Home /News /nadia /
Nadia: দীর্ঘদিন ধরে স্টেশনে ভাঙা শেড, অসুবিধায় নিত্যযাত্রীরা

Nadia: দীর্ঘদিন ধরে স্টেশনে ভাঙা শেড, অসুবিধায় নিত্যযাত্রীরা

নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জ এর মাজদিয়া রেলস্টেশনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি রেলস্টেশন। প্রতিদিন হাজার হাজার নিত্যযাত্রীরা এই স্টেশন থেকে লোকাল ট্রেন ধরে তাদের গন্তব্যস্থলে যান।

  • Share this:

    #মাজদিয়া: নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জ এর মাজদিয়া রেলস্টেশনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি রেলস্টেশন। প্রতিদিন হাজার হাজার নিত্যযাত্রীরা এই স্টেশন থেকে লোকাল ট্রেন ধরে তাদের গন্তব্যস্থলে যান। এছাড়াও এই স্টেশন থেকে যাওয়া যায় সীমান্তবর্তী এলাকা গেদে তে। মাছধরা স্টেশন থেকে প্রতিদিন সকালে বহু শাকসবজি ফলমূল পাঠানো হয়ে থাকে শহরতলিতে। সেই কারণেই মাজদিয়া রেল স্টেশনকে খুবই গুরুত্বপূর্ণ রেলস্টেশন হিসেবে ধরা হয়। সেই মাজদিয়া রেলস্টেশনেরই একটি শেড দীর্ঘদিন ধরেই ভাঙা অবস্থায় রয়েছে। বর্তমানে বর্ষার কারণে বৃষ্টি হলেই সেই ভাঙ্গা শেড দিয়ে জল পড়ে। ফলে বৃষ্টির জন্য নিত্যযাত্রীরা ট্রেন ধরার জন্য শেডের তলায় আশ্রয় নিতে অসুবিধা বোধ করছেন বলে জানান। নিত্যযাত্রীদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে মাজদিয়া রেলস্টেশনের শেডটি ভাঙ্গা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তারা জানান, রেল কর্তৃপক্ষকে জানানোর পরেও এখনও পর্যন্ত শেডটি মেরামত করা হয়নি।

    বর্তমানে গ্রীষ্মকালে সূর্যের অতিরিক্ত তাপপ্রবাহ থেকে রেহাই পেতে ট্রেন ধরার আগে মানুষ স্টেশনের শেডেই আশ্রয় নেন। সেই শেড দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে ভাঙ্গা এবং বর্ষাকালে অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে ভাঙার শেডের অংশ দিয়ে বৃষ্টির জল সরাসরি পড়ছে স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে। যার ফলে স্টেশনের ট্রেন ধরতে গিয়ে অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে নিত্যযাত্রীরা।

    আরও পড়ুনঃ দীর্ঘদিন ধরে পরিশ্রুত পানীয় জল না মেলায় ক্ষোভ এলাকাবাসীদের

    এ বিষয়ে মাজদিয়ার এক নিত্যযাত্রী জানান, \" মাজদিয়া স্টেশন থেকে বহু মানুষ প্রতিদিন ট্রেন ধরে কলকাতা ও অন্যান্য জায়গায় যান। বিশেষত সকালে অফিস টাইমে অত্যন্ত ভিড় থাকে। সেই সময় হঠাৎ করে বৃষ্টি শুরু হয়ে গেলে প্রতিটা স্টেশনের শেডের নিচেই বৃষ্টির থেকে বাঁচতে মানুষকে আশ্রয় নিতে হয়। তবে এই ভাঙা শেডের তলায় আশ্রয় নিতে পারেন না নিত্যযাত্রীরা। সেই কারণে অন্যান্য শেড গুলিতে নিত্য যাত্রীদের অত্যন্ত ভিড় থাকে।

    আরও পড়ুনঃ ৩৫০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করল ভীমপুর থানার পুলিশ

    ফলে অসুবিধায় পড়তে হচ্ছে তাদের। রেল কর্তৃপক্ষকে বেশ কয়েকবার জানানো হয়েছে। তারা আশ্বাস দিলেও এখনও পর্যন্ত মেরামত করা হয়নি ওই ভাঙা শেডটি।\" যদিও এই বিষয়ে জানার জন্য রেল কর্তৃপক্ষ সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তা সম্ভব হয়নি। সুতরাং এখন দেখার বর্ষার মধ্যেই ভাঙা শেডটি মেরামত করা হয় কবে।

    Mainak Debnath
    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Majdia, Nadia

    পরবর্তী খবর