Home /News /nadia /
Nadia News|| ফের প্রতারণা, ভুয়ো ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের ফোন ধরতেই গায়েব হাজার হাজার টাকা

Nadia News|| ফের প্রতারণা, ভুয়ো ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের ফোন ধরতেই গায়েব হাজার হাজার টাকা

Retired railway worker Bank fraud: রাষ্ট্রায়ত্ত একটি ব্যাঙ্কের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে ভুয়ো ফোন আসার পরে দু'দিনে বেশ কয়েক ক্ষেপে ৬৪,২৬৪ টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গেল অবসরপ্রাপ্ত এক রেল কর্মীর। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার নবদ্বীপে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #নদিয়া: মানুষের রোজগার যত কমছে, তত বাড়ছে প্রতারণার ঘটনা। সাধারণ মানুষের কষ্ট করে উপার্জন করার টাকা ছলে বলে কৌশলে চলে যাচ্ছে অসাধু ব্যক্তিদের হাতে। ঠিক তেমনই এক নিদর্শন ঘটল নদিয়ার নবদ্বীপে।

    রাষ্ট্রায়ত্ত একটি ব্যাঙ্কের অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে ভুয়ো ফোন আসার পরে দু'দিনে বেশ কয়েক ক্ষেপে ৬৪,২৬৪ টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গেল অবসরপ্রাপ্ত এক রেল কর্মীর। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার নবদ্বীপে। জানা গিয়েছে, নবদ্বীপ পুরসভার দু-নম্বর ওয়ার্ডের বুড়োশিবতলা ব্যানার্জি পাড়া এলাকার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত রেল কর্মী ৬২ বছর বয়সী অভিজিৎ ভট্টাচার্যের ফোনে গতকাল ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে এক অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি ফোন করে তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ও এটিএম কার্ড ব্লক হয়ে গিয়েছে বলে জানান। এবং অভিজিৎ বাবুর কাছে অ্যাকাউন্ট নাম্বার ও এটিএম কার্ড নাম্বার জানতে চাইলে তিনি বিশ্বাস করে অজ্ঞাত পরিচয় ওই ব্যক্তিকে সবিস্তারে জানিয়ে দেন।

    আরও পড়ুন: গোটা দেশ ঘুরে মেলেনি সাফল্য, বীরভূমেই IVF পদ্ধতিতে মাতৃত্বের স্বাদ পেলেন মহিলা, ন্যূনতম খরচ

    আরও পড়ন: 'মন্ত্রিত্ব ছাড়বেন?' সংক্ষিপ্ত জবাবে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন পার্থ

    এরপর এ দিনই প্রথমে তিন ধাপে ১০ হাজার টাকা করে তার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে যায়। এরপর আজ ফের প্রথমে ১০ হাজার টাকা এবং পরে ২৪ হাজার ২৬৪ টাকা কেটে নেওয়া হয় অবসরপ্রাপ্ত ওই রেল কর্মীর  অ্যাকাউন্ট থেকে। প্রতারিত হয়েছেন তিনি, বিষয়টি বুঝতে পেরে এরপর অভিজিৎ বাবু প্রথমে ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, এবং পরে নবদ্বীপ থানায় এসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিজিৎ ভট্টাচার্যের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সম্পূর্ণ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।

    উল্লেখ্য, প্রতিনিয়তই বাড়ছে টাকা জালিয়াতি এবং প্রতারণার ঘটনা। প্রশাসন থেকে একাধিকবার বিভিন্নভাবে বিভিন্ন উপায়ে সতর্ক করা হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। তবুও বিভিন্ন উপায়ে টাকা হাতানোর কাজ চলছেই। ব্যাঙ্ক থেকে বারংবার বলা হয়েছে ব্যাঙ্কের ম্যানেজার বা কর্মীরা, গ্রাহককে সাধারণত কখনও ফোন করে কোনওরকম গোপন তথ্য চান না। যদি কখনও এ রকম ভুয়ো ফোন আসে তৎক্ষণাৎ প্রশাসনকে অভিযোগ জানাতে বারবার বলা হয়েছে ব্যাঙ্কের তরফ থেকে। Mainak Debnath

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Bank Fraud Case, Nadia

    পরবর্তী খবর