CRPF Jawan Rakeshwar Singh Released: কেমন ছিল মাও ডেরার পাঁচদিন? News 18-কে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা জানালেন জওয়ান রাকেশ্বর

CRPF Jawan Rakeshwar Singh Released: কেমন ছিল মাও ডেরার পাঁচদিন? News 18-কে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা জানালেন জওয়ান রাকেশ্বর

নকশালদের ডেরায় কেমন কেটেছিল অপহরণের পাঁচদিন, CRPF জওয়ান রাকেশ্বর সিং মুক্তির পর জানালেন News18-কে!

৩ এপ্রিল ছত্তিসগঢ়ের বিজাপুর-সুকমা জেলার সীমান্তে নকশালদের সঙ্গে জওয়ানদের একটি সংঘর্ষে ২২ জন জওয়ান শহিদ হন এবং ৩১ জন আহত হন।

  • Share this:
#ছত্তিশগড়: কয়েকদিনের যাবতীয় উৎকণ্ঠা দূর করে অবশেষে নকশালরা মুক্তি দিলেন অপহৃত CRPF জওয়ান রাকেশ্বর সিং মানহাসকে (Rakeshwar Singh Manhas)। উল্লেখ্য যে, ৩ এপ্রিল ছত্তিশগড়ের বিজাপুর-সুকমা জেলার সীমান্তে নকশালদের সঙ্গে জওয়ানদের একটি সংঘর্ষে ২২ জন জওয়ান শহিদ হন এবং ৩১ জন আহত হন। এছাড়া এক জওয়ানকে অপহরণ করে নকশালরা। আর অপহরণের পাঁচ দিন পর বৃহস্পতিবার মুক্তি পেলেন কোবরা কমান্ডো রাকেশ্বর সিং। এক কর্মকর্তা বলেন, রেজোলিউশন অ্যাকশন (সিবিআরএ) কনস্টেবল রাকেশ্বর সিং মানহাসের ২১০তম কমান্ডো ব্যাটালিয়ন মুক্তির জন্য, রাজ্য সরকার দুই শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিকে নকশালদের সঙ্গে আলোচনার জন্য মনোনীত করার পরেই মুক্তি পান ওই জওয়ান। জানা যায় যে, রাজ্য সরকারের মনোনীত দুই সদস্যের মধ্যে একজন সদস্য ছিলেন আদিবাসী সম্প্রদায়ের। এদিন মুক্তির পরে, News18-কে জওয়ান রাকেশ্বর সিং জানান, কী ভাবে শেষ পাঁচ দিন নকশালদের ডেরায় তাঁর কেটেছে। এই পাঁচ দিনে নকশালরা আপনার সঙ্গে কেমন আচরণ করেছিল? রাকেশ্বর সিং: নকশালরা আমাকে খাবার দিয়েছিল এবং তারা বলেছিল যে, আপনাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। আজ ছেড়েও দিল। আপনি কী ভাবে তাদের খপ্পরে পড়েছেন? রাকেশ্বর সিং: যে দিন ঘটনাটি হয়েছিল সে দিন মানে ৪ এপ্রিল আমি জঙ্গলে ঘুরতে ঘুরতে ওদের খপ্পরে পড়েছিলাম। আপনি কি অজ্ঞান অবস্থায় নকশালদের হাতে পড়েছিলেন? রাকেশ্বর সিং: না, আমি তখন অজ্ঞান ছিলাম না। ৩ তারিখের সংঘর্ষের পর আমি অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলাম। আর ৪ এপ্রিল যখন ওরা আমায় অপহরণ করে তখন অজ্ঞান ছিলাম না। কতগুলো অঞ্চল এবং কতগুলো গ্রাম আপনাকে ঘোরানো হয়েছিল? রাকেশ্বর সিং: আমি জানি না, আমার চোখ বাঁধা ছিল। আপনার হাতও বাঁধা ছিল? রাকেশ্বর সিং: হ্যাঁ। আপনি সময় মতো খাবার পেয়েছিলেন? রাকেশ্বর সিং: হ্যাঁ, খাবার দিয়েছিল সময় মতো। আপনাকে কি মাওবাদী সংগঠন নির্যাতন করেছিল? রাকেশ্বর সিং: মোটেও না। নকশালরা আপনাকে চাকরি ছেড়ে দেওয়ার কোনও শর্ত দিয়েছিল? রাকেশ্বর সিং: না, এমন কিছুই বলেনি। নকশালরা কোনও শর্ত রেখেছিল? রাকেশ্বর সিং: না, না। নকশালরা কী ধরনের জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল এবং পুলিশ সম্পর্কে কোন ধরনের তথ্য জানতে চেয়েছিল? রাকেশ্বর সিং: কোনও জিজ্ঞাসাবাদ করেনি বা তথ্য জানতে চাওয়া হয়নি। যে দিন নকশালরা আপনাকে অপহরণ করেছিল, তখন কি বলা হয়েছিল যে আপনাকে মুক্তি দেওয়া হবে? রাকেশ্বর সিং: হ্যাঁ, নকশালরা বলেছিল যে মুক্তি দেওয়া হবে। আপনার কি মনে হয়েছিল যে নকশালরা বন্দী অবস্থায় আপনাকে হত্যা করতে পারে? রাকেশ্বর সিং: হ্যাঁ, আমার মনে হয়েছিল। অন্য দিকে, একজন আধাসামরিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন যে, জম্মুর বাসিন্দা এই জওয়ানকে বিজাপুরের কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের তারেম শিবিরে আনা হচ্ছে। এই শিবিরে তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাও হবে। এদিকে জওয়ানের মুক্তির খবর পেয়ে উচ্ছ্বসিত তাঁর পরিবার-পরিজনেরা।
First published: