ভাইয়েরা ভেবেছিলেন দিদি আসবে ফোঁটা দিতে, কিন্তু বাড়ি পৌঁছল দিদির মৃতদেহ!

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 29, 2019 04:25 PM IST
ভাইয়েরা ভেবেছিলেন দিদি আসবে ফোঁটা দিতে, কিন্তু বাড়ি পৌঁছল দিদির মৃতদেহ!
প্রতীকী ছবি
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Oct 29, 2019 04:25 PM IST

#নরেন্দ্রপুর: ভাইফোঁটা দেওয়া হল না পায়েলের ৷ ফোঁটা দেওয়ার জন্য বাড়ি আসার দিনেই তার মৄতদেহ পেল পরিবার ৷ এই ঘটনায় শোকের ছায়া এলাকাজুড়ে ৷ নরেন্দ্রপুর থানা এলাকার শ্বশুরবাড়ি সংলগ্ন চাঁদপুর গ্রামের একটি পুকুর থেকে উদ্ধার হয় তার দেহ ৷ আনন্দপুর থানা এলাকার বাসিন্দা পায়েলের বিয়ে হয় ৭ বছর আগে প্রদীপ শিকারী নামে এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রির সাথে ৷ এর আগে প্রদীপের বিয়ে হয়েছিল ৷ সেই বিয়ে গোপন করে ফের পায়েলকে বিয়ে করে সে ৷

প্রদীপ ও পায়েলের ৫ বছরের একটি ছেলে ও ৩ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে ৷ অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই পায়েলের উপর শুরু হয় অত্যাচার ৷ স্বামী প্রদীপ ছাড়াও তার আগের পক্ষের বৌ টুম্পা ও তার ছেলেরা অত্যাচার চালাত বলে অভিযোগ ৷ তারাই তাকে মেরে পুকুরের জলে ফেলে দিয়েছে বলে অভিযোগ ৷ পায়েলের শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্নও রয়েছে ৷

আরও পড়ুনবেহালায় তুবড়ি ফেটে ৫ বছরের শিশুর মৃত্যু, গ্রেফতার বাজি বিক্রেতা ও নির্মাতা

ঘটনায় নরেন্দ্রপুর থানায় অভিযোগ দায়ের পরিবারের ৷ মোট সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের ৷ মুল অভিযুক্ত প্রদীপ শিকারী ও তার মা কে গ্রেফতার করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ ৷ মঙ্গলবার তাকে বারুইপুর আদালতে তোলা হবে ৷

First published: 04:09:53 PM Oct 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर