• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • Priest Allowance: মিলছে না ব্রাহ্মণ ভাতা, পুজো থেকে শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে অংশ না নেওয়ার হুঁশিয়ারি পুরোহিতদের

Priest Allowance: মিলছে না ব্রাহ্মণ ভাতা, পুজো থেকে শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে অংশ না নেওয়ার হুঁশিয়ারি পুরোহিতদের

ভাতা না মিললে পুজো নয়, হুঁশিয়ারি পুরোহিতদের

ভাতা না মিললে পুজো নয়, হুঁশিয়ারি পুরোহিতদের

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুরোহিতদের (Priest Allowance, Bengal) জন্য ভাতা দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন।

  • Share this:

    #বীরভূম : রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুরোহিতদের জন্য ভাতা (Allowance for priests) দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন। কিন্তু তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও সেই ভাতা এখন পর্যন্ত কেউই পাননি বলে অভিযোগ সিউড়ির পুরোহিতের একাংশের (Allowance not recieved)। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তারা সোচ্চার হলেন এবং দ্রুত প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এই ভাতা না পাওয়া গেলে বৃহত্তর আন্দোলনের (Protest of priests) পাশাপাশি পুজো থেকে শ্রাদ্ধানুষ্ঠান কোন কিছুতেই অংশ নেবেন না বলে হুঁশিয়ারি দিলেন তারা (Bengal News)।

    বুধবার বীরভূমের সিউড়ি শহরে (Bibhum, Suri) এবং পার্শ্ববর্তী এলাকার বেশকিছু পুরোহিত তাদের এই ব্রাহ্মণ ভাতার (Brahman Bhata) দাবিতে বীরভূম জেলা শাসকের দ্বারস্থ হন। সেখানে তারা একটি স্মারকলিপি জমা দেন এবং দ্রুত এই সমস্যা সমাধানের আবেদন জানান। তবে এই স্মারকলিপি জমা দেওয়ার আগে তারা জেলাশাসক অফিসের সামনে সোচ্চার হন তাদের প্রাপ্য টাকা না পাওয়ার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে।

    আরও পড়ুন West Bengal News| Drugs and Murder: মাদকের নেশায় বাধা দেওয়াতেই দাদাকে খুন, চক্রের 'পান্ডা'কে গ্রেফতার করল পুলিশ

    স্মারকলিপি জমা দিতে আসা পুরোহিতের একজন পুরোহিত অমল চক্রবর্তীর অভিযোগ, "মুখ্যমন্ত্রীর থেকে আমরা আশ্বাস পেয়েছিলাম ব্রাহ্মণ ভাতার। কিন্তু গত এক বছরের বেশি সময় ধরে এই আশ্বাস দেওয়া হলেও, তালিকায় নাম থাকলেও এখনও পর্যন্ত এই ভাতা মেলেনি। ইতিমধ্যেই আমরা একাধিকবার জেলা সভাধিপতি, জেলাশাসক এবং অন্যান্য আধিকারিকদের দ্বারস্থ হয়েছি প্রাপ্য এই ভাতার দাবিতে। তাদের থেকে বারংবার বলা হচ্ছে 'আগামী মাসে দেওয়া হবে'। কিন্তু সেই আগামী মাস এখনো আসেনি।"

    আরও পড়ুনWest Bengal News| Laxmi Bhandar: পা দিয়ে ভরে দিচ্ছেন লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম! বীরভূমের মহিলাদের পাশে বিশেষভাবে সক্ষম জগন্নাথ

    এর পাশাপাশি ওই পুরোহিত দলের আরও এক প্রতিনিধি সৃজিত চট্টরাজ জানিয়েছেন, "আমরা সকলে মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি অবিলম্বে আমাদের এই দাবি-দাওয়া যদি মেনে না নেওয়া হয় তাহলে সামনে যে বিশ্বকর্মা পুজো, দুর্গাপুজো, কালীপুজো (Festivals)ইত্যাদি পুজোগুলো আসছে সেই সকল পুজোতে সিউড়ি শহরের কোন পুরোহিত অংশ নেবেন না। আমাদের আশা দিয়েও কেন এইভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে। আমাদের দাবি-দাওয়া মেনে না নেওয়া হলে পুজো ছাড়াও আমরা কোনরকম শ্রাদ্ধানুষ্ঠানেও অংশ নেব না। পুরোহিত ছাড়া তো কোনো কাজ হবে না।"

    মাধব দাস

    Published by:Pooja Basu
    First published: