Home /News /nadia /
Nadia News: রাস্তার উপরে পাঁচিল তোলাকে কেন্দ্র করে শিশু সহ পরিবারের ওপর আক্রমনের অভিযোগ

Nadia News: রাস্তার উপরে পাঁচিল তোলাকে কেন্দ্র করে শিশু সহ পরিবারের ওপর আক্রমনের অভিযোগ

Nadia News: Allegations of attack on a family for a wall

Nadia News: Allegations of attack on a family for a wall

রাস্তার পাশে পাঁচিল তোলাকে কেন্দ্র করে বচসা, তার জেরেই গুরুতর জখম হন একই পরিবারের শিশুসহ দুইজন সদস্য

  • Share this:

    #নদিয়া: রাস্তার পাশে পাঁচিল তোলাকে কেন্দ্র করে প্রতিবাদ করায় মা বাবা এবং এক ১০ বছরের শিশুকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলায় কোপ দেওয়ার অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার গাংনাপুর থানার আইশমালী পুরাতন পাড়ায়। ঘটনার বিবরনে জানা যায় গৌতম ওরফে সমীর ভৌমিক নামে তার রাস্তার পাশে বেআইনী পাঁচিল দেওয়াকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা। পাঁচিল তুলতে গেলে ওই গ্রামের প্রতিবেশী সকলেই গৌতম ভৌমিককে বাধা দেয়। কিন্তু গৌতম তা না শুনে তার দলবল নিয়ে শিশুটির বাবা নরোত্তম বিশ্বাস মা পুজা বিশ্বাসের উপর চড়াও হয়। এরপর রাতে ওই ১০ বছরের শিশু তার দাদুর সাথে বাজারে যাবার পর ফিরে আসার সময় ওই শিশুটিকে ধারালো ছুরি দিয়ে গলাই কোপ মারে বলে অভিযোগ। গতকাল রাতে আইশমালী পুরাতনপাড়ায় এই ঘটনায় শিশুটিকে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও পরে তার শরীরের অবনতি হওয়ায় তাকে পড়ে রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসক জানিয়েছেন তার মাথায় স্ক্যান করাতে হবে। বর্তমানে সুস্থ রয়েছেন আক্রান্ত পরিবারের সদস্যরা। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এর আগে একটি মামলা দায়ের হয়েছিল তারই প্রেক্ষিতে ওই শিশুর উপর হামলা বলে প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার জেরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। সামান্য একটি পাঁচিল তোলাকে কেন্দ্র করে পরিবার ও বিশেষ করে ১০ বছরের একটি শিশুকে আক্রমণের ফলে রীতিমতো ক্ষুব্ধ পরিবারসহ এলাকাবাসীরাও।

    আরও পড়ুন - Bold and Beautiful: বৃষ্টিতে ভিজে একাকার, গোলাপি শাড়িতে উরফির লাস্য! ভাইরাল

     স্থানীয় রানাঘাট থানায় দারস্ত হয়েছেন নির্জাতিতা ওই পরিবারের সদস্যরা। দোষীদের বিরুদ্ধে রানাঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিতা পরিবার। দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবী তোলেন ওই শিশুর পরিবার। অন্যদিকে এই ঘটনায় ওই এলাকার দাপুটে গৌতম ভৌমিক এবং তার দলবলের ভয়ে আতঙ্কে দিন গুনছেন তারা। এককথায় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলে জানান ওই পরিবার। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রানাঘাট থানার পুলিশ।
    Mainak Debnath
    First published:

    Tags: Family, Nadia

    পরবর্তী খবর