corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘‌আপন তো আপনই‌’‌, সচিন পাইলটের সঙ্গে ঝামেলা মিটিয়ে মন্তব্য অশোক গেহলটের

‘‌আপন তো আপনই‌’‌, সচিন পাইলটের সঙ্গে ঝামেলা মিটিয়ে মন্তব্য অশোক গেহলটের

অশোক গেহলট সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‌যা হয়েছে, তা ফেলে রেখে এগিয়ে যাওয়াটাই এখন একমাত্র লক্ষ্য।

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ অশোক গেহলট আর সচিন পাইলট। দু’‌পক্ষে ছিলেন এতদিন। সব দুঃখ যেন হঠাৎ মিটে গেল। আবার দুজনই এখন গলায় গলায়। কংগ্রেস শেষ পর্যন্ত রাজস্থানের ক্রাইসিস ম্যানেজ করে ফেলায় এখন আবার তাঁরা বন্ধু হয়েছেন। সচিনকে আপন করে নিতে চাই আর দু’‌বার ভাবেননি মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটও। তিনি বলছেন, ‘‌আপন তো আপনই’‌। মানে আপন কি আর একটু ঝামেলাতেই পর হয়ে যান?‌ মানে এতদিনের ঝামেলা, সব মিটেছে। এখন শান্তি।

অশোক গেহলট সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘‌যা হয়েছে, তা ফেলে রেখে এগিয়ে যাওয়াটাই এখন একমাত্র লক্ষ্য। তবে এই ১৯ বিধায়ককে ছাড়াও আমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে কোনও অসুবিধা হত না। তবু, তাঁরা ফিরে আসায় আমরা আনন্দ পেয়েছি। আসলে আপন তো আপনই হন, তাই না?‌’‌

কংগ্রেসের বিধায়কদের মিটিংয়ে সচিন পাইলট ও অশোক গেহলট একসঙ্গে বসার পরেই এই কথা বলেন অশোক। বেরিয়ে এসে হাসি মুখে সচিনের সঙ্গে হাতও মেলান। শুক্রবার রাজস্থানের বিধানসভায় অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে বিজেপি। বড় অঘটন না ঘটলে সেদিন কংগ্রেসের সরকার টিকে যাবে। আর সেই দিনের আগেই নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করতে একসঙ্গে এলেন কংগ্রেসের সব পক্ষের নেতারা। এদিন ক্যামেরার সামনে হাসি মুখে হাত মেলাতে দেখা গেল অশোক গেহলট, সচিন পাইলট, অজয় মাকেন, অবিনাশ পাণ্ডে, কেসি বেণুগোপালদের। মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবনে এদিন মিলিত হয়েছিলেন তাঁরা।

গত সোমবার রাহুল গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীদের সঙ্গে দেখা করেন সচিন পাইলট। সেখান থেকেই বেরিয়ে আসে রফাসূত্র। ঘরের ছেলে ঘরে ফেরেন। অর্থাৎ কংগ্রেসেই যে তিনি আছেন, তা মোটামুটি স্পষ্ট করে দেন সচিন। তারপর থেকেই আরও আত্মবিশ্বাসী দেখাচ্ছে রাজস্থানের কংগ্রেস শিবিরকে।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: August 13, 2020, 8:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर