corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুলওয়ামা হামলার ১ বছর, পুলওয়ামায় শহিদদের স্মরণ

পুলওয়ামা হামলার ১ বছর, পুলওয়ামায় শহিদদের স্মরণ

প্রাণ হারান ৪০- এরও বেশি জওয়ান

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আজ পুলওয়ামাকাণ্ডের বর্ষপূর্তি। ২০১৯-র ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় CRPF কনভয়ে জইশ-এ-মহম্মদ হামলা চালায়। প্রাণ হারান ৪০- এরও বেশি জওয়ান। কাশ্মীরের লাতপোরে নিহতদের স্মরণ।

সেই অভিশপ্ত দিন। জঙ্গি হামলায় শহিদ হন লুবেড়িয়ার বাউড়িয়ার বাসিন্দা বাবলু সাঁতরা। বাবলুর স্মরণে এলাকায় এক মন্দির কমিটি ও বাবলুর পরিবারের উদ্যোগে তাঁর মূর্তি বসানো হয়েছে । স্মৃতির উদ্দেশ্যে উলুবেড়িয়া পুরসভার সহায়তায় ও ১১ নম্বর ওয়ার্ডের পরিচালনায় আয়োজন করা হয় এক ফুটবল প্রতিযোগিতার। এছাড়া নানা সময়ই বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বাবলুর স্ত্রী মিতা

উরির থেকেও ভয়ঙ্কর জঙ্গি হানায় কেঁপে ওঠে কাশ্মীর। জম্মু থেকে শ্রীনগর যাওয়ার পথে অবন্তীপুরার লেটাপোরার কাছে একটি গাড়ি কনভয়ে ঢুকে বিস্ফোরণ ঘটায়। হামলার দায় স্বীকার করে জইশ-এ-মহম্মদ। জঙ্গিহানার ভয়াবহ ছবি দেখে শিউরে উঠছে গোটা দেশ। শ্রীনগর-অনন্তনাগ হাইওয়ে ধরে জম্মু থেকে শ্রীনগর যাচ্ছিল ২৫০০ জওয়ানের একটি কনভয়। আটাত্তরটি গাড়ির ওই বিশাল কনভয়ই ছিল জঙ্গিদের টার্গেট। পুলওয়ামার অবন্তীপুরার কাছে কনভয় পৌঁছতেই, উলটো দিক থেকে একটি এসইউভি গাড়ি কনভয়ের কাছাকাছি চলে আসে। তারপরেই ঘটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। পাশেই ছিল চুয়ান্ন নম্বর ব্যাটেলিয়নের বাস। বিস্ফোরণে উড়ে যায় জওয়ানদের বাসটি। পুলওয়ামার অবন্তীপুরার কাছে কনভয় পৌঁছতেই, উলটো দিক থেকে একটি এসইউভি গাড়ি কনভয়ের কাছাকাছি চলে আসে। তারপরেই ঘটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ। পাশেই ছিল চুয়ান্ন নম্বর ব্যাটেলিয়নের বাস। বিস্ফোরণে উড়ে যায় জওয়ানদের বাসটি।

হামলার জেরে বহু জওয়ানের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। রক্তাক্ত রাজপথ। বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে জওয়ানদের দেহাংশ, গাড়ির যন্ত্রাংশ। শ্রীনগর-অনন্তনাগ হাইওয়ে তখন যেন যুদ্ধক্ষেত্র। ঘটনার আকস্মিকতা কাটিয়ে দ্রুত উদ্ধার কাজে নামেন জওয়ানরা। আহতদের তড়িঘড়ি শ্রীনগর সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সিআরপিএফ সূত্রে খবর, ১০০ কেজির বেশি বিস্ফোরক ছিল ওই গাড়িটিতে। হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-এ-মহম্মদ। সামনে আসে ফিদায়েঁ জঙ্গির পরিচয়ও। জানা গিয়েছে, ওই জঙ্গির নাম আদিল আহমদ ওরফে ওয়াকার।

Published by: Rukmini Mazumder
First published: February 14, 2020, 8:43 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर