Home /News /national /
Adhir Chowdhury: নিজে পেট্রোল-ডিজেলের শুল্ক কমিয়ে রাজ্যকে জ্ঞান দিক কেন্দ্র, বললেন অধীর চৌধুরী

Adhir Chowdhury: নিজে পেট্রোল-ডিজেলের শুল্ক কমিয়ে রাজ্যকে জ্ঞান দিক কেন্দ্র, বললেন অধীর চৌধুরী

অধীর চৌধুরী, ফাইল ছবি

অধীর চৌধুরী, ফাইল ছবি

Adhir Chowdhury: তিনি বলেন, "কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেছেন রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে তেলের দাম বাড়ছে। অথচ রাশিয়া থেকে মাত্র ২ শতাংশ তেল কেনা হয়।"

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : তেলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রের মোদি সরকারের বিরুদ্ধে কঠোর সমালোচনায় সরব হলেন কংগ্রেসের লোকসভার নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি বলেন আপনি আচরি ধর্ম অপরে শেখাও। তার দাবি পেট্রোল-ডিজেলের উপর থেকে অন্তঃশুল্ক না কমিয়ে রাজ্যগুলির ঘাড়ে দোষ চাপিয়ে দাঁড়াতে চাইছে মোদি সরকার। ছত্রিশগড় রাজস্থান-এর মতো রাজ্যগুলিতে কর কমিয়ে তেলের দামের রেহাই দেয়া হয়েছে সাধারণ মানুষকে। মোদি সরকার তেলের দাম নিয়ে দায় এড়িয়ে নানান অজুহাত দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন অধীর চৌধুরী।

আরও পড়ুন : জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধিতে সরগরম রাজনীতি! কিন্তু কেন্দ্র-রাজ্য কর পায় কত? দেখুন আসল সত্যিটা...

তিনি বলেন, "কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেছেন রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে তেলের দাম বাড়ছে। অথচ রাশিয়া থেকে মাত্র ২ শতাংশ তেল কেনা হয়।" অধীর চৌধুরী বলেন, ভারত সরকার বলছে রাশিয়া থেকে সস্তায় অপরিশোধিত তেল কিনছে সরকার। অথচ দেশের মানুষকে সেই সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। তাঁর কথায়, "রাশিয়া থেকে এখন আমরা সস্তায় অপরিশোধিত তেল কিনছি। এতদিন পর্যন্ত ভারতের যে পরিমাণ তেল এর প্রয়োজন তার মাত্র ২ শতাংশ আসত রাশিয়া থেকে। এখন যুদ্ধের কারণে আমরা আরও বেশি বেশি করে রাশিয়া থেকে সস্তায় তেল কিনছি। সরকার সবকিছু সস্তায় পাচ্ছে অথচ দেশের মানুষকে তার সুফল দেওয়া হচ্ছে না কেন?" পেট্রোল-ডিজেলের পাশাপাশি ভোজ্য তেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ম কেন্দ্রের সমালোচনা করেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, " কেন্দ্রীয় সরকার দাবি করছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সেই সমস্ত জায়গা থেকে সূর্যমুখী তেল আমদানি বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এমনটা হলে প্রয়োজনে সরকারকে অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করে আমদানির ব্যবস্থা করতে হবে। তা না করে কেন্দ্রীয় সরকার সাধারণ মানুষের ওপর মূল্যবৃদ্ধির বোঝা চাপিয়ে দিচ্ছে।" অধীর চৌধুরীর বলেন, শুধুমাত্র সূর্যমুখী তেল নয় দাম বাড়ছে সরষের তেল,  পাম তেলেরও।

আরও পড়ুন : খোদ কলকাতায় তথ্য লুকিয়ে ফাঁপড়ে স্কুল, পুলিশ পাঠিয়ে কড়া নির্দেশ হাই কোর্টের!

কেন্দ্রীয় সরকারের পাশাপাশি নয়াদিল্লিতে সাংবাদিক সম্মেলনে রাজ্য সরকার কেউ একহাত নেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। তার অভিযোগ বর্তমানে ধর্ষণের পীঠস্থানে পরিণত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। তিনি বলেন, " সারদা মায়ের বাংলা, ভগিনী নিবেদিতার বাংলা আজ ধর্ষণের বাংলায় পরিণত হয়েছে।" অধীর চৌধুরীর অভিযোগ, দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কি সরাসরি পুলিশকে নির্দেশ দিতে পারবেন? তিনি বলেন, " শুধুমাত্র হাঁসখালি নয় রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রতিদিন ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। রাজ্যের দলিত এবং নাবালিকা অর্থাৎ দুর্বল শ্রেণীর উপরে অত্যাচার এর সংখ্যা বাড়ছে।"

RAJIB CHAKRABORTY

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Adhir choudhuri

পরবর্তী খবর