Home /News /national /

Parliament Winter Session 2021: পীযূষ গোয়েলের ভূমিকায় মনোজ ঝা, 'নকল সংসদ'-এ সাড়া ফেলল বিরোধীরা

Parliament Winter Session 2021: পীযূষ গোয়েলের ভূমিকায় মনোজ ঝা, 'নকল সংসদ'-এ সাড়া ফেলল বিরোধীরা

নকল সংসদ

নকল সংসদ

Parliament Winter Session 2021: সংসদ চত্বরেই 'নকল সংসদ' বসালেন সাসপেন্ডেড সাংসদরা।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : বিরোধী দলের ১২ জন সাংসদকে সাসপেন্ড করার প্রতিবাদ জানিয়ে আজ গান্ধিমূর্তির পাদদেশে মহড়া সংসদ চালালেন বিরোধী সাংসদরা (Parliament Winter Session 2021)। যেহেতু সাসপেন্ড হওয়া বিরোধী সাংসদরা রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড হয়েছেন, সেই কারণে গান্ধিমূর্তির পাদদেশে মহড়া রাজ্যসভা চালানো হল। রাজ্যসভায় বিজেপির দলনেতা পীযূষ গোয়েল। আঝ গান্ধিমূর্তির পাদদেশে মহরা রাজ্যসভায় পীযূষ গোয়েলের ভূমিকায় দেখা যায় আরজেডি সাংসদ মনোজ ঝা। গান্ধিমূর্তির পাদদেশে ধরনায় ছিলেন শিবসেনার প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদী, তৃণমূলের দোলা সেন, কংগ্রেসের ছায়া ভার্মা, সিপিএমের এলামারান করিমের মতো বিরোধী সাংসদরা।

গান্ধিমূর্তির পাদদেশে ধরনায় প্রথমেই জিরো আওয়ার পালন করা হয়। প্রথম বলতে দেওয়া হয় কংগ্রেসের ছায়া ভার্মা। মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বলতে উঠে সাসপেন্ডেড সাংসদদের সম্পর্কে বলতে চান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে বাধা দেন স্পিকার। এরপরেই সভায় তুমুল বিক্ষোভ শুরু হয়ে যায়। প্রতীকি সংসদে নেতৃত্ব দেন তৃণমূল সাংসদ দোলা সেন। গান্ধিমূর্তির পাদদেশে স্লোগান দেওয়া হয় মোদি সরকার কি তানাশাহি নেহি চলেগি, নেহি চলেগি। অন্যান্য সাংসদরাও দোলা সেনের গলায় গলা মেলান।

আরও পড়ুন: কলকাতায় বহিরাগত? বিস্ফোরক অভিযোগ সুকান্ত মজুমদারের! পাল্টা ফিরহাদ

এদিকে, গতকালের মতো আজও সকাল থেকে লখিমপুর ইস্যু নিয়ে আলোচনার জন্য নোটিশ দেন একের পর বিরোধী সাংসদরা। সংসদ শুরু হতেই প্রবল বিক্ষোভ শুরু করে বিরোধী শিবির। তুমুল বিক্ষোভ চলায় সকাল সাড়ে ১১টার মধ্যেই রাজ্যসভা মুলতুবি করে দেন চেয়ারম্যান এম বেঙ্কাইয়া নাইডু। প্রথমে বেলা ২টো পর্যন্ত মুলতুবি হয়ে যায় লোকসভা। পরে ২টোর সময় সভা শুরু হতেই ফের হট্টগোল শুরু করেন বিরোধী শিবির। ফলে দিনের মতো লোকসভাও মুলতুবি করে দিতে বাধ্য হন স্পিকার ওম বিড়লা।

আরও পড়ুন: 'যত বড় নেতারই ছত্রছায়ায় থাকুক...', পুরভোটের শেষ লগ্নে কড়া অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়! নিশানায় কারা?

গত বুধবার সামনে আসে লখিমপুর নিয়ে উত্তরপ্রদেশ সরকারের তদন্ত কমিটির রিপোর্ট। সেখানে বলা হয়েছে, লখিমপুরের ঘটনা হত্যা বা ষড়যন্ত্র। এরপরেই হাতে বড় অস্ত্র পেয়ে যায় বিরোধীরা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের রাষ্ট্রমন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনির পদত্যাগ ও শাস্তির দাবিতে সরকারের ওপর চাপ বাড়নোর কৌশল নেয় বিরোধী শিবির।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Indian parliament, Lakhimpur Violence

পরবর্তী খবর