corona virus btn
corona virus btn
Loading

পাক হামলার আশঙ্কায় সীমান্তে সতর্কতা

পাক হামলার আশঙ্কায় সীমান্তে সতর্কতা

সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ঘোর কাটলে পাল্টা হামলা চালাতে পারে ইসলামাবাদ। এই আশঙ্কায় সীমান্তে সতর্ক ভারত।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের ঘোর কাটলে পাল্টা হামলা চালাতে পারে ইসলামাবাদ। এই আশঙ্কায় সীমান্তে সতর্ক ভারত। প্রাণহানি এড়াতে রাজস্থান, গুজরাত ও পঞ্জাব সীমান্তের দশ কিলোমিটার এলাকা ফাঁকা করে দেওয়া হয়েছে। মোতায়েন করা হচ্ছে বাড়তি বিএসএফ জওয়ান। সবরকম পরিস্থিতির জন্য তৈরি সেনাবাহিনী।

পাকভূমিতে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করতেই মেজাজ সপ্তমে নওয়াজ শরিফ ও রাহিল শরিফদের। সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার পর দিল্লির দিকে বন্দুক তাক করেছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের ঘনঘন যুদ্ধের হুঙ্কারে সতর্ক ভারত।

রাজস্থান, গুজরাত ও পঞ্জাব, এই তিন রাজ্যের পাক সীমান্তের ১০ কিলোমিটার এলাকা ফাঁকা করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, প্রাথমিক জড়তা কাটিয়ে ওঠার পর পাকিস্তান ওই ৩ রাজ্যের সীমান্তবর্তী গ্রামগুলিতে গুলি চালানো হতে পারে। হতে পারে শেলিংও। সেই আশঙ্কায় প্রাণহানি এড়াতে আগে থেকেই সতর্ক ভারত। হামলার আশঙ্কায় বন্ধ হয়ে গিয়েছে পঞ্জাবের সীমান্তবর্তী একাধিক স্কুল। একইসঙ্গে,

সীমান্তের পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরও বেশি বিএসএফ জওয়ান মোতায়েন করা হচ্ছে। কাঁটাতারের এপারে প্রস্তুত রয়েছে সেনাও। যে কোনওরকম পরিস্থিতির জন্য সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনাকেও।

ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার পারদ চড়তেই ওয়াঘা সীমান্তের দরজা বন্ধ। প্রথা ভেঙে বিটিং দ্য রিট্রিট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যুদ্ধের আবহে এখন সতর্ক দুই প্রতিবেশীই।

First published: September 29, 2016, 4:49 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर