• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Narendra Modi: ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের জন্য টিকাকরণ, কারা পাবেন বুস্টার ডোজ? ঘোষণা মোদির

Narendra Modi: ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের জন্য টিকাকরণ, কারা পাবেন বুস্টার ডোজ? ঘোষণা মোদির

ছবি: ফেসবুক

ছবি: ফেসবুক

Covid 19: বড়দিনের দিন রাতে দেশে টিকাকরণের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন মোদি। প্রশংসা করেন স্বাস্থ্যকর্মীদের।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সিদের জন্য টিকাকরণ (Covid Vaccination) শুরু হবে দেশে। বড়দিনের রাতে জাতির উদ্দেশে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) ঘোষণা করলেন ২০২২ সালের ৩ জানুয়ারি থেকে এই টিকাকরণ শুরু হবে।  এ ছাড়া স্বাস্থ্যকর্মী ও করোনার প্রথম সারির যোদ্ধাদের দেওয়া হবে করোনা টিকার বুস্টার ডোজ। জানুয়ারি মাসের ১০ তারিখ থেকে করোনা টিকার বুস্টার ডোজ পাবেন ষাটোর্ধ্ব মানুষেরাও। তবে সেক্ষেত্রে লাগবে চিকিৎসকের পরামর্শ। এ ছাড়া করোনার ন্যাসাল টিকা ও ডিএনএ টিকা নিয়েও শনিবার তথ্য দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। 

    আরও পড়ুন:  হঠাৎ করে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়লেন বিজেপি-র পাঁচ বিধায়ক! কারণ কী?

    ওমিক্রন সংক্রমণ নিয়ে দেশের মানুষের মধ্যে যখন আতঙ্ক তৈরি হয়েছে, তখনই, শনিবার, রাতে, বড়দিনের রাতে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভাষণের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দিলেন, ওমিক্রন সংক্রমণ নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। শুধু মেনে চলতে হবে নিয়ম। করোনা এখন যায়নি, তাই দেশকে সুরক্ষিত রাখতে সতর্ক থাকবে। তিনি বললেন, "আমরাও টানা এই রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে গিয়েছি। যখন টিকাকরণ শুরু হয়েছিল, তখন বৈজ্ঞানিকরা চিন্তা করে প্রকাশ করেছিলেন, কবে, কখন, কার টিকাকরণ করা হবে। আমরা ক্রমাগত পরিস্থিতি সামলাতে পেরেছি এই কারণেই।"

    আরও পড়ুন: তিনি তৃণমূলে যোগই দেননি, আইনজীবীর মাধ্যমে স্পিকারকে জানালেন মুকুল

    মোদি শনিবারের রাতের ভাষণে উল্লেখ করেন, কাদের কাদের দেওয়া হবে করোনার বুস্টার ডোজ। কারা পাবেন এই টিকা। তিনি উল্লেখ করে বলেন ১০ জানুয়ারি থেকে কো-মর্বি়ডিটি সম্পন্ন ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তিদের বুস্টার টিকা দেওয়া হবে। তবে সেক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই টিকা নিতে হবে নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে। এ ছাড়াও স্বাস্থ্যকর্মী ও করোনার বিরুদ্ধে লড়ছেন এমন প্রথমসারির যোদ্ধাদেরও বুস্টার ডোজ দেওয়া হবে। ওই একই তারিখ থেকে। প্রধানমন্ত্রী শনিবারের ভাষণে মনে করিয়ে দিয়েছেন, করোনা এখনও দেশ থেকে বিদায় নেয়নি। তবে দেশের মানুষ ক্রমাগত করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছেন। সেই লড়াই জারি রাখতে হবে। নিয়মিত মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, বার বার হাত ধুতে হবে। কিছুক্ষণ সময় অন্তর হাত ধোয়ার অভ্যাস তৈরি হলে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই আরও জোরদার হবে, বলেছেন তিনি।

    Published by:Uddalak B
    First published: