Home /News /national /
diamond mushroom ring: হীরক মাশরুম! প্রায় ২৫ হাজার হিরে দিয়ে আংটি, গিনেস বুকে নাম তুলল কেরল, দেখুন ছবি

diamond mushroom ring: হীরক মাশরুম! প্রায় ২৫ হাজার হিরে দিয়ে আংটি, গিনেস বুকে নাম তুলল কেরল, দেখুন ছবি

'আমি' (Ami) নামের মাশরুম আকৃতির এই আংটিটি তৈরি করতে প্রায় ২৪,৬৭৯টি প্রাকৃতিক হিরে ব্যবহার করা হয়েছে।

  • Share this:

#কারাথোডে: পৃথিবীর সমস্ত আজব রেকর্ডধারীদের নাম নথিভুক্ত করা হয় গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে (Guinness World Records)। অবিশ্বাস্য এই রেকর্ড তৈরির তালিকা! এ বার সেই তালিকায় যোগ হল আরও এক নতুন বিস্ময়। কেরলের গয়না প্রস্তুতকারী সংস্থা এসডব্লুএ ডায়মন্ডসের (SWA Diamonds) মুকুটে যোগ হল নতুন পালক। একটি ব্লগ মারফৎ ওই সংস্থা জানিয়েছে কী ভাবে তারা একটি আংটিতে সবচেয়ে বেশি হিরে সেট করে বিশ্ব রেকর্ডের তালিকায় নিজেদের জায়গা করে নিয়েছে।

গত ৫ মে কেরলের কারাথোডেতে এই গয়নার বিশ্ব রেকর্ডটি সৃষ্টি হয়েছে। 'আমি' (Ami) নামের মাশরুম আকৃতির এই আংটিটি তৈরি করতে প্রায় ২৪,৬৭৯টি প্রাকৃতিক হিরে ব্যবহার করা হয়েছে। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের ব্লগ একটি রিপোর্ট প্রকাশ করে এই খবর জানিয়েছে। এই মাশরুম আকৃতির ‘আমি’ নাম আংটিটি 'অমরত্ব' এবং 'দীর্ঘায়ু'-র প্রতীক। প্রথমে এই রেকর্ড-ব্রেকিং আংটিটি তাদের ব্র্যান্ডের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য এবং দক্ষতা দেখানোর জন্য তৈরি করা হয়েছিল।

আংটিটি কী ভাবে তৈরি করা হয়েছে তাও ব্লগে ব্যাখ্যা করা হয়েছে। প্রথমে ৪১টি অনন্য মাশরুমের পাপড়ি-সহ রিং প্রোটোটাইপ একটি প্লাস্টিকের ছাঁচ ব্যবহার করে ডিজাইন তৈরি করা হয়। তারপরে থ্রিডি প্রিন্টিংয়ের মাধ্যমে ডিজিটাল ব্যবস্থায় ফের আংটিটি তৈরি করা হয়। এর পরে ছাঁচটি তরল সোনা দিয়ে ভর্তি করে নির্দিষ্ট আকার দেওয়া হয়। আকার সম্পূর্ণ হওয়ার পরে পাপড়িগুলির প্রতিটির পাশে পৃথক ভাবে হাতের সাহায্যে হিরেগুলি স্থাপন করা হয়েছিল। অবশেষে অলঙ্কৃত মাশরুম আকৃতির রিংটিকে ব্র্যান্ডের নামের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ঝড়ের বেগে বাড়ছে কোভিড-১৯ সংক্রমণ, একদিনে আক্রান্ত ২০ হাজারেরও বেশি! মৃত ৫৬

গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস দ্বারা পোস্ট করা ওই আংটির ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, ২৪,৬৭৯টি প্রাকৃতিক হিরে দ্বারা রেকর্ড-ব্রেকিং এই বিস্ময়কর আংটিটি সত্যি অনবদ্য। এসডব্লিউএ ডায়মন্ডস-এর মতে, আপাতত কাজ শেষ হওয়ার পর এই আংটির ওজন ৩৪০ গ্রাম এবং দাম প্রায় ৯৫,২৪৩ ডলার দাঁড়িয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় যার মূল্য প্রায় ৭৬,০৮,৭৮৭.০৭ টাকা।

আরও পড়ুন: বদলি হলেন শিক্ষক, তার পরই ছাত্ররা ঘটাল এই কাণ্ড! ভিডিও দেখে চোখে জল নেটদুনিয়ার

এসডব্লিউএ ডায়মন্ডসের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আব্দুল গফুর আনাদিয়ান (Abdul Gafur Anadiyan) গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডের কাছে জানিয়েছেন, ‘আমরা যে ভাবে স্বপ্ন দেখি সে ভাবে বেঁচে থাকার চেয়ে বড় আনন্দের বিষয় আর কিছু নেই। আমরা একটি নতুন গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস খেতাব অর্জন করেছি জেনে আমাদের সম্পূর্ণ দলের সদস্যরা সফল এবং উছ্বসিত বোধ করছি।’

Published by:Teesta Barman
First published:

Tags: Diamond, Guinness Book of World Records, Kerala

পরবর্তী খবর