Home /News /local-18 /
শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে বোলপুর পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে বোলপুর পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে বোলপুর পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে বোলপুর পৌরসভার অভিনব উদ্যোগ

বীরভূমের প্রতিটি শহর যেখানে ব্যস্ত সময়ে রাস্তায় বের হলেই যানজটের মত দুর্ভোগের সম্মুখীন হতে হয়।

  • Share this:

    মাধব দাস, বীরভূম : বীরভূমের প্রতিটি শহর যেখানে ব্যস্ত সময়ে রাস্তায় বের হলেই যানজটের মত দুর্ভোগের সম্মুখীন হতে হয়। মূলত ট্রাফিক ব্যবস্থার দুর্বলতা এবং সাধারণ মানুষের অসচেতন মনোভাবের জন্য এই যানজট অনেকাংশে তৈরি করে। এই যানজট সমস্যা দূর করে শহরের বাসিন্দাদের যাতে নির্বিঘ্নে নিজেদের গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া যায় সেই কথা মাথায় রেখেই সম্প্রতি বোলপুর পৌরসভার তরফ থেকে অভিনব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

    বোলপুর পৌরসভার তরফ থেকে একটি স্বেচ্ছাসেবী দল গঠন করা হয়েছে। যে স্বেচ্ছাসেবী দলে মোট ৩০ জন স্বেচ্ছাসেবক নিযুক্ত হয়েছেন। এই সকল স্বেচ্ছাসেবকদের কাজ হল, বোলপুর শহরের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় নজরদারি চালানো। তাদের নজরদারি চলছে, যাতে এলাকার বাসিন্দারা অথবা বাইরে থেকে আগত পর্যটকরা যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং না করেন। পাশাপাশি টোটো সহ বিভিন্ন গণপরিবহণের সাথে যুক্ত যানবাহন যাতে যত্রতত্র না দাঁড়াতে পারে। এর পাশাপাশি তাঁরা রাস্তায় বের হওয়া বয়স্ক মানুষদের যতটা সম্ভব সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন।

    বোলপুর পৌরসভার প্রশাসক পর্ণা ঘোষ জানিয়েছেন, "মূলত আমরা ৩০ জন স্বেচ্ছাসেবককে নিয়ে এই টিম গঠন করেছি। এই টিমের সদস্যরা শান্তিনিকেতন রোড সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় দিনে তিন শিফটে নিজেদের পরিসেবা দিচ্ছে। এই ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে কেবলমাত্র এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের কথা মাথায় রেখে। যাতে করে গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তায় স্থানীয় বাসিন্দারা নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারেন।"

    বোলপুর মূলত কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতিবিজড়িত শান্তিনিকেতনে বছরের প্রায় প্রতিটি সময় পর্যটকের আগমন ঘটে থাকে। তবে এই শহর দিনদিন সংকীর্ণ হয়ে পড়ায় যান চলাচল থেকে যানবাহন পার্কিং সবক্ষেত্রেই সমস্যা তৈরি হচ্ছে। তৈরি হচ্ছে যানজট। আর এই সমস্যায় পড়ে নাজেহাল হতে হচ্ছে হাসপাতালে ভর্তি হতে আসা রোগী থেকে জরুরি কাজে বাড়ি থেকে বের হওয়া বাসিন্দাদের। যে কারণে বোলপুর পৌরসভার এই সার্বিক ব্যবস্থাপনাকে স্বাগত জানিয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারাও। শান্তিনিকেতনের স্থায়ী বাসিন্দারা জানিয়েছেন, "এই উদ্যোগ সত্যিই মহৎ উদ্যোগ। এমন উদ্যোগ আগেই নেওয়া দরকার ছিল। তবে সে যাই হোক বর্তমান পরিস্থিতিতে এখনই যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে তা প্রশংসনীয়। আমরা স্থানীয় বাসিন্দারা অন্ততপক্ষে যানজট থেকে কিছুটা হলেও রেহাই পাব।"

    Published by:Pooja Basu
    First published:

    Tags: Birbhum, Bolpur, Municipality

    পরবর্তী খবর