জেলের অত্যাচারেই ক্যানসার হয়েছিল সাধ্বীর, দাবি করলেন বাবা রামদেব

জেলের অত্যাচারেই ক্যানসার হয়েছিল সাধ্বীর, দাবি করলেন বাবা রামদেব
photo: Baba Ramdev
  • Share this:

#নয়া দিল্লি: ভোপালের বিজেপি প্রার্থীপদে তার নাম ঘোষণার পর থেকেই একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্যে জড়িয়েছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর৷ বার বারই তার হয়ে সাফাই দিতে এগিয়ে এসেছেন বিজেপি নেতৃত্ব৷ এবার সাধ্বী প্রজ্ঞার হয়ে মুখ খুললেন যোগগুরু বাবা রামদেব৷ সাধ্বী প্রজ্ঞাকে প্রকৃত জাতীয়তাবাদী আখ্যা দিয়ে বাবা রামদেব তার ক্যানসার হওয়ারও ব্যাখ্যা দেন৷

২০০৮ সালে মালেগাঁও বিস্ফোরণের মূল অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা ৯ বছর জেল খেটেছেন৷ সেই সময়ই অত্যাচারে তার ক্যানসার হয়েছিল বলে দাবি করেন রামদেব৷ তাঁর কথায়, "এটা পাপের চরম সীমা৷ কোনও নির্দোষ মানুষকে শুধুমাত্রা সন্দেহের বশে গ্রেফতার করে টানা ৯ বছর ধরে অত্যাচার করা হয়েছে৷ এই অত্যাচার তার ওপর এতটাই মানসিক ও শারীরিক চাপ সৃষ্টি করেছিল যে শরীরে বাসা বেঁধেছিল দুরারোগ্য ক্যানসার৷ সাধ্বী সন্ত্রাসবাদী নয়, ও একজন জাতীয়তাবাদী৷"

এদিন পটনা সাহিব কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থী পদে মনোনয়ন জমা দেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ৷ তার সঙ্গেই ছিলেন যোগগুরু৷ সেখানেই সাংবাদিকরা তাকে ২৬/১১ মুম্বই হামলায় এটিএস প্রধান হেমন্ত করকরের মৃত্যু প্রসঙ্গে সাধ্বী প্রজ্ঞার বিতর্কিত মন্তব্য সম্পর্কে প্রশ্ন করলে উত্তরে রামদেব বলেন, প্রজ্ঞার প্রতি আমাদের সহানুভূতি দেখানো উচিত৷ আমাদের বোঝা উচিত একজন মহিলা কতটা কষ্ট পেলে তার মধ্যে এমন তিক্ততা জন্মাতে পারে৷

প্রসঙ্গত, তাঁর অভিশাপেই হেমন্ত করকরের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা৷ এমনকী, গোমূত্র খেয়ে তার ক্যানসার সেরে গিয়েছে বলেও প্রজ্ঞার দাবি৷ যদিও, মুম্বইয়ের জে জে হাসপাতাল সূত্রে খবর আদপেও সাধ্বীর ক্যানসার হয়নি৷

আগামী ১২ মে ভোপাল ভোপালে ভোটগ্রহণ৷ বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং-এর বিরুদ্ধে লড়বেন সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর৷

First published: 10:20:28 AM Apr 27, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर