corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভিসি সজ্জানার, 'দাবাং' অফিসার এই নিয়ে দু'বার এনকাউন্টারে খতম করলেন অভিযুক্তদের

ভিসি সজ্জানার, 'দাবাং' অফিসার এই নিয়ে দু'বার এনকাউন্টারে খতম করলেন অভিযুক্তদের
কমিশনার ভিসি সজ্জানার

মহিলা চিকিত্‍সককে গণধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্তদের এনকাউন্টারে মৃত্যুর পরে হায়দরাবাদে হিরো সাইবারাবাদ পুলিশের কমিশনার সজ্জানার৷

  • Share this:

#হায়দরাবাদ: ভদ্রলোকের নাম ভিসি সজ্জানার৷ হায়দরাবাদে এই পুলিশ অফিসারকে মোটামুটি সকলেই চেনেন৷ মহিলা চিকিত্‍সককে গণধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্তদের এনকাউন্টারে মৃত্যুর পরে হায়দরাবাদে হিরো সাইবারাবাদ পুলিশের কমিশনার সজ্জানার৷ এই নিয়ে দুটি এনকাউন্টার হায়দরাবাদে৷

২০০৮ সাল৷ তেলঙ্গানার ওয়ারাঙ্গলে দুই যুবতীকে অ্যাসিড হামলায় অভিযুক্ত ৩ জনেরই মৃত্যু হয় এনকাউন্টারে৷ এস শ্রীনিবাস রাও (২৫), পি হরিকৃষ্ণা (২৪), বি সঞ্জয় (২২)৷ পুলিশ জানায়, তিন জন হেফাজত থেকে পালানোর চেষ্টা করেছিল৷ পুলিশ গুলি চালাতে বাধ্য হয়৷ এই তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় ওয়ারাঙ্গলের একটি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের দুই ছাত্রীর উপর অ্যাসিড হামলা করে৷ এক তরুণী ঘটনাস্থলেই মারা যান৷ আরেকজেনর দীর্ঘ দিন চিকিত্‍সা চলে৷ গোটা হায়দরাবাদ ক্ষোভে যখন ফুঁসছে, তখনই এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় ৩ অভিযুক্তের৷

ভিসি সজ্জানার ভিসি সজ্জানার

সে বার ওয়ারাঙ্গল জেলা পুলিশের সিপি ছিলেন ভিসি সজ্জানার৷ আজ হায়দরাবাদে গণধর্ষণ ও খুনে ফুঁসছে গোটা দেশ, তখন সাইবারাবাদ পুলিশের কমিশনার ভিসি সজ্জানার৷ সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি৷ ভোরের আলো ফোটার আগে এনকাউন্টার৷ তারপর অভিযুক্তরা শেষ৷ ২৭ নভেম্বর ধর্ষণ ও খুনের ঘটনাটি ঘটে৷ ঠিক ১০ দিনের মাথায় এনকাউন্টারে খতম অভিযুক্তরা৷

হায়দারাবদের মহিলারা ভিসি সজ্জানারকে স্যালুট জানাচ্ছেন৷ পুলিশকে মিষ্টিমুখ করাচ্ছেন৷ পুষ্পবৃষ্টি হচ্ছে পুলিশ দেখলেই৷ সাইবারাবাদ পুলিশের কমিশনার ভি সি সজ্জানারের কথায়, 'ওদের কে আমরা জেরা করছিলাম৷ কী ভাবে ঘটনাটি ঘটায় ওরা৷ হঠাত্‍ ওরা আমাদের উপর হামলা চালায়৷ তারপর পালাতে শুরু করে৷ আমরা ওদের আত্মসমর্পণ করতে বলি৷ ওরা শোনেনি৷ কোনও উপায় না দেখে আমরা গুলি চালাই৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ৪ জনের৷' ২০০৮ সালেও একই বিবৃতি দিয়েছিলেন এনকাউন্টারের পরে৷

First published: December 6, 2019, 12:23 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर