Home /News /national /
Home Ministry Directs States to increase security: ব্যাপক আন্দোলনের আশঙ্কা? এ রাজ্যে স্টেশনে নিরাপত্তা বাড়াতে নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

Home Ministry Directs States to increase security: ব্যাপক আন্দোলনের আশঙ্কা? এ রাজ্যে স্টেশনে নিরাপত্তা বাড়াতে নির্দেশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের

Agnipath Violence

Agnipath Violence

Agnipath Protest: অগ্নিপথ সেনা নিয়োগ প্রকল্প প্রত্যাহারের দাবিতে আরও ব্যাপক আন্দোলনের আশঙ্কা টের পাচ্ছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক!

  • Share this:

Agnipath Agitation: অগ্নিপথ সেনা নিয়োগ প্রকল্প প্রত্যাহারের দাবিতে আরও ব্যাপক আন্দোলনের আশঙ্কা টের পাচ্ছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক! তাই আগেভাবেই সারা দেশজুড়েই নিরাপত্তার বেষ্টনী কড়া করার নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। রেল স্টেশন, জাতীয় সড়ক, সরকারি অফিসগুলিতে নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে মন্ত্রকের তরফে। কলকাতা, দিল্লি, মুম্বই, চেন্নাইয়ের পুলিশ কমিশনারদের চিঠি পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের পক্ষ থেকে। শুধু তাই নয়, বাংলার মুখ্যসচিবের পাশাপাশি প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যসচিবকেও চিঠি দিয়েছে মন্ত্রক। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভারত বনধের ডাকের পাশাপাশি দিল্লির জন্তর মন্তরে ২০ তারিখ বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে আন্দোলনকারীরা। তার পরিপ্রেক্ষিতে এই চার রাজ্যের পুলিশের কমিশনারদের বিশেষভাবে সতর্ক করল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন- কেন্দ্রের বড় ঘোষণা! আধাসামরিক বাহিনী ও অসম রাইফেলসে অগ্নিবীরদের ১০% সংরক্ষণ!

শুধু সতর্কতাই নয়, অগ্নিপথ সশস্ত্র বাহিনী নিয়োগ প্রকল্পের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দমনের উদ্দেশ্যে, আধা সামরিক বাহিনী এবং অসম রাইফেলসে অগ্নিবীরদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ ঘোষণাও করেছে কেন্দ্র! স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দফতরের একটি ট্যুইটের মাধ্যমে এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয়েছে। “স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক (MHA) সিএপিএফ এবং অসম রাইফেলে অগ্নিবীরদের নিয়োগের জন্য ১০% শূন্যপদ সংরক্ষণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে,” বলা হয়েছে ওই ট্যুইটে।

দ্বিতীয় একটি ট্যুইটে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এই নিয়োগকারীদের জন্য বয়সের ঊর্ধ্বসীমা শিথিল করার ঘোষণাও করেছে। যদিও সিএপিএফ এবং অসম রাইফেলসে নিয়োগ হতে ইচ্ছুক অগ্নিবীরদের জন্য নির্ধারিত বয়সের ঊর্ধ্বসীমায় তিন বছরের ছাড় ঘোষণা করা হলেও, প্রথম ব্যাচের জন্য, বয়সের নির্ধারিত ঊর্ধ্বসীমাকে বাড়িয়ে পাঁচ বছর করা হবে বলেও জানিয়েছে মন্ত্রক।

আরও পড়ুন- কৃষি আইন তুলে কেন্দ্রকে খোঁচা, অগ্নিপথও প্রত্যাহার করতেই হবে, দাবি রাহুল গান্ধির

শুক্রবার সেকেন্দ্রাবাদ রেল স্টেশনে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ গুলি চালালে একজনের মৃত্যু হয় এবং আরও আটজন আহত হন। দক্ষিণ মধ্য রেলের এক কর্মকর্তা জানান, আন্দোলনকারীরা তিনটি যাত্রীবাহী ট্রেনের কয়েকটি বগিতে আগুন ধরিয়ে দেয় এবং এই ঘটনায় যাত্রীদের কেউ আহত হননি। শুক্রবার বিহারেও হিংসা তীব্রতর হয়ে ওঠে! লক্ষ্মীসরাই ও সমস্তিপুর স্টেশন এবং রাজ্যের মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষুব্ধ প্রার্থীরা নতুন দিল্লি-ভাগলপুর বিক্রমশিলা এক্সপ্রেস এবং নয়া দিল্লি-দারভাঙ্গা বিহার সম্পর্কক্রান্তি এক্সপ্রেসের অন্তত ২০ টি বগিতে আগুন লাগিয়ে দেয়।

চার বছরের জন্য সশস্ত্র বাহিনীতে নিয়োগ এবং তারপরে কোনও পেনশনের সুবিধা ছাড়াই কমপক্ষে ৭৫ শতাংশ কর্মীদের বাধ্যতামূলক অবসরের কথা বলায় অগ্নিপথ প্রকল্প অবিলম্বে বাতিলের দাবিতে বিক্ষুব্ধ প্রার্থীদের দল রাস্তায় নেমেছেন।

Published by:Madhurima Dutta
First published:

Tags: Agnipath, Agnipath Scheme Protest

পরবর্তী খবর