INX Media Case: সিবিআই লক-আপে রাত কাটল চিদম্বরমের, কাশ্মীর থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা, দাবি কার্তির

রাতে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পি চিদম্বরমকে নিয়ে রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে যায় সিবিআই৷ সেখানে মেডিক্যাল পরীক্ষার পর তাঁকে সিবিআই সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 22, 2019 07:58 AM IST
INX Media Case: সিবিআই লক-আপে রাত কাটল চিদম্বরমের, কাশ্মীর থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা, দাবি কার্তির
পি চিদম্বরম গ্রেফতার
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 22, 2019 07:58 AM IST

#নয়াদিল্লি: একটি সাংবাদিক বৈঠক৷ তারপর এক ঘণ্টার নাটক৷ পাঁচিল টপকে ঘরে ঢুকে সিবিআই গ্রেফতার করল প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে (P Chidambaram)৷ আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় চিদম্বরমের বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিস জারি করে সিবিআই ও ইডি৷ বুধবার রাতভর প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী সিবিআই-এর গেস্টহাউস লকআপে কাটিয়েছেন৷ আজ তাঁকে সিবিআই-এর বিশেষ আদালতে তোলা হবে৷

রাতে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে পি চিদম্বরমকে নিয়ে রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে যায় সিবিআই৷ সেখানে মেডিক্যাল পরীক্ষার পর তাঁকে সিবিআই সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়৷ ঘটনাচক্রে চিদম্বরম যখন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ছিলেন, সিবিআই-এর নয়া সদর দফতর বিল্ডিংটি তিনিই উদ্বোধন করেছিলেন৷ সেখান থেকে তাঁকে সিবিআই-এর গেস্টহাউসে রাখা হয়৷ গেস্টহাউসের ৫ নম্বর সুইটে রয়েছেন চিদম্বরম৷ মঙ্গলবার থেকে চদিম্বরমকে খুঁজছিল সিবিআই ও ইডি৷

Loading...

গোটা ঘটনাকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার চরম নিদর্শন বলেই অভিযোগ করেছেন পি চিদম্বরমের ছেলে কার্তি৷ তাঁর কথায়, 'রাজনৈতিক প্রতিহিংসা মেটাতেই বাবাকে গ্রেফতার করা হল৷ কংগ্রেসের ভাবমূর্তি খারাপ করার জন্য ও কাশ্মীর সমস্যা থেকে সাধারণ মানুষের নজর ঘোরাতেই এই নোংরা খেলা৷ একেবারেই রাজনৈতিক স্বার্থে৷ আর কিছু নয়৷'

INX মিডিয়া মামলায় প্রাক্তন পি চিদম্বরমের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই লুক আউট নোটিস জারি করে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)৷ দিল্লি হাইকোর্টে চিদম্বরমের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হওয়ার পরেই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চিদম্বরমের বাড়িতে যায় সিবিআই ও ইডি৷

চিদম্বরমের আগাম জামিনের আর্জি ত্রুটিপূর্ণ বলে জানায় সুপ্রিম কোর্ট৷ সেই ত্রুটি সংশোধন করে প্রধানবিচারপতির কাছে মামলার ফাইল পাঠিয়েছেন চিদম্বরমের আইনজীবী৷ সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, মামলার শুনানি হবে শুক্রবার৷ চিদম্বরমের আগাম জামিনের আবেদনের তড়িঘড়ি শুনানির আবেদনও বাতিল করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ গ্রেফতারি এড়ানোর বিশেষ রক্ষাকবচও আর নেই৷

First published: 07:58:24 AM Aug 22, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर