Home /News /national /
Wedding: বিয়ের গাড়িতে করে এ কী পাচার হচ্ছে! নেটওয়ার্ক ছড়িয়ে নাকি মধ্যপ্রদেশ থেকে ওড়িশায়

Wedding: বিয়ের গাড়িতে করে এ কী পাচার হচ্ছে! নেটওয়ার্ক ছড়িয়ে নাকি মধ্যপ্রদেশ থেকে ওড়িশায়

মারাত্মক কাণ্ড!

মারাত্মক কাণ্ড!

Wedding: এই চক্রের সঙ্গে অনেক হাই প্রোফাইল মানুষও জড়িত থাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ছত্তিসগঢ়ের গড়িয়াবন্দের পুলিশ জালে ধরা পড়েছে গাঁজা পাচারকারী আন্তঃরাজ্য চক্রের চার সদস্য। এর মধ্যে ২ জন মহিলাও রয়েছে। জেলা পুলিশের দাবি, গাঁজা পাচারের মামলায় প্রথমবারের মতো মেয়েদের গ্রেফতারের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার জেলা সদর থেকে পুলিশ তাদের হাতেনাতে ধরে। গাড়িতে বিয়ের স্টিকার লাগিয়ে ওই মহিলারা বাইরের রাজ্যে গাঁজা পাচার করছিল। এই আন্তঃরাজ্য চক্রের নেটওয়ার্ক মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিসগঢ় থেকে ওড়িশা পর্যন্ত ছড়িয়ে রয়েছে। বর্তমানে ওই চক্রের অন্য সদস্যদের খুঁজছে পুলিশ। এই চক্রের সঙ্গে অনেক হাই প্রোফাইল মানুষও জড়িত থাকতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

পুলিশের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২৪ জানুয়ারি দুই যুবক ও দুই তরুণী ওড়িশা থেকে এক বোলেরো গাড়িতে নম্বর OR-08-E-2262 প্লেট লাগিয়ে রায়পুর যাচ্ছিল। গাড়িতে লাগানো ছিল বিয়ের স্টিকার। তাদের থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে গড়িয়াবন্দ থানার বিশেষ দল ও থানা পুলিশ। প্রথমে অভিযুক্তরা জানায়, তারা বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছে। সন্দেহ হলে গাড়িটিতে তল্লাশি চালিয়ে ৩০ কেজি গাঁজা পাওয়া যায়। কড়া জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, অভিযুক্তরা গাঁজা নিয়ে ওড়িশা থেকে মধ্যপ্রদেশে যাচ্ছিল।

আরও পড়ুন:  করোনা-কালে এই প্রথম, ৩ ফেব্রুয়ারি নিয়ে জরুরি নির্দেশ গেল নবান্ন থেকে! প্রস্তুতি শুরু...

আরও পড়ুন:  আসছে বৃষ্টি, তারপর কি ফিরবে শীত? বাংলার জন্য জরুরি পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের

পুলিশ জানায়, সহদেব গিরি (বয়স ২৩ বছর), গোলপাহাড়ি থানার ঘাটিগাঁও জেলা গোয়ালিয়রের বাসিন্দা, সুভাষ চন্দ্র নায়ক (বয়স ৪৬ বছর) জুনাগড় জেলা কালাহান্ডির (ড়িশা) বাসিন্দা, আরবি সোনি (বয়স ২৬ বছর) মেহেদিপালের সৈয়দ পাহাড়, রিসগাঁও থানার অধীনে রাজখাদিয়ার জেলার নুভাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা, ভাওয়ানি পাটনা জেলা কালাহান্ডি, ও কালাহান্ডির বাসিন্দা রুবি সোনি ওরফে মন্নু শর্মা (বয়স ২২ বছর) প্রমুখদের গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযুক্তরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, ওড়িশা থেকে তারা দীর্ঘদিন ধরে গাঁজা কিনে আনছে। বাজেয়াপ্ত করা গাঁজার দাম প্রায় তিন লক্ষ টাকা। পুলিশ গাঁজাসহ ১০ লক্ষ টাকা মূল্যের একটি গাড়ি ও প্রায় ২২ হাজার টাকা মূল্যের চারটি মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে। ইতিমধ্যে বাজেয়াপ্ত পণ্যের মোট মূল্য প্রায় ১৩ লক্ষ টাকা। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আসামিদের আদালতের নির্দেশে জেলে পাঠানো হয়েছে।

First published:

Tags: Smuggling, Weed

পরবর্তী খবর