Home /News /malda /
Malda: অবশেষে চালু হওয়ার পথে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল! খুশির পড়ুয়ারা

Malda: অবশেষে চালু হওয়ার পথে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল! খুশির পড়ুয়ারা

title=

গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের দীর্ঘ দিনের হস্টেল সমস্যার সমাধান হতে চলেছে। সমস্ত কিছু ঠিক থাকলে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই হয়তো চালু হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীর্ঘ প্রতিক্ষিত দুটি হস্টেল।

  • Share this:

    #মালদহ : গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের দীর্ঘ দিনের হস্টেল সমস্যার সমাধান হতে চলেছে। সমস্ত কিছু ঠিক থাকলে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই হয়তো চালু হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ের দীর্ঘ প্রতিক্ষিত দুটি হস্টেল ইতিমধ্যে মহিলা হস্টেলের কাজ শেষ হয়েছে। পুরুষ হস্টেলের কাজ প্রায় শেষের দিকে। শুরু থেকে মালদহের গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে নেই হস্টেল। দূর দূরান্ত থেকে পড়তে আসা পড়ুয়ারা ভাড়া বাড়ি বা মেস ভাড়া করে থাকছেন মালদহ শহরের বিভিন্ন প্রান্তে। অধিকাংশ পড়ুয়ারা বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চ শিক্ষার জন্য এসে সমস্যায় পড়ছেন। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল তৈরীর দাবি প্রথম থেকেই ওঠে। দীর্ঘদিন ধরেই গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি হস্টেল তৈরীর কাজ চলছিল।

     

     

    অবশেষে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে দুটি হস্টেল চালুর সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মহিলাদের তৈরি হস্টেলের আসবাবপত্র থেকে সমস্ত পরিকাঠামো তৈরি হয়ে গিয়েছে। পুরুষদের হস্টেল তৈরি হয়েছে। আসবাবপত্র অন্যান্য কিছু পরিকাঠামো তরীর কাজ চলছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে সে হস্টেলের কাজও সম্পন্ন হবে। প্রতিটি হস্টেলে দেড়শোটি করে আসন রয়েছে। হোস্টেল দুটি উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে।

    আরও পড়ুনঃ মালদহ টাউন স্টেশন থেকে চেন্নাই পর্যন্ত নতুন ট্রেনের দাবি

     

     

    সরকারিভাবে উদ্বোধন হয়ে গেলেই চালু হবে দুটি হোস্টেল এমনটাই দাবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের। ইতিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তারা হোস্টেলিটি দ্রুত উদ্বোধন করার পরিকল্পনা করছেন। উদ্বোধন হলে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে হস্টেল দুটি চালু করা হবে বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন আধিকারিক। গৌড়বঙ্গের তিন জেলা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পড়ুয়ারা স্নাতকোত্তর এমফিল, পিএইচডি ডিগ্রির জন্য এখানে পড়াশোনা করতে আসছেন।

    আরও পড়ুনঃ পথ কুকুরের বন্ধ্যাত্বকরণ ও জলাতঙ্ক রোগের টিকাকরন কর্মসূচি

     

     

    বর্তমানে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল না থাকায় মালদহ শহরের বিভিন্ন প্রান্তে বাড়ি ভাড়া মেস নিয়ে তাদের থাকতে হচ্ছে। এতে পড়ুয়াদের খরচ বাড়ছে। পিএইচডি পড়ুয়াদের ক্ষেত্রে সমস্যার সবচেয়ে বেশি। অনেক ক্ষেত্রেই তাদের সন্ধ্যা পর্যন্ত কাজ করতে হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়ে। সন্ধ্যা নামলেই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শহরে ফেরার যানবাহন তেমন পাওয়া যাচ্ছে না। এতে সমস্যায় পড়তে হয়। এছাড়াও হস্টেল না থাকায় আরো নানান সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে পড়ুয়াদের একাংশকে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের হস্টেল দুটি দ্রুত চালু দাবি দীর্ঘদিনের। আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে হস্টেল দুটি চালু হলে দূর-দূরান্ত থেকে পড়তে আসা পড়ুয়ারা অনেকটাই উপকৃত হবেন। এখন শুধু হস্টেল চালুর অপেক্ষায় পড়ুয়ারা।

     

     

     

    Harashit Singha

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Malda, University of Gour Banga

    পরবর্তী খবর