corona virus btn
corona virus btn
Loading

নাগরিকত্ব পেতে দিতে হতে পারে ‘ধর্মের প্রমাণপত্র’

নাগরিকত্ব পেতে দিতে হতে পারে ‘ধর্মের প্রমাণপত্র’

নাগরিকত্ব পাওয়ার ক্ষেত্রে যে ধর্ম অন্যতম মুখ্য শর্ত তা আরও একবার স্পষ্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ওই আধিকারিকের বক্তব্য থেকে

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:  দেশজুড়ে চলছে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ-আন্দোলন ৷ একইসঙ্গে বিজেপি শীর্ষ নেতা থেকে রাজ্য নেতারা এই আইনের সমর্থনে প্রাণপণ প্রচারে ব্যস্ত ৷ তারই মাঝে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সামনে এল নয়া শর্ত ৷ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এক শীর্ষ আধিকারিক মঙ্গলবার জানিয়েছে, নাগরিকত্বের আবেদন জানাতে জমা দিতে হবে ধর্মের প্রমাণপত্র ৷ নাগরিকত্ব পাওয়ার ক্ষেত্রে যে ধর্ম অন্যতম মুখ্য শর্ত তা আরও একবার স্পষ্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের ওই আধিকারিকের বক্তব্য থেকে ৷ তিন দেশ থেকে আসা অমুসলিম নাগরিকরা ভারতের নাগরিকত্বের জন্য আর্জি জানালে তাদের ধর্মের প্রমাণ পত্রেরও সঙ্গে সঙ্গে এও প্রমাণ করতে দবে যে তারা ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগেই ভারতে এসেছেন ৷ সংসদে শীঘ্রই শুরু হতে চলেছে বাজেট অধিবেশন ৷ শেষ অধিবেশনেই পাশ হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ৷ ওই বিলে বলা হয়, ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বরের আগে যেসব অমুসলিম মানুষেরা অর্থাৎ হিন্দু, শিখ, খ্রিস্টান, বৌদ্ধ, জৈন এবং পার্সি সম্প্রদায়ভুক্ত বাংলাদেশ ও আফগানিস্থান থেকে ভারতে এসে আশ্রয় নিয়েছেন, তাঁদের নাগরিকত্ব দেবে সরকার। তখনই মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষদের বাদ দেওয়া নিয়ে প্রতিবাদ উঠে সমাজের বিভিন্ন স্তর থেকে ৷ সিএএ আইনের বিরোধীদের মূল দাবি, ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্রের পরিপন্থী, সংবিধান বিরুদ্ধ এই নাগরিকত্ব আইন ৷

একইসঙ্গে প্রশ্ন ওঠে কেউ যদি নিজের ধর্মীয় পরিচয় লুকিয়ে আবেদন করে , তাহলে কী হবে? সেই নিয়ে নাগরিকত্ব আইনের শর্ত স্পষ্ট করতেই এদিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক জানায়, নাগরিকত্বের আবেদনপত্রের সঙ্গেই জমা দিতে হবে ধর্মের প্রমাণপত্র ৷ অসমের ক্ষেত্রে নাগরিকত্বের আবেদনের জন্য বিশেষ শর্ত চাপিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ৷ এদিন মন্ত্রক জানিয়েছে, অসমে থাকা শরণার্থীদের কাছে আবেদনের জন্য সময় রয়েছে মাত্র ৩ মাস ৷ তার মধ্যে আবেদন না করা হলে মিলবে না নাগরিকত্ব ৷

Published by: Elina Datta
First published: January 28, 2020, 4:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर