corona virus btn
corona virus btn
Loading

জোর করে বিধায়কদের আটকে রাখার অভিযোগ কংগ্রেসের, সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুমকি

জোর করে বিধায়কদের আটকে রাখার অভিযোগ কংগ্রেসের, সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার হুমকি

যদিও এসব নিয়ে মাথা ঘামাতে চাইছে না বিজেপি৷ বরং মধ্যপ্রদেশের রাজনীতিকে নতুন খাতে বইয়ে দিতে এখন তাড়াতাড়ি সব গুছিয়ে নিতে চাইছে বিজেপি নেতৃত্ব৷

  • Share this:

#ভোপাল: হাল ছাড়তে চাইছে না কংগ্রেস৷ যেভাবে হোক বিজেপিকে প্যাঁচে ফেলতে মরিয়া চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে কমলনাথের দল৷ ওদিকে দলবদলের পর জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া আজই দেখা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্টমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে৷ কিন্তু এসবের মাঝেই বিজেপির বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ তুলল বিজেপি৷ বলা হল, বেঙ্গালুরুতে তাঁদের দলের বিধায়কদের জোর করে আটকে রাখা হয়েছে৷ কংগ্রেসের নেতা জিতু পটওয়ারিকে মারধরের অভিযোগ তোলা হল৷ কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সাংবাদিক বৈঠকে বলা হয়েছে, ‘মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেসের দুই মন্ত্রী জিতু পাটওয়ারি ও লক্ষণ সিং বেঙ্গালুরুতে গিয়েছিলেন৷ সেখানে তাঁদের হেনস্থা করা হয়েছে৷ আমাদের কাছে খবর আছে, তাঁদের গ্রেপ্তারও করেছে পুলিশ৷ এভাবে আমাদের বিধায়কদের দীর্ঘদিন ধরে ইচ্ছা করে আটকে রাখা হয়েছে, আমরা সেটা মেনে নেব না৷ পুলিশকে হয় তাঁদের উদ্ধার করতে হবে, অথবা আমরা শীর্ষ আদালতে আবেদন করব৷’

যদিও এসব নিয়ে মাথা ঘামাতে চাইছে না বিজেপি৷ বরং মধ্যপ্রদেশের রাজনীতিকে নতুন খাতে বইয়ে দিতে এখন তাড়াতাড়ি সব গুছিয়ে নিতে চাইছে বিজেপি নেতৃত্ব৷ সেই কারণেই আজ মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছে বিজেপি৷ আজ ভোপালে রাজ্যপাল ফেরার পরেই তাঁরা দেখা করবেন বলে খবর৷

ওদিকে আস্থা ভোটের বিষয়েও দ্রুত এগিয়ে যেতে চাইছে বিজেপি৷ আগামী ১৬ মার্চ আস্থা ভোট চাইছে বিজেপি৷ কিন্তু তা সম্ভব করতে দিতে চাইছে না কংগ্রেস৷ কংগ্রেসের পক্ষে বলা হয়েছে, কোনও বিধায়কের ইস্তফাই গ্রহণ করা হয়নি৷ তাই এভাবে আস্থা ভোট করা যায় না৷ এর পাশাপাশি মধ্যপ্রদেশের অধক্ষ্য জানিয়েছেন, যে বিধায়করা পদত্যাগ করেছেন, তাঁদের সামনাসামনি এসে পদত্যাগ পত্র দিতে হবে৷ না হলে তা গৃহীত হবে না৷ এই নিয়ে শুক্রবারের মধ্যে হাজিরা দেওয়ার কথা নোটিশ দিয়ে জানিয়েছেন স্পিকার৷ বিধায়কদের সামনে এসে বলতে হবে যে তাঁরা স্ব-ইচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন, না তাঁদের ওপর চাপ তৈরি করা হয়েছিল৷

ওদিকে বিজেপি বিধায়করা রয়েছে মানেসরের বিলাসবহুল ভিলায়৷ ১০৬ বিজেপি বিধায়কদের স্টুডিও অ্যাপার্টমেন্ট ভিলায় রেখেছে গেরুয়া শিবির৷ হরিয়ানা পুলিশ সেই বিশাল ভিলার সামনে সারাক্ষণ পাহারা দিচ্ছে৷ রয়েছে হরিয়ানা পুলিশের সিআইডি উইিংও৷ কেউ অপরিচিত কারওর সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না, কথাও বলতে পারছেন না৷

First published: March 12, 2020, 6:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर