সার্ক সম্মেলনে বয়কট রাজনাথ সিংহকে

মুখে অভ্যর্থনা জানালেও, কাজে উলটোটাই করল পাকিস্তান। সার্ক সম্মেলনে বয়কট করা হল রাজনাথ সিংকে।

মুখে অভ্যর্থনা জানালেও, কাজে উলটোটাই করল পাকিস্তান। সার্ক সম্মেলনে বয়কট করা হল রাজনাথ সিংকে।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #ইসলামাবাদ: মুখে অভ্যর্থনা জানালেও, কাজে উলটোটাই করল পাকিস্তান। সার্ক সম্মেলনে বয়কট করা হল রাজনাথ সিংকে। হল না তাঁর বক্তব্যের মিডিয়া কভারেজও। সন্ত্রাসবাদ প্রশ্নে নাম না করে পাকিস্তানকে বিঁধতেই দাঁত-নখ বের করে ঝাঁপিয়ে পড়ে ইসলামাবাদ। মধ্যাহ্নভোজে যোগ দেননি অপমানিত রাজনাথ।

    কিন্তু, কথায় আর কাজে মিল রাখল না ইসলামাবাদ। ঘরে ডেকে অতিথিকে অপমানের পথেই হাঁটলেন নওয়াজ শরিফরা। নিহত হিজবুল জঙ্গি বুরহান ওয়ানি ও কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে সপ্তম সার্ক সম্মেলনে সুর সপ্তমে তোলেন রাজনাথ সিং। ঠারেঠোরে বেঁধেন পাকিস্তানকেও। তিনি বলেন,

    সন্ত্রাসবাদীরা কখনও শহিদ হতে পারে না। সন্ত্রাসবাদের ভাল-মন্দ হয় না। কেবলমাত্র প্রতিবাদ করলেই হবে না, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিতে হবে। শুধু ব্যক্তি নয়, সংগঠন, এমনকি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

    রাজনাথ সিংয়ের এই বয়ানে তেলে-বেগুনে জ্বলে ওঠে পাকিস্তান। তাঁর বক্তব্যকে বয়কট করে আয়োজক দেশ। মিডিয়া ব্ল্যাকআউটের জেরে রাজনাথের বক্তব্য সম্প্রচারিত হয়নি। তর্কে জড়িয়ে পড়েন ভারত ও পাকিস্তানের আধিকারিকরাও। যদিও, সন্ত্রাসবাদ দূর করতে ইসলামাবাদের সাফল্যের কথা শুনিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। এরপর অবশ্য বৈঠকের তাল কেটে যায়। সম্মেলনের মধ্যাহ্নভোজে অংশগ্রহণ করেননি অপমানিত রাজনাথ সিং। আয়োজক হয়েও ভোজে গরহাজির ছিলেন পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পাক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী চৌধুরি নিসারও।

    First published: