননি এবং দলকেও এর থেকে দূরে রেখেছিলেন, জানালেন শরদ পাওয়ার৷

দলের সদস্য এবং ভাইপো অজিত মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে গোপনে বৈঠক করে সরকার গড়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন৷ এব্যাপারে কি পোড় খাওয়া এনসিপি প্রধান কিছুই জানতেন না? ২৪শে নভেম্বর ভোরবেলা যখন মহারাষ্ট্রে মহা নাটকীয় ভাবে শপথ নিচ্ছেন দেবেন্দ্র ও অজিত, তখন সেই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছিল বিভিন্ন মহলে৷ অবশেষে শরদ পাওয়ার নিজেই মুখ খুললেন এই বিষয়৷ জানিয়ে দিলেন যে তিনি জানতেন সবই৷

আরও পড়ুনফোনে শেষবার হায়দরাবাদের গণধর্ষিতা যা বলেছিলেন বোনকে...

অর্থাৎ ভাইপো অজিত যে ফড়নবীশের সঙ্গে গোপনে বৈঠক করেছিলেন সেটা তার কানেও গিয়েছিল৷ তবে এই বিজেপির সঙ্গে সরকার গঠনের ক্ষেত্রে তার কোনও ভূমিকা ছিল না বা বলা ভাল অজিতের থেকে দূরত্ব বজায় রেখেছিলেন তিনি{ সেটাও জানিয়ে দিয়েছেন এনসিপি প্রধান৷ সে কারণে অজিত পাওয়ার বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়ে সরকার গড়তেই নিজের ও দলের মতামত স্পষ্ট করেছিলেন শরদ পাওয়ার৷ তিনি ট্যুইট করে জানিয়ে দেন যে বিজেপি সঙ্গে হাত মেলানোর সিদ্ধান্ত শুধুমাত্র অজিতেরই ছিল, দলের নয়৷

তবে অজিত ও ফড়নবীশের সরকার টেকেনি মহারাষ্ট্রে৷ এনসিপি-শিবসেনা-কংগ্রেস সরকার গড়েছে এই রাজ্যে৷ অজিতের বিরুদ্ধে কোনও রাগ নেই শরদের মনে৷ কারণ তিনি মনে করেন কংগ্রেসের সঙ্গে বৈঠকে টানাপোড়নে মোটেই পছন্দ হয়নি অজিতের৷ তাই সম্ভবত এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছিলেন অজিত৷ এছাড়াও শরদ পাওয়ার জানান মোদির সঙ্গে তার যে বৈঠক হয়েছিল তাতে একসঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছিল মোদি৷ তবে সে পথেও হাঁটেননি তিনি৷

First published: 09:31:22 AM Dec 04, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर