Home /News /local-18 /
Social Media Campaign: প্রচার কৌশলে নয়া মোড়! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরসা 'হেভিওয়েট' থেকে 'নতুন মুখ' নেতাদের

Social Media Campaign: প্রচার কৌশলে নয়া মোড়! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরসা 'হেভিওয়েট' থেকে 'নতুন মুখ' নেতাদের

পুরভোটের প্রস্তুতি শিলিগুড়িতে

পুরভোটের প্রস্তুতি শিলিগুড়িতে

বাম থেকে তৃণমূল, কংগ্রেস থেকে বিজেপি, প্রায় সকলের এখন মূল প্রচারের হাতিয়ার সোশ্যাল মিডিয়া (social media)।

  • Share this:

    #শিলিগুড়ি: রাজ্যে করোনার গ্রাফ ঊর্দ্ধমুখী! এর মধ্যে দরজায় কড়া নাড়ছে শিলিগুড়ির পুরনির্বাচন (Siliguri Election)। প্রায় প্রতিনিয়ত বেড়েই চলছে সংক্রমিতের সংখ্যা। রাজ্য সরকারের নির্দেশে তালা ঝুলেছে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। এর মধ্যেই রাতারাতি প্রচারের কৌশল পালটাতে তৎপর হয়েছে সমস্ত রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বরা। বাড়ি বাড়ি প্রচার থেকে বিরত থাকলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) সাড়া তুলছে দলগুলি। নিজেদের ওয়ার্ডে অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে নেমে পড়েছেন সব নেতারা।

    পাড়ায় পাড়ায় হালকা মেজাজেই চলছে প্রচার। তবে সেভাবে কারও হাতে দলীয় পতাকা দেখা যায়নি। তৃণমূল কংগ্রেসের গৌতম থেকে বামের অশোক ভট্টাচার্য। বিজেপির তাবড় নেতা শংকর ঘোষ থেকে তৃণমূলের পরিচিত মুখ রঞ্জন সরকার, সকলকেই করোনা বিধি মেনেই প্রচার করতে দেখা গেল। প্রত্যেকেই নিজেদের এলাকায় ছোট ছোট বৈঠক করে প্রচারে জোর দিচ্ছেন। এদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) জোর তো রয়েছেই।

    যুবদের অন্যতম মুখ, শংকর মালাকার 'কন্যা' তথা ২৬ নং ওয়ার্ড কংগ্রেস প্রার্থী রুচিরা মালাকার একান্ত আলাপচারিতায় News 18-কে বলেন, "সোশ্যাল মিডিয়া আজকালের দিনে ভীষণ জরুরী। বিশেষ করে এখন আমরা এমন পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে রয়েছি, যেখানে সোশ্যাল মিডিয়াকেই সবচেয়ে বেশি ভরসা করতে হয়। কোভিডের জন্য প্রচারের বিশেষ অস্ত্র কিন্তু এই সোশ্যাল মিডিয়া। দলের ওয়ার্ডের পেজের (page) পাশাপাশি আমার নিজের নামে একটা পেজ (page) রয়েছে। সেখান থেকে যথাসম্ভব প্রচার চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে মানুষের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করছি। পেজে যাতে মানুষ এসে আমাদের সে কথোপকথন দেখে, তার জন্য আমরা নিয়মিত আপডেট (update) দিচ্ছি। যেভাবে প্রচার করছি, সবকিছুই সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরা হচ্ছে। ওয়ার্ডের পেজ আগে খুব একটা ব্যবহার করা হত না। তবে এখন খুব ভালোভাবে সেটা ব্যবহার করছি। প্রচারের জন্য নবীন প্রজন্মের হাত ধরেই এগোনো হচ্ছে। ফেসবুকেই (facebook) মূলত সুবিধে হয় প্রচার করার। কারণ সেখানে প্রবীণ থেকে নবীন সকলেই রয়েছেন। সবার কাছে পৌঁছানো যাচ্ছে"।

    মানুষের জন্য তিনি বার্তা দিলেন, "যখন বাড়ি বাড়ি প্রচার করছি, তখনও আমি দু'জনকে নিয়েই সারছি। কারণ এখন মানুষকে সচেতন হতেই হবে। মাস্ক পড়ুন, সকলেই সুস্থ থাকুন, এটাই বার্তা দেব।বাবা আমার আইডল (idol)। ছোটবেলা থেকেই বাবাকে দেখে এসেছি মানুষের জন্য কাজ করতে। রাজনীতি করতে। বাবার সঙ্গে থেকেছি অনেক প্রচারের সময়। আমি চাই ওনার পথেই হাঁটতে", বলেন প্রথমবারের জন্য কংগ্রেস প্রার্থী রুচিরাদেবী। দার্জিলিং জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র তথা ৪৫ নং ওয়ার্ড তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী বেদব্রত দত্ত News 18-কে অবশ্য বলেন, "সবাই কম বেশি সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছেন। তাই সেখানেই প্রচার বেশি ভালো হবে। অনেকেই নিজেদের আলাদা পেজ করেছেন। তবে সেখানেও একটা ফাঁক রয়েছে। যেই ওয়ার্ডগুলো বস্তি এলাকা, যেখানকার অবস্থা উন্নত নয়, সেখানকার মানুষের কাছে পৌঁছানো মুশকিল হয়ে ওঠে। সেখানে এই বাড়ি বাড়ি প্রচার কাজে আসে। অনেকের কাছেই আবার স্মার্টফোন নেই। তখন আরেক সমস্যায় পড়তে হয়। তবে আমাদের আগে জানতে হবে, আমরা যাঁদের কাছে পৌঁছাব, তাঁরা আদৌ এই সোশ্যাল মিডিয়া (social media) ব্যবহার করেন কি না। তাঁদের সেই জিনিস বোঝার ক্ষমতা রয়েছে কি না। সেই বিষয়গুলো দেখতে হবে। তবে হ্যাঁ, আমরা সবরকমভাবে সচেতন থাকছি। সবাইকেও তাই বলব"।

    শিলিগুড়ি পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র তথা এবারের পুর নির্বাচনে ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাম প্রার্থী অশোক ভট্টাচার্য বলেন, "আমাদের দলের এবারের অনেকেই  নতুন মুখ। নবীন প্রজন্ম। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে প্রচার তো চলছেই। তবে পাঁচজনকে নিয়ে এই প্রচার করা হচ্ছে। আমরা নিজেরাও সচেতন রয়েছি। সোশ্যাল মিডিয়াকে আমরা ব্যবহার করছি প্রচারের জন্য, মানুষের সুবিধে অসুবিধে শোনার জন্য। এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনেকের কাছেই পৌঁছাতে পারছি। মানুষ আমাদের সহযোগিতা করছেন। তাঁরা আমাদের পছন্দ করছেন"।

    বিজেপি বিধায়ক তথা শিলিগুড়ি পুরনিগমের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী শংকর ঘোষ বলেন, "আমরা অনেক সভাই বাতিল করেছি। সবাই আমরা করোনা রুখতে বিধিনিষেধ মেনেই প্রচার করছি। ব্যাপকভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করছি। এছাড়াও আমরা কয়েকজন মিলেই আলোচনা করছি। তাও জরুরী বৈঠক ছাড়া, সবই প্রায় বাতিল হয়ে গিয়েছে। তাই আমরা এই সোশ্যাল মিডিয়াতেই (social media) জোর দিচ্ছি"। এভাবেই বাম থেকে তৃণমূল, কংগ্রেস থেকে বিজেপি, প্রায় সকলের এখন মূল প্রচারের হাতিয়ার সোশ্যাল মিডিয়া।

    Vaskar Chakraborty

    First published:

    Tags: Election Campaign, Siliguri Municipal Election, Social Media

    পরবর্তী খবর