corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই নতুন নিয়ম ভাঙলেই 'বন্ধ' হয়ে যাবে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট

এই নতুন নিয়ম ভাঙলেই 'বন্ধ' হয়ে যাবে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট
ব্যাঙ্ক
  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ব্যাঙ্কের নয়া নিয়ম, মাসে চারবারের বেশি টাকা লেনদেন করলেই ফ্রিজ হয়ে যাবে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট। সম্প্রতি 'জিরো ব্যালেন্স' অর্থাত জন ধন অ্যাকাউন্টে এই নয়া নিয়ম চালু করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া।

জনধন অ্যাকাউন্ট গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে আরবিআইয়ের নতুন নির্দেশিকা, এই অ্যাকাউন্টে এটিএম কার্ড ব্যবহার করে মাসে চারবারের বেশি টাকা তোলা যাবে না। শুধু এটিএম-এর মাধ্যমেই নয়, চারবারের পর এমনকি স্লিপ ব্যবহার করেও টাকা তোলার ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে ব্যাঙ্ক। ব্রাঞ্চ ট্রান্সফার, NEFT, EMI, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং যে কোনও ধরনের ব্যাঙ্ক ট্রান্সফার ওই চারবারের মধ্যেই সীমিত। এককথায় জনধন অ্যাকাউন্ট গ্রাহকেরা এক মাসের মধ্যে চারবারের বেশি কোনও মাধ্যম ব্যবহার করেই ট্রান্সজাকশন করতে পারবেন না।

এই সব অ্যাকাউন্টে যেহেতু কোনও অতিরিক্ত ব্যাঙ্কিং চার্জ কাটা হয় না, তাই চারবার ট্রান্সজাকশনের পর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলি সেই মাসের মতো বন্ধ করে দেওয়া হবে। গ্রাহককে ওই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে কোনও কাজের জন্য পরবর্তী মাস অবধি অপেক্ষা করতে হবে।

আরও পড়ুন 

নাগরদোলা ছিঁড়ে দুর্ঘটনা! মৃত ১ শিশু, গুরুতর আহত ৬

স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ইতিমধ্যেই মাসে চারবার টাকা লেনদেন করা হয়ে গেলেই তাদের ব্যাঙ্কে থাকা জনধন অ্যাকাউন্টগুলি ফ্রিজ করে দিচ্ছে। অন্যদিকে, HDFC এবং সিটি ব্যাঙ্ক জনধন অ্যাকাউন্টের ব্যবহার মাসে চারবারের বেশি হলেই অ্যাকাউন্টগুলিকে সাধারণ অ্যাকাউন্টে পরিবর্তন করে দিচ্ছে বলে খবর। জনধন অ্যাকাউন্ট সাধারণ সেভিংস অ্যাকাউন্টে পরিণত হওয়ার পর তাতে ন্যূনতম ব্যালান্স না থাকলেই জরিমানা কাটছে ব্যাঙ্ক।

দেশের সমস্ত মানুষকে ব্যাঙ্কিং পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত করার লক্ষ্যে জনধন প্রকল্প শুরু করেছিল মোদি সরকার। জিরো চার্জ ও জিরো ব্যালান্স অ্যাকাউন্টের সুবিধা দিয়ে ভারতের সমস্ত গ্রাম ও সমাজের প্রান্তিক বাসিন্দাদের ব্যাঙ্কিং পরিষেবায় যুক্ত করতে পারাই ছিল এই প্রকল্পের একমাত্র উদ্দেশ্য। এই প্রকল্পের প্রভূত সাফল্যের দাবি নোটবন্দির সময় বারবার শোনা গিয়েছে সরকারের মুখে। এখন আরবিআইয়ের নতুন নিয়মে সেই অ্যাকাউন্টগুলি নিয়ে গভীর সমস্যায় দেশের অধিকাংশ মানুষ।

First published: May 28, 2018, 11:49 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर