শ্বশুরের সঙ্গেও সহবাস! নিকাহ হালালের বিরুদ্ধে মুখ খুলে হুমকির মুখে মহিলা

শ্বশুরের সঙ্গেও সহবাস! নিকাহ হালালের বিরুদ্ধে মুখ খুলে হুমকির মুখে মহিলা

ছবিটি প্রতীকী, ছবি সংগৃহীত

আগামী ২০ জুলাই নিকা হালাল প্রথাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা একটি পিটিশনের শুনানি শুরু করবে সুপ্রিম কোর্ট ৷

  • Share this:

    #বরেলি: নিকাহ হালাল প্রথা নিয়ে যখন সুপ্রিম কোর্ট শুনানি শুরুর তোড়জোড় করছে, তখন উত্তরপ্রদেশের বারেলিতে এক মহিলাকে জোর করে সহবাসে বাধ্য করা হল তাঁর শ্বশুরের সঙ্গে ৷ ওই মহিলার অভিযোগ, তাঁকে একাধিক বার তালাক দেওয়া হয়েছে এবং একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে সহবাসে বাধ্য করা হয়েছে ৷

    বারেলির বাসিন্দা শাবিনা জানিয়েছেন, তিনি এই প্রথার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতেই, তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয় ৷ তাঁর সঙ্গে ঘটা নির্মম ঘটনাগুলি বলতে গিয়ে শাবিনা জানান, তাঁকে প্রথমে তাঁর স্বামী তালাক দেন৷ তারপর নিকা হালালার জন্য শ্বশুরের সঙ্গে বিয়েতে বাধ্য করা হয় ৷ শ্বশুরের থেকে বিচ্ছেদ সম্মতি পাওয়ার পর ফের প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিয়ে করতে হয় তাঁকে ৷

    এখানেই শেষ নয় ৷ প্রথম স্বামী পরে আবার তাঁকে তালাক দেন ৷ এ বার নিকা হালাল প্রথায় তাঁকে বিয়ে করতে হয় দেওরকে ৷ আর পারছিলেন না শাবিনা ৷ প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন ৷ তিনি এই নিয়ে স্থানীয় একটি মসজিদের এক মৌলবির কাছে যান৷ কিন্তু মৌলবি তাঁকে বলেন, শরিয়ত আইনের বাইরে গেলে তিনি আর মুসলিম থাকবেন না ৷

    আগামী ২০ জুলাই নিকা হালাল প্রথাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে করা একটি পিটিশনের শুনানি শুরু করবে সুপ্রিম কোর্ট ৷

    First published: