• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • ১৬ বছর পর অনশন প্রত্যাহার করলেন ইরম শর্মিলা চানু, হতে চান মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী

১৬ বছর পর অনশন প্রত্যাহার করলেন ইরম শর্মিলা চানু, হতে চান মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী

শুরু করেছিলেন ১৬ বছর আগে ৷ ১৬টা বছর পার করেছেন এই একইভাবে ৷ অবশেষে আজ অনশন প্রত্যাহার করছেন লৌহমানবী ইরম চানু শর্মিলা ৷

শুরু করেছিলেন ১৬ বছর আগে ৷ ১৬টা বছর পার করেছেন এই একইভাবে ৷ অবশেষে আজ অনশন প্রত্যাহার করছেন লৌহমানবী ইরম চানু শর্মিলা ৷

শুরু করেছিলেন ১৬ বছর আগে ৷ ১৬টা বছর পার করেছেন এই একইভাবে ৷ অবশেষে আজ অনশন প্রত্যাহার করছেন লৌহমানবী ইরম চানু শর্মিলা ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #ইম্ফল: শুরু করেছিলেন ১৬ বছর আগে ৷ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে হাসপাতালের বেডে নাকে রাইলস টিউব গোঁজা শর্মিলার ছবি ৷ ১৬টা বছর পার করেছেন এই একইভাবে ৷ অবশেষে মঙ্গলবার অনশন প্রত্যাহার করলেন লৌহমানবী ইরম চানু শর্মিলা ৷ এরইসঙ্গে ২০০০ সালের ৪ নভেম্বর থেকে শুরু হয়ে আখ্যানে পরিণত হওয়া এক নারীর আন্দোলনের একটি পর্ব শেষ হল  ৷

    আজ ১৬ বছর পর অনশন ভাঙলেন ৪৪ বছরের শর্মিলা ৷ সকাল সাড়ে ১০ টায় হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে রওনা দিলেন মণিপুর আদালতের উদ্দেশ্যে ৷ সেখানেই অনশন প্রত্যাহার করলেন তিনি ৷ জানালেন এরপর তিনি মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী হতে চান ৷

    মণিপুর থেকে সেনাবাহিনীর বিশেষ অধিকার আইন আফস্পার বিরুদ্ধে তাঁর প্রতিবাদের রূপ ছিল দীর্ঘ অনশন ৷ প্রায় ১৬ বছর পার করে অনশন ভাঙলেন  ইরম চানু শর্মিলা ৷ গত ২৬ জুলাই সংবাদ মাধ্যমকে শর্মিলা জানান, ৯ অগস্ট তিনি অনশন ভাঙবেন ৷ শুধু তাই নয়, মণিপুরের বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থীও হবেন তিনি ৷

    শর্মিলার এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর থেকেই প্রবল বিতর্ক মণিপুরে ৷ সংবাদ সংস্থা সূত্রে খবর, অনশন ভাঙার পর রাজনীতির জগতে পা রাখার পাশাপাশি দীর্ঘদিনের প্রেমিক ডেসমন্ড কুটিনহোকে বিয়ে করে ঘর বাঁধার পরিকল্পনাও করেছেন তিনি ৷

    শর্মিলার অনশন ভাঙার সিদ্ধান্তে প্রবল ক্ষুব্ধ স্থানীয় জঙ্গি গোষ্ঠী ৷ তারা শর্মিলাকে হুমকি দিয়েছেন যে, তিনি যদি অনশন ভাঙার সিদ্ধান্ত না বদল করেন, তাহলে তাঁকে পস্তাতে হবে ৷ অনশন ভাঙা চলবে না, এমনকী ছাদনাতলাও যাওয়া যাবে না ৷

    শর্মিলা নিজে জানিয়েছেন, অনশন ভাঙছেন মানেই আফস্পার বিরুদ্ধে তাঁর আন্দোলন শেষ হচ্ছে না ৷ রাজনীতিতে এসে আফস্পার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় পর্বের আন্দোলন শুরু করতে চান তিনি ৷ তাঁর এই সিদ্ধান্ত নিয়েই মতবিরোধ দেখা দিয়েছে মণিপুরের সাধারণ মানুষের মধ্যে ৷ এমনকী শর্মিলার নিজের মা ও দাদাও তাঁর এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিলেন ৷

    শর্মিলার দাদা ইরম সিংহজিত বক্তব্য, শর্মিলা অনশন ভাঙায় তাঁর অস্থিত্বই শেষ হয়ে যাবে ৷ সিংহজিত তাঁর বোনের জন্য সেভ শর্মিলা ক্যাম্পেন নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা চালান। বোনের অনশন শেষ হলে সে সংস্থার আর কোনও প্রয়োজন হবে না সেটা তিনি ভালো মতোই জানেন ৷ তবে বিরোধীতা নয়, শর্মিলার সিদ্ধান্তকেও সমর্থন জানিয়েছেন ইম্ফল উপত্যকার স্বল্প কিছু মানুষ ৷

    সালটা ২০০০ ৷ মণিপুরের জঙ্গি কবলিত এলাকায় সেনাদের টহলদারি ৷ তবে তা শুধুই টহলদারি নয় ৷ আইনের দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে সেনারা নির্মম অত্যাচারও চালাত ৷ আর এই অত্যাচারের ফলে ইম্ফলের কাছে মালোম এলাকায় অসম রাইফেলসে সেনার গুলিতে শিশু সহ মারা যায় প্রায় ১০ জন ৷ এরই প্রতিবাদে সে সময় মুখর হয়ে ওঠে গোটা মণিপুর ৷ গর্জে ওঠে শর্মিলার কণ্ঠও ৷ ওই ঘটনার পর আফস্পা আইনের প্রতিবাদে আমরণ অনশনের ডাক দেয় শর্মিলা ৷

    অবশ্য শর্মিলার এই অনশনে প্রচুর বাধাও এসেছে ৷ মণিপুর প্রশাসন জোর করে তাঁকে ভর্তি করা হয় নার্সিং হোমে ৷ মুখে নল ঢুকিয়ে তাঁকে জোর করে খাওয়ানোর চেষ্টা করা হয় ৷ আদালতে আত্মহত্যার অভিযোগও দায়ের হয় ৷ আদালত অবশ্য এই অভিযোগে আমল দেন না ৷ গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে হাসপাতালের বেডে নাকে রাইলস টিউব গোঁজা শর্মিলার ছবি ৷ শর্মিলার ১৬ বছরের অনশন জায়গা করে নিয়েছে রেকর্ড বুকে ৷

    অবশেষে সেই নল খুলে ফেলেছেন শর্মিলা ৷ ৯ অগস্ট অর্থাৎ আজ ১৬ বছরের অনশন সরকারিভাবে ভেঙে ফেললেন শর্মিলা ৷ যোগ দেবেন রাজনীতিতে ! এরপর জীবনের দ্বিতীয় পর্বে লৌহমানবী আবার কোন আন্দোলন শুরু করেন তা দেখার অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব ৷

    First published: