• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • নোটে লিখে হাত-পা বাঁধার নির্দেশ দিয়েছিল কে ? ভাটিয়াদের ঘনিষ্ঠ তান্ত্রিকের খোঁজ শুরু করল পুলিশ

নোটে লিখে হাত-পা বাঁধার নির্দেশ দিয়েছিল কে ? ভাটিয়াদের ঘনিষ্ঠ তান্ত্রিকের খোঁজ শুরু করল পুলিশ

ভাটিয়াদের বাড়ির সামনে প্রতিবেশীদের ভিড় ৷ ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷

ভাটিয়াদের বাড়ির সামনে প্রতিবেশীদের ভিড় ৷ ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে ৷

ঘর ভর্তি লাশ ! একই পরিবারের ১১ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু ! প্রত্যেকের হাত-পা-মুখ বাঁধা ৷ ১০জন ঝুলছেন সিলিং থেকে ৷ একজন খাটে পড়ে ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ঘর ভর্তি লাশ ! একই পরিবারের ১১ জনের অস্বাভাবিক মৃত্যু ! প্রত্যেকের হাত-পা-মুখ বাঁধা ৷ ১০জন ঝুলছেন সিলিং থেকে ৷ একজন খাটে পড়ে ৷ নয়াদিল্লির বুরারিতে এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনার তদন্তে নেমেছে দিল্লি পুলিশ ৷ প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান ছিল, পরিবারের কোনও এক বা একাধিকজন বাকিদের খুন করে আত্মঘাতী হয়েছেন ৷ কারন প্রাথমিকভাবে খুনের কোনও প্রমাণ পাওয়া যায়নি মৃত ভাটিয়াদের পরিবারে ৷ তাঁদের ঘর থেকে কোনও জিনিসও খোয়া যায়নি ৷ তদন্তে নেমে ওই বাড়ি থেকে বেশকিছু হাতে লেখা নোট পেয়েছে পুলিশ ৷ উদ্ধার হয়েছে বেশকিছু ডায়রিও ৷ পুলিশ সূত্রে খবর, সেই নোটগুলিতে অদ্ভূত কিছু আধ্যাত্মিক কর্মকাণ্ডের কথা বলা রয়েছে ৷ দিল্লি পুলিশের জয়েন্ট কমিশনার অলোক কুমার জানিয়েছেন, ঠিক যেরকম ভাবে ১১টি দেহ বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল, এই নোটগুলিতে একইরকম ভাবে হাত-পা বাঁধার পদ্ধতির বিবরণ পাওয়া গিয়েছে । নোটে লিখে হাত-পা-মুখ বাঁধার পরামর্শ কে দিয়েছিল ? ওই হাতের লেখাটিই বা কার ? খতিয়ে দেখছে দিল্লি পুলিশ ৷

    আরও পড়ুন:  হাত-চোখ-মুখ বাঁধার নির্দেশ দেওয়া ছিল হাতে লেখা নোটে, ১১ জনের মৃত্যুতে মিলল চাঞ্চল্যকর তথ্য

    ওই পরিবারের প্রত্যেকের ফোনের কললিস্টও খতিয়ে দেখা হচ্ছে ৷ নিহতদের মোবাইলের সূত্র ধরে তদন্তে নেমেছে পুলিশ ৷ মৃত কয়েকজন সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় ছিলেন ৷ ইন্টারনেটে তাঁরা কী দেখতেন সে ব্যাপারেও খোঁজ শুরু হয়েছে ৷ ভাটিয়াদের প্রতিবেশীরা সকলেই জানিয়েছেন ওই পরিবার ধার্মিক ছিল ৷ তবে কোনওরকম অস্বাভাবিকতা তাঁরা লক্ষ্য করেননি ৷ কিন্তু হাতের লেখা নোটগুলি থেকে ভাটিয়ারা আকাল্ট অভ্যাস করতেন বলে মনে করছে পুলিশ ৷ ভাটিয়া পরিবারের ঘনিষ্ঠ তান্ত্রিকের খোঁজও শুরু হয়েছে ৷ উদ্ধার হওয়া নোটগুলিতে একজন চোখ-মুখ আচ্ছাদনের সাহায্যে কীভাবে ভয় অতিক্রম করতে পারেন এই কথা লেখা আছে । এছাড়াও কীভাবে একজন মোক্ষলাভ করতে পারেন, সে কথাও রয়েছে ৷ মানুষের শরীর ক্ষণস্থায়ী হলেও, আত্মা অবিনশ্বর এই ধরনের কথা বিস্তারিত ভাবে লেখা আছে ওই নোটগুলিতে । কীভাবে মানুষ এইসব আধ্যাত্মিক ক্রিয়াকলাপের সাহায্যে সকলপ্রকার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন, তার কথাও লেখা আছে নোটগুলিতে ।

    আরও পড়ুন: নীরব মোদিকে ফেরত আনতে এবার রেড কর্নার নোটিশ জারি করল ইন্টারপোল

    First published: