Home /News /national /
Bharat Biotech Covaxin Proven Safe for Children: ২ থেকে ১৮ বছর বয়সী সকলের জন্য সম্পূর্ণ নিরাপদ কোভ্যাক্সিন! জানাল ভারত বায়োটেক

Bharat Biotech Covaxin Proven Safe for Children: ২ থেকে ১৮ বছর বয়সী সকলের জন্য সম্পূর্ণ নিরাপদ কোভ্যাক্সিন! জানাল ভারত বায়োটেক

Corona Vaccination

Corona Vaccination

Covaxin Vaccine: সংস্থাটির দাবি, তাদের কাছে ৫০ মিলিয়নেরও বেশি ডোজের কোভ্যাক্সিন মজুত রয়েছে।

  • Share this:

    Covid Vaccination: ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড শুক্রবার জানিয়েছে, তাদের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কোভ্যাক্সিন দ্বিতীয়/তৃতীয় পর্বের গবেষণায় ২-১৮ বছর বয়সী শিশু এবং কিশোর-কিশোরীদের জন্য নিরাপদ, সুসহনীয় এবং অত্যন্ত ইমিউনোজেনিক বলে প্রমাণিত হয়েছে। কোম্পানিটি জুন ২০২১ থেকে সেপ্টেম্বর ২০২১ এর মধ্যে ২-১৮ বছর বয়সী সুস্থ শিশু এবং কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে কোভ্যাক্সিনের নিরাপত্তা, প্রতিক্রিয়াশীলতা এবং ইমিউনোজেনিসিটির মূল্যায়ন করার জন্য দ্বিতীয়/তৃতীয় পর্যায়, ওপেন-লেবেল এবং মাল্টিসেন্টার পরীক্ষা করেছে, এক বিবৃতিতে জানিয়েছে ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড। “গবেষণাটি গৃহীত হয়েছে এবং ল্যানসেট ইনফেকশাস ডিজিজ, পিয়ার-রিভিউড হাই ইমপ্যাক্ট ফ্যাক্টর জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে,” জানিয়েছে কোম্পানি।

    আরও পড়ুন- অগ্নিপথের বিক্ষোভে পুড়ে ছাই একাধিক ট্রেন, মোট কত টাকার ক্ষতি হল জানাল ভারতীয় রেল

    পেডিয়াট্রিক জনসংখ্যার মধ্যে পরিচালিত ক্লিনিকাল ট্রায়ালটিতে নিরাপত্তা, কম রিঅ্যাক্টোজেনিক এবং শক্তিশালী ইমিউনোজেনিসিটির প্রমাণ মিলেছে। তথ্যটি ২০২১ সালের অক্টোবরে সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশনে (CDSCO) জমা দেওয়া হয়েছিল এবং ৬-১৮ বছর বয়সী শিশুদের জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদনও পেয়েছে বলে জানানো হয়েছে বিবৃতিতে। “বাচ্চাদের জন্য ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং আমরা বিষয়টি জানাতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত যে Covaxin শিশুদের নিরাপত্তা এবং ইমিউনোজেনিসিটির তথ্য প্রমাণ করেছে,” জানিয়েছে ভারত বায়োটেক।

    আরও পড়ুন- অগ্নিপথ 'দিশাহীন'! হাসপাতাল থেকেই বিক্ষোভকারীদের বার্তা দিলেন সনিয়া গান্ধি!

    “আমরা এখন প্রাথমিক টিকাকরণ এবং বুস্টার ডোজের জন্য প্রাপ্তবয়স্কদের এবং শিশুদের জন্য একটি নিরাপদ এবং কার্যকরী COVID-19 ভ্যাকসিন তৈরি করার লক্ষ্য অর্জন করেছি, কোভ্যাক্সিন এখন একটি সর্বজনীন ভ্যাকসিন৷ এটি ভারতে শিশুদের দেওয়া ৫০ মিলিয়নেরও বেশি ডোজের ভ্যাকসিনের তথ্যের উপর ভিত্তি করে একটি অত্যন্ত নিরাপদ ভ্যাকসিন হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে,” বলেন ভারত বায়োটেকের চেয়ারম্যান এবং এমডি কৃষ্ণ এলা। ভারত বায়োটেক গবেষণায় জানিয়েছে, কোনও গুরুতর প্রতিকূল ঘটনার খবর মেলেনি। মোট ৩৭৪টি প্রতিকূল ঘটনা রিপোর্ট করা হয়েছিল, এবং বেশিরভাগ প্রতিকূল ঘটনাই হালকা প্রকৃতির ছিল এবং এক দিনের মধ্যে তার সমাধান করা হয়েছিল। ইনজেকশন নেওয়ার জায়গাতে ব্যথার কথাই সবচেয়ে বেশি জানা গিয়েছে। সংস্থাটির দাবি, তাদের কাছে ৫০ মিলিয়নেরও বেশি ডোজের কোভ্যাক্সিন মজুত রয়েছে।

    Published by:Madhurima Dutta
    First published:

    Tags: Corona vaccination, Corona Virus COVID 19

    পরবর্তী খবর